একুশে টেলিভিশনের প্রধান প্রতিবেদক কারাগারে

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

এমএম সেকান্দার মিয়া
এমএম সেকান্দার মিয়া। ফাইল ছবি

সহকর্মীকে যৌন হয়রানির মামলায় একুশে টেলিভিশনের প্রধান প্রতিবেদক এমএম সেকান্দার মিয়াকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিন দুই দিনের রিমান্ড শেষে আসামিকে আদালতে হাজির করে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

অপরদিকে আসামিপক্ষে জামিন চেয়ে শুনানি করা হয়। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামির জামিন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর ওই আদেশ দেন।

এর আগে গত সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) আসামির দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এর আগে র‌্যাবের সহায়তায় আসামিকে গ্রেফতার গত সোমবার রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় মামলাটি দায়ের করেন ওই নারী।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০১৮ সালের মার্চে ওই নারী একুশে টেলিভিশনের নিউজ অ্যান্ড কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিভাগে যোগ দেন। কিছুদিন পর সেকান্দার ওই নারীকে কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত দিতে থাকেন। স্পেশাল অ্যাসাইনমেন্টের কথা বলে গভীর রাত পর্যন্ত বসিয়ে রাখতেন।

গত ২৭ জানুয়ারি রাত ৮টার দিকে হাতিরঝিল এলাকায় রিপোর্ট করতে হবে বলে ওই নারীকে ফোন করে জানায় সেকান্দার। সরল বিশ্বাসে ওই নারী সেকান্দারের সঙ্গে যান। রাত ৯টার দিকে হাতিরঝিল থানাধীন চক্রাকার বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছানোর পর সেকান্দার ড্রাইভারকে গাড়ি থামাতে বলেন। এরপর ড্রাইভারকে ফাস্টফুডের দোকানে পাঠিয়ে দিয়ে তাদের জন্য বার্গার ও কফি আনতে বলেন।

ড্রাইভার ফাস্টফুডের দোকানের দিকে গেলে সেকান্দার ওই নারী সাংবাদিকের শরীরে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানি ও যৌন হয়রানি করেন। ওই নারীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসতে চাইলে তখন সেকান্দার ওই নারীকে ছেড়ে দেন এবং কাউকে বিষয়টি জানালে প্রাণনাশের হুমকি দেন।

এরপর ওই নারী সাংবাদিক বিষয়টি তার সহকর্মীদের জানান এবং অফিসের এমডি বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন। রাজধানীর হাতিরঝিল থানার এসআই মবিন আহমেদ ভূঁইয়া মামলাটি তদন্ত করছেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×