ই-কমার্সে প্রতারণার শিকার গ্রাহকরা প্রতিকার পাচ্ছে না: জি এম কাদের
jugantor
ই-কমার্সে প্রতারণার শিকার গ্রাহকরা প্রতিকার পাচ্ছে না: জি এম কাদের

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ নভেম্বর ২০২১, ১৮:২৬:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

ই-কমার্সে প্রতারণার শিকার গ্রাহকরা প্রতিকার পাচ্ছে না: জি এম কাদের

ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতারণার শিকার লাখো গ্রাহককে অর্থ ফেরত দিতে সরকারের কোনো উদ্যোগ ‘দৃশ্যমান হচ্ছে না’ বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এই মন্তব্য করেন।

জি এম কাদের বলেন, ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানগুলোর ধারাবাহিক প্রতারণার শিকার লাখ লাখ গ্রাহক প্রতিকার পাচ্ছে না। স্বল্প আয়ের মানুষেররা প্রতারিত হয়ে ফিরে পাচ্ছে না তাদের মূলধন। আবার বন্ধ হচ্ছে না ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতারণার ফাঁদ। প্রতারিতদের অর্থ ফেরত পেতে সরকারের কোন উদ্যোগ আছে বলে দৃশ্যমান হচ্ছে না।

তিনি বলেন, কয়েক বছর ধরে ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানগুলো চটকদার বিজ্ঞাপন আর লোভনীয় অফার দিয়ে আকৃষ্ট করছে লাখ লাখ গ্রাহক। তারপর বিভিন্ন পণ্য সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আগাম টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যাচ্ছে। অপেক্ষাকৃত নিম্ন আয়ের মানুষই ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতারণার শিকার হচ্ছে বেশি। গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদনে জানা গেছে, ইতোমধ্যেই কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান হাজার-হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে। কিন্তু সরকারের কার্যকর কোনো পদক্ষেপ না থাকায় প্রতারণার এই ধারা বন্ধ হচ্ছে না। এতে প্রতারিতের সংখ্যাও বেড়ে যাচ্ছে। মূলধন হারিয়ে পথে বসেছে অনেক ব্যবসায়ী।

বিবৃতিতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ গ্রাহকদের তালিকা করে তাদের প্রাপ্য ফিরিয়ে দিতে সরকারিভাবেই দায়িত্ব নিতে হবে। প্রতারকদের বিরুদ্ধে নিতে হবে আইনগত ব্যবস্থা। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় আইন প্রনয়ণ করে প্রতারকদের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে সরকারিভাবে প্রশাসক নিয়োগ করতে হবে।

ই-কমার্সে প্রতারণার শিকার গ্রাহকরা প্রতিকার পাচ্ছে না: জি এম কাদের

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ই-কমার্সে প্রতারণার শিকার গ্রাহকরা প্রতিকার পাচ্ছে না: জি এম কাদের
ফাইল ছবি

ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতারণার শিকার লাখো গ্রাহককে অর্থ ফেরত দিতে সরকারের কোনো উদ্যোগ ‘দৃশ্যমান হচ্ছে না’ বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এই মন্তব্য করেন।

জি এম কাদের বলেন, ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানগুলোর ধারাবাহিক প্রতারণার শিকার লাখ লাখ গ্রাহক প্রতিকার পাচ্ছে না। স্বল্প আয়ের মানুষেররা প্রতারিত হয়ে ফিরে পাচ্ছে না তাদের মূলধন। আবার বন্ধ হচ্ছে না ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতারণার ফাঁদ। প্রতারিতদের অর্থ ফেরত পেতে সরকারের কোন উদ্যোগ আছে বলে দৃশ্যমান হচ্ছে না।

তিনি বলেন, কয়েক বছর ধরে ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানগুলো চটকদার বিজ্ঞাপন আর লোভনীয় অফার দিয়ে আকৃষ্ট করছে লাখ লাখ গ্রাহক। তারপর বিভিন্ন পণ্য সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আগাম টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যাচ্ছে। অপেক্ষাকৃত নিম্ন আয়ের মানুষই ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতারণার শিকার হচ্ছে বেশি। গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদনে জানা গেছে, ইতোমধ্যেই কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান হাজার-হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে। কিন্তু সরকারের কার্যকর কোনো পদক্ষেপ না থাকায় প্রতারণার এই ধারা বন্ধ হচ্ছে না। এতে প্রতারিতের সংখ্যাও বেড়ে যাচ্ছে। মূলধন হারিয়ে পথে বসেছে অনেক ব্যবসায়ী।

বিবৃতিতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ গ্রাহকদের তালিকা করে তাদের প্রাপ্য ফিরিয়ে দিতে সরকারিভাবেই দায়িত্ব নিতে হবে। প্রতারকদের বিরুদ্ধে নিতে হবে আইনগত ব্যবস্থা। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় আইন প্রনয়ণ করে প্রতারকদের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে সরকারিভাবে প্রশাসক নিয়োগ করতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন