প্রধানমন্ত্রী আরও কাজ করতে চান
jugantor
প্রধানমন্ত্রী আরও কাজ করতে চান

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১১ নভেম্বর ২০২১, ২০:১৩:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিগত সময়ে অন্যরা যতটা কাজ করেছে তার চেয়ে বর্তমান সরকার অনেক বেশি করেছে উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী আরও কাজ করতে চান।

‘সুন্দরবন একসময় কক্সবাজার পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। অযন্ত ও পরিকল্পনার অভাবে এখন অনেক ছোট হয়ে গেছে। আমাদের সরকারপ্রধানের আগ্রহ সর্বব্যাপী। তিনি সবকিছু নিয়ে মাথা ঘামান। আমরা আশ্বস্ত করতে চাই, সমুদ্র অর্থনীতি ও পরিবেশ নিয়ে সেভ আওয়ার সিসহ বিভিন্ন সংগঠন যে আগ্রহ দেখিয়েছে আমরা সেটি বাস্তবায়নে অনেক আগ্রহী। সমুদ্র অর্থনীতি নিয়ে আমরা অনেক কাজ করব। সাগর নিয়ে বেসরকারি সংগঠনগুলো এগিয়ে আসলে সরকার সহযোগিতা করতে চায়।’

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনিএসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গোপসাগর নিয়ে আলাদা মন্ত্রণালয় করলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে না। আমাদের দরকার অনেক বেশি কাজ। বিশেষ করে, সমুদ্র অর্থনীতি নিয়ে গবেষণা বাড়ানো প্রয়োজন। গবেষণা বাড়ানো গেলে বাংলাদেশ বঙ্গোপসাগর থেকে অনেক সম্পদ অর্জন করতে সক্ষম হবে।

বাংলাদেশে সমূদ্র পরিবেশ নিয়ে কাজ করা সংগঠন সেভ আওয়ার সি আয়োজিত ‘নীল অর্থনীতি: সম্ভাবনা এবং চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক গোলেটেবিল বৈঠকের পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল ফাজিতাস এবং লুলু শপ।

সেভ আওয়ার সি’র সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ আনোয়ারুল হকের সঞ্চালনায় গোল টেবিলে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশেনোগ্রাফি ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ মোসলেম উদ্দীন মুন্না।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জসীম উদ্দিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সন্তোস কুমার দেব এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কেএম আজম চৌধুরী।

আরও বক্তব্য দেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিটাইম ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড স্ট্যাটিজিক স্টাডিস ডিপার্টমেন্টের প্রধান কমোডর ওয়াহিদ হাসান কুতুবুদ্দিন (এনডিসি), বাংলাদেশ বন অধিদপ্তরের সহকারী প্রধান বন সংরক্ষক ড. মরিয়ম আকতার, বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের উপ-পরিচালক (অপারেশন) এম নূর-উজ জামান।

প্রধানমন্ত্রী আরও কাজ করতে চান

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১১ নভেম্বর ২০২১, ০৮:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিগত সময়ে অন্যরা যতটা কাজ করেছে তার চেয়ে বর্তমান সরকার অনেক বেশি করেছে উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী আরও কাজ করতে চান।

‘সুন্দরবন একসময় কক্সবাজার পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। অযন্ত ও পরিকল্পনার অভাবে এখন অনেক ছোট হয়ে গেছে। আমাদের সরকারপ্রধানের আগ্রহ সর্বব্যাপী। তিনি সবকিছু নিয়ে মাথা ঘামান। আমরা আশ্বস্ত করতে চাই, সমুদ্র অর্থনীতি ও পরিবেশ নিয়ে সেভ আওয়ার সিসহ বিভিন্ন সংগঠন যে আগ্রহ দেখিয়েছে আমরা সেটি বাস্তবায়নে অনেক আগ্রহী। সমুদ্র অর্থনীতি নিয়ে আমরা অনেক কাজ করব। সাগর নিয়ে বেসরকারি সংগঠনগুলো এগিয়ে আসলে সরকার সহযোগিতা করতে চায়।’

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গোপসাগর নিয়ে আলাদা মন্ত্রণালয় করলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে না। আমাদের দরকার অনেক বেশি কাজ। বিশেষ করে, সমুদ্র অর্থনীতি নিয়ে গবেষণা বাড়ানো প্রয়োজন। গবেষণা বাড়ানো গেলে বাংলাদেশ বঙ্গোপসাগর থেকে অনেক সম্পদ অর্জন করতে সক্ষম হবে। 

বাংলাদেশে সমূদ্র পরিবেশ নিয়ে কাজ করা সংগঠন সেভ আওয়ার সি আয়োজিত ‘নীল অর্থনীতি: সম্ভাবনা এবং চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক গোলেটেবিল বৈঠকের পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল ফাজিতাস এবং লুলু শপ।

সেভ আওয়ার সি’র সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ আনোয়ারুল হকের সঞ্চালনায় গোল টেবিলে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশেনোগ্রাফি ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ মোসলেম উদ্দীন মুন্না। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জসীম উদ্দিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সন্তোস কুমার দেব এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কেএম আজম চৌধুরী। 

আরও বক্তব্য দেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিটাইম ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড স্ট্যাটিজিক স্টাডিস ডিপার্টমেন্টের প্রধান কমোডর ওয়াহিদ হাসান কুতুবুদ্দিন (এনডিসি), বাংলাদেশ বন অধিদপ্তরের সহকারী প্রধান বন সংরক্ষক ড. মরিয়ম আকতার, বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের  উপ-পরিচালক (অপারেশন) এম নূর-উজ জামান। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন