চীনকে ঠেকাতে ভারতের সঙ্গে তিন শক্তিধর রাষ্ট্রের নৌমহড়া
jugantor
চীনকে ঠেকাতে ভারতের সঙ্গে তিন শক্তিধর রাষ্ট্রের নৌমহড়া

  অনলাইন ডেস্ক  

২০ অক্টোবর ২০২০, ২০:৪৯:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে বঙ্গোপসাগরে কোয়াড সদস্য যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া চালায়। ছবি: এএফপি

চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই আগামী মাসেই মালাবার নৌ মহড়ায় যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও ভারতের সঙ্গে নৌমহড়ায় অংশ নেবে অস্ট্রেলিয়া। এ সামরিক নৌমহড়াটি ভারতীয় উপকূল আরব সাগর ও বঙ্গপোসাগর উপকূলে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

সোমবার ভারতের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, ২০০৭ সালের পর নভেম্বরের শেষ দিকে প্রথমবারের মতো ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের সঙ্গে নৌ মহড়ায় অংশ নেবে অস্ট্রেলিয়া। অর্থাৎ পুরো ‘কোয়াড’ বা ‘কোয়াড্রিল্যাটারাল সিকিউরিটি ডায়লগ’—এর অংশগ্রহণ হবে এই মহড়া।

এই মহড়াটি এমন সময় অনুষ্ঠিত হচ্ছে যখন চীন ও অস্ট্রেলিয়া কূটনৈতিক বিরোধ চলছে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্য নিয়ে বিরোধ রয়েছে চীনের। সেই সঙ্গে ভারতের সঙ্গে সীমান্ত নিয়েও চীনের দ্বন্দ্ব চলছে।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই নৌমহড়াটি আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরে অনুষ্ঠিত হবে, যা ভারত ও চীনের কৌশলগত প্রতিযোগিতার হটস্পট।

সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত কয়েক দশক ধরে চীন মিয়ানমার, শ্রিলংকা, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশে গুরুতরভাবে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে, এ নিয়ে উদ্বিগ্ন রয়েছে নয়া দিল্লি।

উল্লেখ্য, ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরে নৌ চলাচল ‘অবাধ ও স্বাধীন‘ রাখার উপায় খোঁজার যুক্তি দেখিয়ে ২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মধ্যে 'কোয়াড' নামে সংলাপের সূচনা হয়েছিল। দশ বছর পর ‘কোয়াড সংলাপ' ২০১৭ সাল থেকে নতুন করে জীবন ফিরে পায়। কোয়াডের চারটি সদস্য দেশের মধ্যে ২০১৭ সাল থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে নিয়মিত বৈঠক হচ্ছে, তবে চীনকে চাপে ফেলতে এই বৈঠক তা কখোনো স্পষ্ট করেনি এই চার দেশ।

চীনকে ঠেকাতে ভারতের সঙ্গে তিন শক্তিধর রাষ্ট্রের নৌমহড়া

 অনলাইন ডেস্ক 
২০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে বঙ্গোপসাগরে কোয়াড সদস্য যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া চালায়। ছবি: এএফপি
২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে বঙ্গোপসাগরে কোয়াড সদস্য যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া চালায়। ছবি: এএফপি

চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই আগামী মাসেই মালাবার নৌ মহড়ায় যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও ভারতের সঙ্গে নৌমহড়ায় অংশ নেবে অস্ট্রেলিয়া। এ সামরিক নৌমহড়াটি ভারতীয় উপকূল আরব সাগর ও বঙ্গপোসাগর উপকূলে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। 

সোমবার ভারতের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, ২০০৭ সালের পর নভেম্বরের শেষ দিকে প্রথমবারের মতো ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের সঙ্গে নৌ মহড়ায় অংশ নেবে অস্ট্রেলিয়া।  অর্থাৎ পুরো ‘কোয়াড’ বা ‘কোয়াড্রিল্যাটারাল সিকিউরিটি ডায়লগ’—এর অংশগ্রহণ হবে এই মহড়া।

এই মহড়াটি এমন সময় অনুষ্ঠিত হচ্ছে যখন চীন ও অস্ট্রেলিয়া কূটনৈতিক বিরোধ চলছে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্য নিয়ে বিরোধ রয়েছে চীনের। সেই সঙ্গে ভারতের সঙ্গে সীমান্ত নিয়েও চীনের দ্বন্দ্ব চলছে।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই নৌমহড়াটি আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরে অনুষ্ঠিত হবে, যা ভারত ও চীনের কৌশলগত প্রতিযোগিতার হটস্পট।  

সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত কয়েক দশক ধরে চীন মিয়ানমার, শ্রিলংকা, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশে গুরুতরভাবে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে, এ নিয়ে উদ্বিগ্ন রয়েছে নয়া দিল্লি। 

উল্লেখ্য, ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরে নৌ চলাচল ‘অবাধ ও স্বাধীন‘ রাখার উপায় খোঁজার যুক্তি দেখিয়ে ২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মধ্যে 'কোয়াড' নামে সংলাপের সূচনা হয়েছিল।  দশ বছর পর ‘কোয়াড সংলাপ' ২০১৭ সাল থেকে নতুন করে জীবন ফিরে পায়।  কোয়াডের চারটি সদস্য দেশের মধ্যে ২০১৭ সাল থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে নিয়মিত বৈঠক হচ্ছে, তবে চীনকে চাপে ফেলতে এই বৈঠক তা কখোনো স্পষ্ট করেনি এই চার দেশ।  

 

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা

আরও খবর