খেলা নেই, কী করছেন সৌম্যরা?
jugantor
খেলা নেই, কী করছেন সৌম্যরা?

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৮ মার্চ ২০২০, ১১:৪৮:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস আতঙ্ক গ্রাস করেছে গোটা বিশ্ব। মাত্র আড়াই মাসের ব্যবধানে তা মহামারী রূপ নিয়েছে। প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের কারণে থমকে পড়েছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন।

বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনও স্তব্ধ হয়ে পড়েছে। করোনার জেরে ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম আকর্ষণ বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগের (ডিপিএল) দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করা হয়েছে। বুধবার থেকেই তা মাঠে গড়ানোর কথা ছিল।

পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী, ২১-২২ মার্চ টুর্নামেন্টের খেলা রয়েছে। তবে কয়েক দিন বিরতির পর পুনরায় লিগ শুরু হবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

কিন্তু সতর্কতা অবলম্বন করে খেলায় ফিরতে রাজি ক্লাবের হয়ে খেলা ক্রিকেটাররা। করোনার কারণে প্রিমিয়ার লিগে বিরতি পেয়েছেন তারা। তবে এ সময়েও বসে নেই মুশফিক-লিটনরা। ফিটনেস নিয়ে কাজ করছেন সবাই।

বাঁহাতি ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। খেলা স্থগিত হওয়াকে স্বাগতও জানিয়েছেন তিনি। তবে খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে ও খেলতে চান পেস অলরাউন্ডার।

বিরতি পেলেও পুরোপুরি বিশ্রামে যাচ্ছেন না সৌম্যও। মঙ্গলবার তিনি বলেন, খেলা স্থগিত রয়েছে, তবে বসে নেই আমরা। ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি। একেবারে বিশ্রামে চলে যাচ্ছি না।

এবারের লিগে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের হয়ে খেলছেন সৌম্য। প্রথম ম্যাচে প্রাইম ব্যাংকের কাছে হেরে গেছে তার দল। তবে ৪৯ রান করে ফর্ম ধরে রাখার আভাস দেন বিধ্বংসী ওপেনার। খেলা স্থগিত করা সঠিক সিদ্ধান্ত বলেই মনে করেন তিনি।

মিরপুর স্টেডিয়ামে ২৭ বছর বয়সী ক্রিকেটার বলেন, সবার ভালোর জন্যই এটি করা হয়েছে। আশা করি, দেশের মানুষ সুস্থ থাকবেন, আমরাও সুস্থ থাকব। এ ক্ষেত্রে এটিই মুখ্য। সুস্থ থাকলে সামনে অনেক খেলা পাব। এর মধ্যে ফিটনেস বাড়াতে ব্যস্ত থাকব।

শিগগির প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রভাব কেটে যাক, এমনই চাওয়া সৌম্যর। তিনি বলেন, খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে ও ফিরতে চাই আমরা। প্রাণঘাতী ভাইরাস প্রতিরোধে এ সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক আছে। আমি আশাবাদী, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সবাই দ্রুত এ ফাঁড়া কাটিয়ে উঠবে এবং আমরা মাঠে নামতে পারব।

খেলা নেই, কী করছেন সৌম্যরা?

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৮ মার্চ ২০২০, ১১:৪৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস আতঙ্ক গ্রাস করেছে গোটা বিশ্ব। মাত্র আড়াই মাসের ব্যবধানে তা মহামারী রূপ নিয়েছে।  প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের কারণে থমকে পড়েছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন।

বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনও স্তব্ধ হয়ে পড়েছে। করোনার জেরে ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম আকর্ষণ বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগের (ডিপিএল) দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করা হয়েছে। বুধবার থেকেই তা মাঠে গড়ানোর কথা ছিল।

পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী, ২১-২২ মার্চ টুর্নামেন্টের খেলা রয়েছে। তবে কয়েক দিন বিরতির পর পুনরায় লিগ শুরু হবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

কিন্তু সতর্কতা অবলম্বন করে খেলায় ফিরতে রাজি ক্লাবের হয়ে খেলা ক্রিকেটাররা। করোনার কারণে প্রিমিয়ার লিগে বিরতি পেয়েছেন তারা। তবে এ সময়েও বসে নেই মুশফিক-লিটনরা। ফিটনেস নিয়ে কাজ করছেন সবাই।

বাঁহাতি ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। খেলা স্থগিত হওয়াকে স্বাগতও জানিয়েছেন তিনি। তবে খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে ও খেলতে চান পেস অলরাউন্ডার।

বিরতি পেলেও পুরোপুরি বিশ্রামে যাচ্ছেন না সৌম্যও। মঙ্গলবার তিনি বলেন, খেলা স্থগিত রয়েছে, তবে বসে নেই আমরা। ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি। একেবারে বিশ্রামে চলে যাচ্ছি না।

এবারের লিগে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের হয়ে খেলছেন সৌম্য। প্রথম ম্যাচে প্রাইম ব্যাংকের কাছে হেরে গেছে তার দল। তবে ৪৯ রান করে ফর্ম ধরে রাখার আভাস দেন বিধ্বংসী ওপেনার। খেলা স্থগিত করা সঠিক সিদ্ধান্ত বলেই মনে করেন তিনি।

মিরপুর স্টেডিয়ামে ২৭ বছর বয়সী ক্রিকেটার বলেন, সবার ভালোর জন্যই এটি করা হয়েছে। আশা করি, দেশের মানুষ সুস্থ থাকবেন, আমরাও সুস্থ থাকব। এ ক্ষেত্রে এটিই মুখ্য। সুস্থ থাকলে সামনে অনেক খেলা পাব। এর মধ্যে ফিটনেস বাড়াতে ব্যস্ত থাকব।

শিগগির প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রভাব কেটে যাক, এমনই চাওয়া সৌম্যর। তিনি বলেন, খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে ও ফিরতে চাই আমরা। প্রাণঘাতী ভাইরাস প্রতিরোধে এ সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক আছে। আমি আশাবাদী, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সবাই দ্রুত এ ফাঁড়া কাটিয়ে উঠবে এবং আমরা মাঠে নামতে পারব।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ-২০২০