আইপিএলে দল কিনছেন গম্ভীর!

  স্পোর্টস ডেস্ক ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৪০:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলে দলের মালিকানা স্বত্ব কিনছেন সাবেক ভারতীয় ওপেনার গৌতম গম্ভীর। যদিও এ নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেননি তিনি। তবে তার ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, শিগগির দিল্লি ক্যাপিটালসের অন্যতম মালিক হতে চলেছেন ক্রিকেটার কাম এ রাজনীতিবিদ।

সবশেষ ভারতের জাতীয় নির্বাচনে দিল্লি থেকে বিজেপি সাংসদ নির্বাচিত হন গম্ভীর। দীর্ঘদিন দেশটির রাজধানীর দলটির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। দিল্লির ডেয়ারডেভিলসের হয়ে বেশ কয়েক বছর দাপটের সঙ্গে খেলেন এ বাঁহাতি ওপেনার।

এর পর কলকাতা নাইট রাইডার্সে যোগ দেন গম্ভীর। তার নেতৃত্বে দুবার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলার দলটি। তবু দিল্লির সঙ্গে তার সম্পর্কের অবনতি ঘটেনি। পরে কলকাতা ছেড়ে ফের দিল্লিতে ভেড়েন তিনি। তবে তেমন সুবিধা করে উঠতে পারেননি স্টাইলিশ ওপেনার। এবার সেই তিনিই দিল্লি ক্যাপিটালসের মালিকানা স্বত্ব কিনতে চলেছেন।

এখন দিল্লি দল চলে দুজনের মালিকানায়। সেটি মূলত চালায় জেএসডব্লু স্পোর্টস এবং জিএমআর গ্রুপ। গেল বছর দলটির ৫০ শতাংশ মালিকানা স্বত্ব কেনে জেএসডব্লু স্পোর্টস। বাকি ৫০ শতাংশ ছিল জিএমআর গ্রুপের। গম্ভীর এই ৫০ শতাংশ শেয়ার কিনতে চলেছেন। কথাবার্তা প্রায় চূড়ান্ত। বাকি আছে শুধু আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের অনুমতি। সেই অনুমতি পেলেই তার নাম ঘোষণা করা হবে।

আসলে গম্ভীরের মালিকানা নির্ভর করছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) ওপর। সৌরভ গাঙ্গুলী অ্যান্ড কোং অনুমতি দিলে তবেই তিনি কিনতে পারবেন দল। কারণ আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল বোর্ডের অধীনে।

গেল বছর জেএসডব্লু ৫০ শতাংশ দলের মালিকানা কেনে ৫৫০ কোটি টাকা দিয়ে। নতুন সংস্থার আগমনে নামের বদল ঘটে। আগে দিল্লি আইপিএল খেলত ডেয়ারডেভিলস নামে। এখন নাম হয়েছে ক্যাপিটালস।

সবশেষ আসরে তৃতীয় স্থান দখল করে দিল্লি। কিন্তু এর আগে লিগ টেবিলের তলানিতে থাকত তারা। জেএসডব্লুর স্পর্শে দলে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটেছে। সৌরভ-পন্টিংকে নিয়ে আসে তারা। এবার ভিড়ছেন গম্ভীর। ক্রিকেটবোদ্ধারা মনে করছেন, তিনি যোগ দিলে প্রতিপক্ষদের কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে সক্ষম হবে দিল্লি।

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত