সম্পর্কের নতুন দ্বার উন্মোচন করতে রাশিয়া যাচ্ছেন শি জিনপিং
jugantor
সম্পর্কের নতুন দ্বার উন্মোচন করতে রাশিয়া যাচ্ছেন শি জিনপিং

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ মার্চ ২০২৩, ১০:৩১:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে মস্কো যাচ্ছেন। তার এ সফর দেশ দুটির সম্পর্কের নতুন দ্বার উন্মোচন করবে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন যুগের সূচনা করতে যাচ্ছেন। খবর আলজাজিরা।
ক্রেমলিন জানিয়েছে, কৌশলগত মিত্রের সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার তিন দিনের সফরে মস্কো পৌঁছাবেন।

ইউক্রেনে রাশিয়ার বিশেষ অভিযান শুরুর পর এটি হবে চীনা প্রেসিডেন্টের প্রথম মস্কো সফর।

পুতিনের শীর্ষ উপদেষ্টা ইউরি উষাকভ জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহে সম্পর্ক জোরদার এবং পূর্ণাঙ্গ অংশীদারত্বের বিষয়ে দুই নেতা একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণাপত্রে সই করবেন।

রাশিয়া ও চীন ২০২৩ সাল পর্যন্ত সহযোগিতার একটি রোডম্যাপ নির্ধারণ করবে। এ ছাড়া এই সফরে আরও একডজন চুক্তি হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

পুতিন ও শি জিনপিংয়ের আলোচনায় ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের বিষয়টিও থাকবে বলে জানান উষাকভ। আন্তর্জাতিক বিষয়ে চীনের অবস্থানকে রাশিয়া বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে চীনা প্রেসিডেন্টের মস্কো সফরের বিষয়ে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, দুই নেতা দিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে মতবিনিময় করবেন।

সম্পর্কের নতুন দ্বার উন্মোচন করতে রাশিয়া যাচ্ছেন শি জিনপিং

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ মার্চ ২০২৩, ১০:৩১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে মস্কো যাচ্ছেন। তার এ সফর দেশ দুটির সম্পর্কের নতুন দ্বার উন্মোচন করবে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন যুগের সূচনা করতে যাচ্ছেন। খবর আলজাজিরা।
ক্রেমলিন জানিয়েছে, কৌশলগত মিত্রের সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার তিন দিনের সফরে মস্কো পৌঁছাবেন।

ইউক্রেনে রাশিয়ার বিশেষ অভিযান শুরুর পর এটি হবে চীনা প্রেসিডেন্টের প্রথম মস্কো সফর।

পুতিনের শীর্ষ উপদেষ্টা ইউরি উষাকভ জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহে সম্পর্ক জোরদার এবং পূর্ণাঙ্গ অংশীদারত্বের বিষয়ে দুই নেতা একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণাপত্রে সই করবেন।

রাশিয়া ও চীন ২০২৩ সাল পর্যন্ত সহযোগিতার একটি রোডম্যাপ নির্ধারণ করবে। এ ছাড়া এই সফরে আরও একডজন চুক্তি হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

পুতিন ও শি জিনপিংয়ের আলোচনায় ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের বিষয়টিও থাকবে বলে জানান উষাকভ। আন্তর্জাতিক বিষয়ে চীনের অবস্থানকে রাশিয়া বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে চীনা প্রেসিডেন্টের মস্কো সফরের বিষয়ে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, দুই নেতা দিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে মতবিনিময় করবেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা