দুর্নীতির মহাদুর্যোগে সরকারের পতন অবশ্যম্ভাবী: ব্যারিস্টার মওদুদ
jugantor
দুর্নীতির মহাদুর্যোগে সরকারের পতন অবশ্যম্ভাবী: ব্যারিস্টার মওদুদ

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:৩৪:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্নীতির মহাদুর্যোগে সরকারের পতন অবশ্যম্ভাবী উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, দুর্নীতির মহাদুর্যোগে আছে আওয়ামী লীগ সরকার। মামলা-হামলা, অত্যাচার নির্যাতন করে বেশি দিন ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না। এ সরকারের পতনও অবশ্যম্ভাবী।

বৃহস্পতিবার সকালে তার নির্বাচনী এলাকার মানিকপুরের গ্রামের বাড়িতে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি, পৌরসভা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, কৃষকদল ও দলীয় সহযোগী সংগঠনের এক যৌথসভা চলাকালে টেলি কনফারেন্সে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, দেশে যে দুর্যোগ চলছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, সর্বত্র দুর্নীতির মহা উৎসব চলছে এতে জনগণ কঠিন সময় পার করছে। এ সরকার শেষ সরকার নয়, লাগামহীন দুর্নীতির কারণে এ সরকারের পতনও সময়ের ব্যাপার। এজন্য দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের পাশে থেকে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

যারা দলের মধ্যে বিভেদ ও বিদ্বেষ সৃষ্টি করে তাদের বিষয়ে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এদের শোধরানোর সময় দেয়া হল। এরপরও তারা যদি দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীরা সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা নিয়ে এ ধরনের অপকর্ম করে যাচ্ছে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র কামাল উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান রিপনের সঞ্চালনায় যৌথসভায় বক্তব্য রাখেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি নুরুল আমিন নুরু চেয়ারম্যান, আবদুল মতিন তোতা চেয়ারম্যান, যুগ্ম-সম্পাদক আবদুল হাই, সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত হোসেন ছগির, প্রচার সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, বসুরহাট পৌরসভা বিএনপির সভাপতি আবদুল মতিন লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক, উপজেলা যুবদলের সভাপতি ফজলুল কবির ফয়সল, সাধারণ সম্পাদক জাহেদুর রহমান রাজন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আতোয়ার হোসেন পাভেল, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক আরিফ, মুছাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি হাফেজ আবদুল হক শাহজাহান, রামপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল কাশেম বুলবুল মেম্বার, চরকাঁকড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোশারেফ হোসেন বাহার প্রমুখ।

দুর্নীতির মহাদুর্যোগে সরকারের পতন অবশ্যম্ভাবী: ব্যারিস্টার মওদুদ

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্নীতির মহাদুর্যোগে সরকারের পতন অবশ্যম্ভাবী উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, দুর্নীতির মহাদুর্যোগে আছে আওয়ামী লীগ সরকার। মামলা-হামলা, অত্যাচার নির্যাতন করে বেশি দিন ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না। এ সরকারের পতনও অবশ্যম্ভাবী।

বৃহস্পতিবার সকালে তার নির্বাচনী এলাকার মানিকপুরের গ্রামের বাড়িতে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি, পৌরসভা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, কৃষকদল ও দলীয় সহযোগী সংগঠনের এক যৌথসভা চলাকালে টেলি কনফারেন্সে তিনি এসব কথা বলেন। 

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, দেশে যে দুর্যোগ চলছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, সর্বত্র দুর্নীতির মহা উৎসব চলছে এতে জনগণ কঠিন সময় পার করছে। এ সরকার শেষ সরকার নয়, লাগামহীন দুর্নীতির কারণে এ সরকারের পতনও সময়ের ব্যাপার। এজন্য দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের পাশে থেকে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। 

যারা দলের মধ্যে বিভেদ ও বিদ্বেষ সৃষ্টি করে তাদের বিষয়ে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এদের শোধরানোর সময় দেয়া হল। এরপরও তারা যদি দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীরা সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা নিয়ে এ ধরনের অপকর্ম করে যাচ্ছে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র কামাল উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান রিপনের সঞ্চালনায় যৌথসভায় বক্তব্য রাখেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি নুরুল আমিন নুরু চেয়ারম্যান, আবদুল মতিন তোতা চেয়ারম্যান, যুগ্ম-সম্পাদক আবদুল হাই, সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত হোসেন ছগির, প্রচার সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, বসুরহাট পৌরসভা বিএনপির সভাপতি আবদুল মতিন লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক, উপজেলা যুবদলের সভাপতি ফজলুল কবির ফয়সল, সাধারণ সম্পাদক জাহেদুর রহমান রাজন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আতোয়ার হোসেন পাভেল, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক আরিফ, মুছাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি হাফেজ আবদুল হক শাহজাহান, রামপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল কাশেম বুলবুল মেম্বার, চরকাঁকড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোশারেফ হোসেন বাহার প্রমুখ।