ভারতকে প্রশংসায় ভাসালেন পেন্টাগন প্রধান
jugantor
ভারতকে প্রশংসায় ভাসালেন পেন্টাগন প্রধান

  অনলাইন ডেস্ক  

২০ মার্চ ২০২১, ১৪:৫৩:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

পেন্টাগন প্রধানের ভারত সফর, আলোচনায় প্রাধান্য পাচ্ছে চীন

সমমনা অংশীদারদের সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি করায় ভারতের প্রশংসা করেছেন পেন্টাগনের প্রধান লয়েড অস্টিন।

শনিবার নয়াদিল্লিতে তার বৈঠকে আলোচনায় চীনের আঞ্চলিক প্রভাব প্রাধান্য পাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র ভারত। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন শপথ নেওয়ার পর প্রথমবারের মতো মুখোমুখি কোনো বৈঠকে ভারতে দুদিনের সফরে এসেছেন অস্টিন।

আলাসকায় চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের দুদিনব্যাপী আলোচনার পর তিনি ভারত সফরে আসেন।

ওই বৈঠকে দুই বিশ্বশক্তির মধ্যে কোনো রাখঢাক না রেখেই আলোচনা হয়েছে। তারা এক রকম বাগযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন।

শুক্রবার ভারতে আসেন অস্টিন। পরে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে তিনি বৈঠক করেন।

এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ভারতীয় নেতৃত্বের প্রশংসা করেন অস্টিন।

পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি বলেন, ভারতের অস্টিনের আলোচনায় মুক্ত ও প্রকাশ্য আঞ্চলিক ব্যবস্থার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দুই পক্ষ এবং অঞ্চলটিতে তারা যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছেন, তা নিয়েও নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গির বিনিময় করেছে।

এ সময়ে ব্যাপক ও জোরালো প্রতিরক্ষা সহযোগিতারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দুদেশ।

সরাসরি চীনের নাম উল্লেখ না করেই এক টুইটবার্তায় মোদি বলেন, বৈশ্বিক উন্নতিকে এগিয়ে নিতে কৌশলগত অংশীদারত্বের প্রতি জোর দিচ্ছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র।

ভারতকে প্রশংসায় ভাসালেন পেন্টাগন প্রধান

 অনলাইন ডেস্ক 
২০ মার্চ ২০২১, ০২:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পেন্টাগন প্রধানের ভারত সফর, আলোচনায় প্রাধান্য পাচ্ছে চীন
ছবি: সংগৃহীত

সমমনা অংশীদারদের সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি করায় ভারতের প্রশংসা করেছেন পেন্টাগনের প্রধান লয়েড অস্টিন। 

শনিবার নয়াদিল্লিতে তার বৈঠকে আলোচনায় চীনের আঞ্চলিক প্রভাব প্রাধান্য পাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র ভারত। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন শপথ নেওয়ার পর প্রথমবারের মতো মুখোমুখি কোনো বৈঠকে ভারতে দুদিনের সফরে এসেছেন অস্টিন।

আলাসকায় চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের দুদিনব্যাপী আলোচনার পর তিনি ভারত সফরে আসেন।

ওই বৈঠকে দুই বিশ্বশক্তির মধ্যে কোনো রাখঢাক না রেখেই আলোচনা হয়েছে। তারা এক রকম বাগযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন। 

শুক্রবার ভারতে আসেন অস্টিন। পরে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে তিনি বৈঠক করেন।

এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ভারতীয় নেতৃত্বের প্রশংসা করেন অস্টিন। 

পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি বলেন, ভারতের অস্টিনের আলোচনায় মুক্ত ও প্রকাশ্য আঞ্চলিক ব্যবস্থার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দুই পক্ষ এবং অঞ্চলটিতে তারা যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছেন, তা নিয়েও নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গির বিনিময় করেছে।

এ সময়ে ব্যাপক ও জোরালো প্রতিরক্ষা সহযোগিতারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দুদেশ।

সরাসরি চীনের নাম উল্লেখ না করেই এক টুইটবার্তায় মোদি বলেন, বৈশ্বিক উন্নতিকে এগিয়ে নিতে কৌশলগত অংশীদারত্বের প্রতি জোর দিচ্ছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা