যে কারণে অস্ট্রেলিয়ায় গোলাপি বলে খেলতে রাজি হননি কোহলি

  স্পোর্টস ডেস্ক ২২ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৩১:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

গোলাপি বল হাতে নিয়েই বাংলাদেশকে উড়িয়ে দিচ্ছেন ভারতীয় পেসাররা। প্রথম ৬ ওভার কোনোমতে মোকাবেলা করলেও এরপরই ধস নামে বাংলাদেশ ইনিংসে।

উমেষ, ইশান্ত আর সামির সর্পিল ইনসুইং-আউটসুইংয়ে দিশেহারা হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন ৬ টাইগার। অথচ পাঁচ দিনের টেস্টে শেষ হয়েছে মাত্র প্রথম সেশন।


গোলাপি বলে ভারত দলের এমন সাফল্য ইর্ষনীয়। অথচ গত বছর অস্ট্রেলিয়ায় গোলাপি বলে খেলার আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছিল বিরাট কোহলিরা।
২০১৫ সালেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গোলাপি বলের প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলতে আমন্ত্রণ করা হয়েছিল ভারতকে। অস্ট্রেলিয়ার সে আমন্ত্রণে সাড়া দেয়নি বিরাট কোহলিরা।

কেন সেই আমন্ত্রণে সাড়া দেননি শুক্রবার ইডেন টেস্ট মাঠে গড়াবার আগে সে কথা জানালেন কোহলি।

বিরাট কোহলিদের বলেছেন, সফরের দুই-তিনদিন আগে আচমকা ভারতকে দিবারাত্রির টেস্টের প্রস্তাব দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। কোনো রকম প্রস্তুতি ছিল না বলেই সেদিন রাজি হইনি।

অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে না খেলার কারণ জানিয়ে কোহলি আরও বলেন, ‘আমরা গোলাপি বলের ক্রিকেটের স্বাদ পেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সেই সময়ে হঠাৎ করে একটা সফরের আগে সূচিতে একটা গোলাপি বলের টেস্ট যুক্ত হতে পারে না। বিমানের ওঠার দুই দিন আগে, এক সপ্তাহের মধ্যে গোলাপি বলে একটি টেস্ট খেলার কথা বললে তো হবে না। সেদিক থেকে অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তাব আমাদের কাছে যৌক্তিক মনে হয়নি।’

তিনি যোগ করেন, সে সময় গোলাপি বলে অনুশীলন করিনি। প্রথম শ্রেণির কোনো ম্যাচও খেলিনি। হুট করে এ বলে খেলতে বলতেই তো হতে পারে না।

তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে কেন গোলাপি বলে রাজি হলেন সে প্রশ্নে কোহলির স্পষ্ট জবাব, ঘরোয়া কন্ডিশনে গোলাপি বলে টেস্টের অভিজ্ঞতা চেয়েছিলাম। বল কেমন আচরণ করে, ব্যাটে-বল কীভাবে আসে সব বুঝতে নিজেদের কন্ডিশন ছাড়া উপায় নেই।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটি খেলা নিয়ে অনেক ভেবেছি। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও নিয়েছি। আমাদের কয়েকজন সিরিজ শুরুর আগেই গোলাপি বলে অনুশীলন করেছেন। নিজেদের মাঠে এ বিষয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণের সুযোগ পেয়েছি, যা অস্ট্রেলিয়ার সেই আমন্ত্রণে পাইনি।

কোহলির সেসব কথা বোঝাই গেল একেবারে শেষ মুহূর্তে জানানোয় ও নিজেদের প্রস্তুতিতে ঘাটতি থাকায় অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গোলাপি বলে টেস্ট খেলতে সাফ না করে দিয়েছিলেন তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ভারত সফর-২০১৯

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত