শ্রীলংকা থেকে আসা ১১ শ্রমিক শাহজালালে কেন আটক হল?

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৭ এপ্রিল ২০১৯, ০২:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকা থেকে আসা ১১ শ্রমিকের ব্যাপারে কী তথ্য ছিল?
শ্রীলংকা থেকে আসা ১১ শ্রমিক শাহজালালে কেন আটক হল?

ভয়াবহ আত্মঘাতী সিরিজ বোমা হামলার পর শ্রীলংকা থেকে ফিরেছেন ১১ শ্রমিক। শুক্রবার দুপুরে মালিন্দ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে (ওডি ১৬৪) তারা ঢাকায় আসেন। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার পর ইমিগ্রেশন পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। এই শ্রমিকদেরকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি ইউনিটের কার্যালয়ে নেয়ার কথা রয়েছে।

কলম্বোর উপশহর এলাকায় ইনশাদ ইব্রাহীমের তামা কারখানায় কাজ করতেন ওই বাংলাদেশি শ্রমিকরা। ওই কারখানার মালিক আÍঘাতী বোমা হামলায় জড়িত। ওই কারখানাতেই আÍঘাতী হামলায় ব্যবহৃত বোমাগুলো তৈরি হয়েছিল বলে শ্রীলঙ্কার পুলিশের বরাত দিয়ে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

ঢাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি সূত্র জানায়, ওই কারখানায় যারা কর্মরত ছিলেন, তারা কেউ বোমা হামলা বা সন্ত্রাসবাদের বিষয়ে কোনো তথ্য জানেন কিনা, সেজন্য তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কলম্বোয় বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে এ বিষয়ে তথ্য পাওয়ার পর ঢাকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যরা শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিমানবন্দরে অবস্থান নেন।

বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন এলাকাতেই বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা তাদেরকে দিনভর জিজ্ঞাসাবাদ করেন। শ্রীলঙ্কা থেকে ফেরত আসা শ্রমিকদের সবার বাড়ি টাঙ্গাইলে জানা গেলেও তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

এর আগে বৃহস্পতিবার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের অনলাইন প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ওই কারখানার অন্তত ৪০ বাংলাদেশি শ্রমিক দেশে ফেরার জন্য দূতাবাসে যোগাযোগ করেছে। কারখানাটিতে মোট ৬০ কর্মী ছিল। এদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ পদগুলোতে থাকা সবাই শ্রীলংকার নাগরিক। বাংলাদেশিরা শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। কারখানার উচ্চপদস্থ কয়েক কর্মীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে শ্রীলংকার পুলিশ।

ইনশাদের কারখানার কাছেই রয়েছে একটি বড় স্থাপনা। এর মধ্যে রয়েছে একটি গোডাউন। এর মালিকও ইব্রাহিম পরিবার। এটি বন্ধ।

ঘটনাপ্রবাহ : শ্রীলংকায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ হামলা

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×