ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী আর নেই
jugantor
ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী আর নেই

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০২ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:৩৩:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সংসদ সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী আর নেই
জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী। ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সাবেক কৌঁসুলি ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী (৪৯) আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)। 

চার দিন লাইফসাপোর্টে থাকার পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) তিনি মারা যান।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া দৈনিক যুগান্তরকে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৪৯ বছর। বাপ্পীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এছাড়াও অ্যাডভোকেট বাপ্পির মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের।

ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী ছাত্রাবস্থা থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

এর আগে শ্বাসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হলে গত শনিবার বাপ্পীকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে লাইফসাপোর্টে রাখা হয়। 

তিনি ১৯৭০ সালের ৩১ ডিসেম্বর নড়াইলে জন্মগ্রহণ করেন। পেশায় আইনজীবী ফজিলাতুন্নেসা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত। 

তিনি সুপ্রিমকোর্টে অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্বে ছিলেন। নবম ও দশম সংসদে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী আর নেই

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০২ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সংসদ সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী আর নেই
জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী। ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সাবেক কৌঁসুলি ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সদস্যফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী (৪৯) আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)।

চার দিন লাইফসাপোর্টে থাকার পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) তিনি মারা যান।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া দৈনিক যুগান্তরকে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৪৯ বছর। বাপ্পীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এছাড়াও অ্যাডভোকেট বাপ্পির মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের।

ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী ছাত্রাবস্থা থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

এর আগে শ্বাসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হলে গত শনিবার বাপ্পীকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে লাইফসাপোর্টে রাখা হয়।

তিনি ১৯৭০ সালের ৩১ ডিসেম্বর নড়াইলে জন্মগ্রহণ করেন। পেশায় আইনজীবী ফজিলাতুন্নেসা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত।

তিনি সুপ্রিমকোর্টে অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্বে ছিলেন। নবম ও দশম সংসদে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।