কে এই তাহেরী?

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

তাহেরী।
তাহেরী।

বর্তমান সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাহেরী নামের এক বিতর্কিত বক্তার ওয়াজের বিভিন্ন ক্লিপস ভাইরাল হয়েছে। তাকে নিয়ে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা ও সমালোচনা।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, দাওয়াতে ঈমানী বাংলাদেশ নামের একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুফতি মুহম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত তাহেরী।

নরসিংদীর রায়পুরার মাস্তানগঞ্জ নামক একটি মহল্লায় খাজা বাবার দরবার নাম দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে একটি আস্তানা গড়ে তুলেছেন তাহেরী।

তাকে নিয়ে রয়েছে পাঠকের নানা কৌতূহল। এ নিয়ে যুগান্তরের পক্ষ থেকে তাহেরীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। টেলিফোনে দেয়া ওই সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন তার নানা মতামত।

কে এই তাহেরী?

যুগান্তরকে তাহেরী জানান, তার গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার চাপাইর গ্রাম। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা থেকে দাখিল ও আলিম পাস করেন।এরপর তিনি রাজধানীর মোহাম্মদপুর কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া কামিল মাদ্রাসা থেকে ফাজিল ও কামিল পাস করেন।

তার বাবার নাম মাওলানা নজিবউদ্দিন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার একজন আরবি শিক্ষক।আর মা মোহছেনা বেগম একজন গৃহীণি।

পারিবারিক জীবনে তাহেরী দুই সন্তানের জনক। তার ৩ মাস বয়সী ছেলে ও ৫ বছর বয়সী একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। ছেলের নাম তাওফিক রেজা ও মেয়ের নাম তাবাসসুম। সন্তানদের তিনি হাফেজ বানাতে চান ।

বর্তমান সময়ে ওয়াজ-মাহফিলে কী ধরনের আলোচনার প্রতি বক্তাদের গুরুত্ব দেয়া উচিত? এমন প্রশ্নের জবাবে তাহেরী যুগান্তরকে বলেন, ধর্মের প্রতি মানুষের ভালোবাসা, আল্লাহকে বিশ্বাস, পরকালে বিশ্বাস এ সব বিষয়ে জানানো জরুরি।

আপনার ওয়াজ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের ট্রল হচ্ছে- এ ব্যাপারে আপনার বক্তব্য কী? এমন প্রশ্নের জবাবে তাহেরী বলেন, আমি একজন মানুষ। আমি সব সময় ধর্মীয় মূল্যবোধের ওপর গুরুত্ব দিয়ে ওয়াজ করে থাকি।

তিনি বলেন, মানুষ মাত্রই ভুল। বিভিন্ন সময়ে আবেগের বসে অনেক কথাই বলে থাকি। কিছু মানুষ এ সব বক্তব্যকে বিকৃতি করে ভাইরাল করে। আমি ওয়াজে এমন কিছু বলি না যা কোরআন ও হাদিসের জন্য সাংঘর্ষিক।

তাহেরী আরও বলেন, ১৭ বছর ধরে ওয়াজ করি। এ ধরনের সমস্যা কখনও হয়নি। আমি বক্তব্যের মধ্য দিয়ে শ্রোতা ও বক্তার মধ্যে সম্পর্ক তৈরি করি।আমি কোরআন ও হাদিসের সাংঘার্ষিক কোনো কিছু বলি না।

বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে আপনার বক্তব্যকে অশ্লীল উল্লেখ করে একজন আইনজীবী মামলা করেছেন-এ বিষয়ে আপনার বক্তব্য কী? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ মামলা হয়েছে ফেসবুকে দেখেছি। আইনের জবাব আইনের মাধ্যমে দেব’।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×