মোসাদ্দেকের ওভারে ছয় ছক্কা হাঁকানোর পরিকল্পনা ছিল রোহিতের

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ২১:১৯:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় তারকা ওপেনার রোহিত শর্মা বলেছেন, যখন আমি পরপর তিনটি ছয় মারলাম, তখন ছয়টি বড় শট খেলার চেষ্টা করি। কিন্তু চতুর্থ শট মিস হওয়ার পর আমি সিদ্ধান্ত নেই যে, সিঙ্গেল নেব।

দিল্লিতে পরাজয়ের পর সিরিজ বাঁচাতে বৃহস্পতিবার রাজকোটে মরিয়া হয়ে খেলে ভারত। বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫৪ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান রোহিত শর্মা।

ইনিংসের ১০ম ওভারে প্রথমবার বোলিংয়ে আসা বাংলাদেশ দলের পার্টটাইম স্পিনার মোসাদ্দেক হোসেনকেমিডউইকেট, স্কয়ার লেগ ও লং অনের ওপর দিয়ে পরপর তিনটি ছক্কা হাঁকান রোহিত শর্মা।

ওইওভারে সর্বোচ্চ ২১ রান খরচ করেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এরপর তাকে আর বল করতে দেননি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

এদিন রোহিত শর্মা৪৩ বলে ছয় চার ও ৬টি ছক্কায় ৮৫ রানের ইনিংসে খেলে দলকে জয়ের দুয়ারে নিয়ে যান। রোহিতেরঅনবদ্য ইনিংসে ভর করেবাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৮ উইকেটেরজয়ে ১-১ সমতায় ফেরেভারত।

খেলা শেষে ভারতীয় অনিয়মিত অধিনায়ক রোহিত শর্মা দলের তারকা লেগ স্পিনার যজুবেন্দ্র চাহালের এক প্রশ্নেরজবাবে বলেন, বড় ছয় মারতে বড় চেহারা বা পেশীর প্রয়োজন নেই। চাহাল তুমিও ছয় হাঁকাতে পার।

ভারতের অন্যতম সেরা এ ওপেনার আরও বলেন,ছয় মারতে গেলে শুধু শক্তিই নয়, টাইমিংটাও ভালো করতে হয়। ব্যাটের মাঝখান দিয়ে খেলতে হয় এবং মাথা সোজা রাখতে হয়। তাই একটা ছক্কা হাঁকাতে গেল অনেকগুলি বিষয় একসঙ্গে সাজাতে হয়।

বাংলাদেশ দলের বিপক্ষেরাজকোটে ৬টি ছক্কাহাঁকিয়েভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে টি-টোয়েন্টিতেসবচেয়ে বেশি ছয় হাঁকানোর রেকর্ড গড়েন রোহিত।

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ভারত সফর-২০১৯

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত