‘বাংলাদেশিদের ভারতে আসার চেয়ে সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি যাওয়া উচিত’

  যুগান্তর ডেস্ক ২২ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:১১ | অনলাইন সংস্করণ

‘বাংলাদেশিদের ভারতে আসার চেয়ে সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি যাওয়া উচিত’
ছবি: দ্য প্রিন্ট

বাংলাদেশিদের ভারতে যাওয়ার চেয়ে সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি যাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশের বিদায়ী হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী।

মঙ্গলবার নিজের বিদায়ী ভাষণে মোয়াজ্জেম আলী এসব কথা বলেন। ভারতের গণমাধ্যম দ্য হিন্দু ও দ্য প্রিন্টের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

মোয়াজ্জেম আলী মনে করেন, বাংলাদেশিদের এমন দেশে অভিবাসন করা উচিত যেখানে মাথাপিছু আয় বেশি। তার মতে, ভারতের জনগণের মাথাপিছু আয়ও খুব বেশি না।

‘বাংলাদেশ থেকে বহু অবৈধ অভিবাসী উত্তর-পূর্ব ভারতে ঢুকছে বলে দেশটিতে অনেক সমালোচনা রয়েছে। কিন্তু আমি যদি বলি, আমাদের কোনো লোক ভারতে আসার চেয়ে সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি যাওয়া উচিত,’-যোগ করেন এই বাংলাদেশি কূটনীতিক।

তার মতে, বাংলাদেশের নাগরিকদের এমন কোনো দেশে যাওয়া উচিত, যেখানে গেলে তারা বেশি আয় করতে পারবেন। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ভারতের মাথাপিছু আয় খুব বেশি না।এ ছাড়া অর্থনৈতিকভাবে ভারতের চেয়ে বাংলাদেশের পদক্ষেপ জোরালো বলে মনে করেন তিনি।

এশিয়ান উন্নয়ন ব্যাংকের চলতি বছরের অক্টোবরের প্রতিবেদন বলছে, ২০১৯ সালে বাংলাদেশের সংশোধিত জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ থেকে ৮ দশমিক ১ শতাংশ। যেখানে ভারতের ৭ দশমিক ২ শতাংশ থেকে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ।

বাংলাদেশ উগ্রবাদের হুমকির মুখোমুখি দাবি করেন তিনি বলেন, ১৯৭১ সালের চেতনা ও ধর্মনিরপেক্ষতাবাদের ভিত্তি মজবুত করতে ভারতের সমর্থন দরকার বাংলাদেশের।

‘সাম্প্রতিক বাবরি মসজিদ মামলার রায় ও কাশ্মীরের বিশেষ স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা বাতিলের মতো ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়াদিতে মন্তব্য করেনি বাংলাদেশ। এ ছাড়া সমাজে উগ্রবাদ ও মৌলবাদের উত্থান নিয়েও সজাগ রয়েছি আমরা।’

তিনি বলেন, ভারতের অভ্যন্তরীণ ঘটনাবলিতে মন্তব্য করা থেকে আমরা বিরত রয়েছি। এ পর্যন্ত ধর্মনিরপেক্ষ ও প্রগতিশীল দলগুলো বাংলাদেশে জয়ী হয়েছে। কাজেই এভাবে আগামীতে এই মন্তব্য না করার ধারা বহাল থাকবে। কিন্তু এতে আপনাদেরও সহায়তা করতে হবে।

বাবরি মসজিদ মামলার রায় নিয়ে ঢাকায় ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে দাবি করে তাকে প্রশ্ন করা হলে জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ভারতের গত লোকসভা নির্বাচনের আগে ক্ষমতাসীন বিজেপিপ্রধান ও বর্তমানে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাংলাদেশিদের উইপোকা বলে আখ্যায়িত করেন। পশ্চিমবঙ্গেও তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা ব্যানার্জিকে কোণঠাসা করতে গিয়ে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটেছে।

আগের বছরে ভারতে ২৮ লাখ পর্যটক পাঠিয়েছে বাংলাদেশ জানিয়ে হাইকমিশনার মোয়াজ্জেম বলেন, অতিরিক্ত সময় এখানে থাকা কিংবা ভারতীয় ভিসার শর্ত লঙ্ঘনকারী প্রতিটি নাগরিককে খুঁজে বের করার কার্যক্রম রয়েছে।

চেন্নাইতে অনেক বেশি বাংলাদেশি রোগী চিকিৎসা নিতে আসায় সেখানে ২০২০ সালে একটি নতুন কূটনৈতিক মিশন খোলার ঘোষণা দেন তিনি।

ভারতের নির্বাচনী মৌসুমে বাংলাদেশের অবৈধ অভিবাসীর ইস্যুটি ব্যবহার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×