এবার নিজ দলের নেতাকে একগুঁয়ে গোমড়ামুখো বললেন ট্রাম্প
jugantor
এবার নিজ দলের নেতাকে একগুঁয়ে গোমড়ামুখো বললেন ট্রাম্প

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:৫৫:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ম্যাককনেলকে একগুঁয়ে গোমড়ামুখো বললেন ক্ষুব্ধ ট্রাম্প

এবারসিনেটের রিপাবলিকান দলের জ্যেষ্ঠনেতা মিচ ম্যাককনেলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সিনেটে রিপাবলিকান দলেরনেতা হিসেবে তাকে বাদ দিতে সিনেটরদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট।-খবর এনডিটিভির।

ক্যাপিটল ভবনে দাঙ্গার ঘটনায় সিনেটে অভিশংসন বিচারে ট্রাম্পের সমালোচনা করেছিলেনমিচ ম্যাককনেল।

তার জবাবে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, দলীয় কর্ণধার হিসেবে মিচ ম্যাককনেলের মতো রাজনৈতিক নেতাদের প্রতি আর শ্রদ্ধাবোধ কিংবা জোরালো সম্পর্ক রাখতে পারে না রিপাবলিকান দল।

তিনি বলেন, মিচ ম্যাককনেল একগুঁয়ে, জেদি ও গোমড়ামুখো রাজনৈতিক ব্যক্তি। যদি রিপাবলিকান দল তার সঙ্গে থাকে, তবে তারা কখনওজয়ী হতে পারবে না।

শনিবার সিনেটে মিচ ম্যাককনেল বলেন, অভিশংসন বিচারে যদিও আমি ট্রাম্পকে অব্যাহত দেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছি, তবুও ক্যাপিটল ভবনে হামলার জন্য সাবেক প্রেসিডেন্ট বাস্তবিক ও রাজনৈতিকভাবে দায়ী।

এরপরেই ট্রাম্পের কোপানলে পড়েন এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ।

২০ জানুয়ারি হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর সবচেয়ে দীর্ঘ রাজনৈতিক মন্তব্যে সিনেটে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর জন্য মিচ ম্যাককনেলকে দায়ী করেন ট্রাম্প।

কেন্টাকি থেকে ম্যাককনেলের জয়ের কৃতিত্বও নিজেকে দেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

অথচ ১৯৮৪ সাল থেকে এই আসনটিতে জয়ী হয়ে আসছেন ৭৮ বছর বয়সী এই রাজনীতিবিদ। গত ছয় বছর ধরে সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা হিসেবেও তিনি দায়িত্ব পালন করেন।

এবার নিজ দলের নেতাকে একগুঁয়ে গোমড়ামুখো বললেন ট্রাম্প

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:৫৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ম্যাককনেলকে একগুঁয়ে গোমড়ামুখো বললেন ক্ষুব্ধ ট্রাম্প
ছবি: সংগৃহীত

এবার সিনেটের রিপাবলিকান দলের জ্যেষ্ঠ নেতা মিচ ম্যাককনেলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সিনেটে রিপাবলিকান দলের নেতা হিসেবে তাকে বাদ দিতে সিনেটরদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট।-খবর এনডিটিভির।

ক্যাপিটল ভবনে দাঙ্গার ঘটনায় সিনেটে অভিশংসন বিচারে ট্রাম্পের সমালোচনা করেছিলেন মিচ ম্যাককনেল। 

তার জবাবে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, দলীয় কর্ণধার হিসেবে মিচ ম্যাককনেলের মতো রাজনৈতিক নেতাদের প্রতি আর শ্রদ্ধাবোধ কিংবা জোরালো সম্পর্ক রাখতে পারে না রিপাবলিকান দল।

তিনি বলেন, মিচ ম্যাককনেল একগুঁয়ে, জেদি ও গোমড়ামুখো রাজনৈতিক ব্যক্তি। যদি রিপাবলিকান দল তার সঙ্গে থাকে, তবে তারা কখনও জয়ী হতে পারবে না।

শনিবার সিনেটে মিচ ম্যাককনেল বলেন, অভিশংসন বিচারে যদিও আমি ট্রাম্পকে অব্যাহত দেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছি, তবুও ক্যাপিটল ভবনে হামলার জন্য সাবেক প্রেসিডেন্ট বাস্তবিক ও রাজনৈতিকভাবে দায়ী।

এরপরেই ট্রাম্পের কোপানলে পড়েন এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ। 

২০ জানুয়ারি হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর সবচেয়ে দীর্ঘ রাজনৈতিক মন্তব্যে সিনেটে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর জন্য মিচ ম্যাককনেলকে দায়ী করেন ট্রাম্প।

কেন্টাকি থেকে ম্যাককনেলের জয়ের কৃতিত্বও নিজেকে দেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট। 

অথচ ১৯৮৪ সাল থেকে এই আসনটিতে জয়ী হয়ে আসছেন ৭৮ বছর বয়সী এই রাজনীতিবিদ। গত ছয় বছর ধরে সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা হিসেবেও তিনি দায়িত্ব পালন করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০