করোনা প্রতিরোধে তিনটি শক্তিশালী কমিটি হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
jugantor
করোনা প্রতিরোধে তিনটি শক্তিশালী কমিটি হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৪ মার্চ ২০২০, ২৩:৫৩:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

নিপসমের পুনঃসজ্জিত অডিটোরিয়াম ও নবনির্মিত ব্যায়ামাগার উদ্বোধনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি বলেছেন, করোনা ভাইরাস বর্তমানে বিশ্বের ৭০টিরও বেশি দেশে প্রবেশ করেছে। আমাদের দেশেও এই ভাইরাসটি চলে আসতে পারে। যদি ভাইরাসটি চলেও আসে তার জন্য স্বাস্থ্যখাতের সব ধরনের প্রস্তুতি রাখা হয়েছে। দেশের সব বন্দরে মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ডাক্তার-নার্সদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রস্তুত রাখা, সার্বক্ষণিক হটলাইন খোলা রাখার ব্যাবস্থার পাশাপাশি দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা এবং আন্তঃমন্ত্রণালয়ভিত্তিক তিনটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করে দেয়া হয়েছে।

বুধবার বিকালে রাজধানীর মহাখালীর নিপসমের পুনঃসজ্জিত অডিটোরিয়াম ও নবনির্মিত ব্যায়ামাগারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা,জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক ও আন্তঃ মন্ত্রণালয়ের ক্ষেত্রে আমার (স্বাস্থ্যমন্ত্রী) নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্র সচিবসহ এডিবি, বিশ্ব ব্যাংক, ইউনিসেফ, ইউএসএইডসহ ৩১ সদস্যবিশিষ্ট তিনটি গুরুত্বপূর্ণ কমিটি করে দেয়া হয়েছে।সু তরাং দেশে কোন কারণে করোনাভাইরাস চলে এলেও তা আশংকার কারণ হতে পারবে না।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাচিপের সভাপতি ডা. ইকবাল আর্সেনাল, সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আব্দুল আজিজ। অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য রাখেন নিপসমের পরিচালক ডা. বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ।

করোনা প্রতিরোধে তিনটি শক্তিশালী কমিটি হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৪ মার্চ ২০২০, ১১:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নিপসমের পুনঃসজ্জিত অডিটোরিয়াম ও নবনির্মিত ব্যায়ামাগার উদ্বোধনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। ছবি: সংগৃহীত
নিপসমের পুনঃসজ্জিত অডিটোরিয়াম ও নবনির্মিত ব্যায়ামাগার উদ্বোধনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি বলেছেন, করোনা ভাইরাস বর্তমানে বিশ্বের ৭০টিরও বেশি দেশে প্রবেশ করেছে। আমাদের দেশেও এই ভাইরাসটি চলে আসতে পারে। যদি ভাইরাসটি চলেও আসে তার জন্য স্বাস্থ্যখাতের সব ধরনের প্রস্তুতি রাখা হয়েছে। দেশের সব বন্দরে মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ডাক্তার-নার্সদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রস্তুত রাখা, সার্বক্ষণিক হটলাইন খোলা রাখার ব্যাবস্থার পাশাপাশি দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা এবং আন্তঃমন্ত্রণালয়ভিত্তিক তিনটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করে দেয়া হয়েছে। 

বুধবার বিকালে রাজধানীর মহাখালীর নিপসমের পুনঃসজ্জিত অডিটোরিয়াম ও নবনির্মিত ব্যায়ামাগারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা,জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক ও আন্তঃ মন্ত্রণালয়ের ক্ষেত্রে আমার (স্বাস্থ্যমন্ত্রী) নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্র সচিবসহ এডিবি, বিশ্ব ব্যাংক, ইউনিসেফ, ইউএসএইডসহ ৩১ সদস্যবিশিষ্ট তিনটি গুরুত্বপূর্ণ কমিটি করে দেয়া হয়েছে।সু তরাং দেশে কোন কারণে করোনাভাইরাস চলে এলেও তা আশংকার কারণ হতে পারবে না।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাচিপের সভাপতি ডা. ইকবাল আর্সেনাল, সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আব্দুল আজিজ। অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য রাখেন নিপসমের পরিচালক ডা. বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন