মালয়েশিয়ায় নির্বাচনে জামানত হারালেন মাহাথির
jugantor
মালয়েশিয়ায় নির্বাচনে জামানত হারালেন মাহাথির

  অনলাইন ডেস্ক  

২০ নভেম্বর ২০২২, ১০:১২:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় নির্বাচনে জামানত হারালেন মাহাথির

মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচনে অংশ নিয়ে জামানত হারিয়েছেন দেশটির দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকা প্রধানমন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ ড. মাহাথির মোহাম্মদ। নিজের আসন লাঙখায়ির হলিডে আইল্যান্ড সংসদীয় আসনে পেজুয়াং পার্টির প্রধান মাহাথির মাত্র চার হাজার ৫৬৬ ভোট পেয়েছেন, যা ওই আসনে ক্রমানুসারে চতুর্থ।

শনিবার মালয়েশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য স্টারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— ড. মাহাথির মোহাম্মদের আসনে পেরিকাতান ন্যাশনাল দাতুক পার্টির সুহাইমি আব্দুল্লাহ ২৫ হাজার ৪৬৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অন্য প্রার্থীদের তুলনায় বিজয়ী প্রার্থী ১৩ হাজার ৫১৮ ভোট বেশি পেয়েছেন।

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে ড. মাহাথির মোহাম্মদ এ নিয়ে দ্বিতীয় বার হারলেন। জীবনে প্রথমে ১৯৬৯ সালে প্রেসিডেন্ট ইউসুফ রাজার কাছে হেরেছিলেন তিনি।
মাহাথির দুই দশকের বেশি সময় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তিনি ১৯৮১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত টানা ২২ বছর মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৮ সালে ৯২ বছর বয়সে তিনি পুনরায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন। এই দফায় অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে তার সরকারের পতন ঘটে। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে তিনি পদত্যাগ করেন। ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লিখিয়েছিলেন তিনি।

বয়সজনিত কারণে গতিতে কিছুটা ‘ধীর’ হলেও মাহাথির মোহাম্মদ দেখতে এখনো ‘সুস্থ’ রয়েছেন। চলতি মাসের শুরুর দিকে প্রার্থিতা জমা দিতে গিয়ে গণমাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে মাহাথির মোহাম্মদ বলেছিলেন, তার জয়ের ভালো সম্ভাবনা রয়েছে। ‘অবসর নেওয়া উচিত’ এমন পরামর্শে হেসে তিনি জবাব দিয়েছিলেন— ‘আমি এখনো তোমাদের পাশে দাঁড়িয়ে আছি এবং কথাও বলছি।’

মালয়েশিয়ায় নির্বাচনে জামানত হারালেন মাহাথির

 অনলাইন ডেস্ক 
২০ নভেম্বর ২০২২, ১০:১২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মালয়েশিয়ায় নির্বাচনে জামানত হারালেন মাহাথির
ছবি: সংগৃহীত

মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচনে অংশ নিয়ে জামানত হারিয়েছেন দেশটির দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকা প্রধানমন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ ড. মাহাথির মোহাম্মদ। নিজের আসন লাঙখায়ির হলিডে আইল্যান্ড সংসদীয় আসনে পেজুয়াং পার্টির প্রধান মাহাথির মাত্র চার হাজার ৫৬৬ ভোট পেয়েছেন, যা ওই আসনে ক্রমানুসারে চতুর্থ।

শনিবার মালয়েশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য স্টারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— ড. মাহাথির মোহাম্মদের আসনে পেরিকাতান ন্যাশনাল দাতুক পার্টির সুহাইমি আব্দুল্লাহ ২৫ হাজার ৪৬৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অন্য প্রার্থীদের তুলনায় বিজয়ী প্রার্থী ১৩ হাজার ৫১৮ ভোট বেশি পেয়েছেন।

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে ড. মাহাথির মোহাম্মদ এ নিয়ে দ্বিতীয় বার হারলেন। জীবনে প্রথমে ১৯৬৯ সালে প্রেসিডেন্ট ইউসুফ রাজার কাছে হেরেছিলেন তিনি।
মাহাথির দুই দশকের বেশি সময় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তিনি ১৯৮১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত টানা ২২ বছর মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৮ সালে ৯২ বছর বয়সে তিনি পুনরায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন। এই দফায় অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে তার সরকারের পতন ঘটে। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে তিনি পদত্যাগ করেন। ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লিখিয়েছিলেন তিনি।

বয়সজনিত কারণে গতিতে কিছুটা ‘ধীর’ হলেও মাহাথির মোহাম্মদ দেখতে এখনো ‘সুস্থ’ রয়েছেন। চলতি মাসের শুরুর দিকে প্রার্থিতা জমা দিতে গিয়ে গণমাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে মাহাথির মোহাম্মদ বলেছিলেন, তার জয়ের ভালো সম্ভাবনা রয়েছে। ‘অবসর নেওয়া উচিত’ এমন পরামর্শে হেসে তিনি জবাব দিয়েছিলেন— ‘আমি এখনো তোমাদের পাশে দাঁড়িয়ে আছি এবং কথাও বলছি।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন