মালিঙ্গা আগুনের পর সুপার ওভারে হারল শ্রীলংকা

  স্পোর্টস ডেস্ক ২০ মার্চ ২০১৯, ১০:২২ | অনলাইন সংস্করণ

মালিঙ্গা,

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকাকে সুপার ওভারে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। মঙ্গলবার কেপটাউনে প্রথমে ব্যাট করে ১৩৪ রান সংগ্রহ করে লংকানরা। জবাবে লাসিথ মালিঙ্গার আঁটসাঁট বোলিংয়ে স্কোর বোর্ডে ১৩৪ রান তুলতে সমর্থ হয় প্রোটিয়ারা।

এরপর নিষ্পত্তির জন্য ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। এতে দক্ষিণ আফ্রিকার ১৫ রানের বিপরীতে মাত্র ৫ রান করতে সক্ষম হয় শ্রীলংকা।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় শ্রীলংকা। নিরোশান ডিকভেলা ও কুশল মেন্ডিসকে হারিয়ে ফেলে সফরকারীরা। ভালো করার আভাস দিলেও ১৬ রানের বেশি করতে পারেননি অভিস্কা ফার্নান্দো। এরপর প্রতিরোধ গড়ে তোলেন কামিন্দু মেন্ডিস। একপ্রান্তে নিয়মিত বিরতিতে ব্যাটসম্যানরা আসা-যাওয়া করলেও তিনি দেখে-শুনে খেলে যান। শেষ পর্যন্ত ২৯ বলে ৪১ রানের সংগ্রামী ইনিংস খেলে দলকে এনে দেন লড়াকু পূঁজি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৩৪। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে আন্দিলে ফিকোয়াও শিকার করেন ৩ উইকেট।

জবাবে দলীয় ৫২ রানের মধ্যে রিজা হ্যান্ডরিক্স, কুইন্টন ডি কক ও অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসিসকে হারিয়ে চাপে পড়ে স্বাগতিকরা। এরপর হি ভ্যান ডার ডুসেন ও ডেভিড মিলার বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠেন। তাতে ধীরে ধীরে এগোতে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে ডুসেন ৩০ বলে ৩৪ ও মিলার ২৩ বলে ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ফিরলে ফের কোণঠাসা হয়ে পড়ে প্রোটিয়ারা। পরে আর কারও ব্যাট চওড়া হয়নি।

ডু প্লেসিস বাহিনীর লাগাম টেনে ধরার নেপথ্য নায়ক লংকান অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা। বল হাতে রীতিমতো আগুন ঝরিয়েছেন তিনি। শিকার করেন মাত্র ২ উইকেট। তবে ৪ ওভারে মাত্র ১১ রান দিয়ে প্রতিপক্ষের রানের গতি শ্লথ রাখেন তিনি। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৩৪ রান জোগাড় করতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×