মহানবীকে অবমাননা: ইতালিতে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে প্রতিবাদ
jugantor
মহানবীকে অবমাননা: ইতালিতে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে প্রতিবাদ

  জমির হোসেন, ইতালি থেকে  

৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৫৮:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

মহানবীকে অবমাননা: ইতালিতে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে প্রতিবাদ

মহানবীকে (সা.) বিদ্রূপ করে কার্টুন প্রকাশে সমর্থন ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর ইসলামবিদ্বেষী মন্তব্যের প্রতিবাদে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে জুমার নামাজ আদায় করেছে ইতালির মুসলিমরা।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) ইতালির রোমে ব্যতিক্রমী এ প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রতিবাদকারীরা ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও করতে চাইলে পুলিশ বাধাঁ দেয়। পরে দূতাবাসের সামনে ইতালি কমিউনিটির নেতারা প্রতিবাদ সভা করেন।

বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত প্ল্যাকার্ড, ব্যানার নিয়ে নারী-পুরুষসহ অসংখ্য মানুষ প্রতিবাদে অংশ গ্রহণ করেন। পরে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে জুমার নামাজ আদায় করা হয়।

বাংলাদেশি ছাড়াও ইতালিয়ানসহ অন্যান্য অভিবাসীরা সভায় অংশ নিয়ে প্রতিবাদ জানান। এসময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর কঠোর সমালোচনা করেন উপস্থিত বক্তারা।

তারা বলেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তি মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে তাই বিশ্ব মুসলিম আজ ক্ষুব্ধ। এমন ঘৃন্য কাজের প্রতিবাদ জানাতে আমরাও সবাই রাস্তায় নেমে এসেছি।

মহানবীকে অবমাননা: ইতালিতে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে প্রতিবাদ

 জমির হোসেন, ইতালি থেকে 
৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মহানবীকে অবমাননা: ইতালিতে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে প্রতিবাদ
ছবি: সংগৃহীত

মহানবীকে (সা.) বিদ্রূপ করে কার্টুন প্রকাশে সমর্থন ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর ইসলামবিদ্বেষী মন্তব্যের প্রতিবাদে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে জুমার নামাজ আদায় করেছে ইতালির মুসলিমরা। 

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) ইতালির রোমে ব্যতিক্রমী এ প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রতিবাদকারীরা ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও করতে চাইলে পুলিশ বাধাঁ দেয়। পরে দূতাবাসের সামনে ইতালি কমিউনিটির নেতারা প্রতিবাদ সভা করেন।

বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত প্ল্যাকার্ড, ব্যানার নিয়ে নারী-পুরুষসহ অসংখ্য মানুষ প্রতিবাদে অংশ গ্রহণ করেন। পরে প্রকাশ্যে আজান দিয়ে জুমার নামাজ আদায় করা হয়। 

বাংলাদেশি ছাড়াও ইতালিয়ানসহ অন্যান্য অভিবাসীরা সভায় অংশ নিয়ে প্রতিবাদ জানান। এসময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর কঠোর সমালোচনা করেন উপস্থিত বক্তারা। 

তারা বলেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তি মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে তাই বিশ্ব মুসলিম আজ ক্ষুব্ধ। এমন ঘৃন্য কাজের প্রতিবাদ জানাতে আমরাও সবাই রাস্তায় নেমে এসেছি। 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ফ্রান্সে ইসলাম অবমাননা