‘আশরাফুলের মতো ক্রিকেট মেধা সাকিব-তামিমেরও নেই’
jugantor
‘আশরাফুলের মতো ক্রিকেট মেধা সাকিব-তামিমেরও নেই’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৫ আগস্ট ২০২০, ২০:৩৪:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফীস বলেছেন, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম এদের কেউই ক্রিকেট মেধার দিক থেকে আশরাফুলের মতো নয়।  

সম্প্রতি এক লাইভ আড্ডায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে শাহরিয়ার নাফীস বলেছেন, আশরাফুলের ব্যাপারে একটা হতাশা আমার সবসময় কাজ করে। এটা ওকেও বলি, ওর সামনে সবাইকেই বলেছি। ওর যে মেধা, ওর যে সামর্থ্য ও দুর্ভাগ্যবশত তা ব্যবহার করতে পারেনি। আশরাফুল যদি তার মেধা কাজে লাগাতে পারত তাহলে বাংলাদেশের যত রেকর্ড সব ওর হওয়া উচিৎ ছিল।

জাতীয় দলের হয়ে ২৪টি টেস্ট, ৭৫টি ওয়ানডে আর ১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাফীস আরও বলেছেন, আশরাফুলের মতো মেধা নিয়ে দেশের ক্রিকেটে এখনও কেউ আসেনি। সাকিব, তামিম, মুশফিক কেউই মেধার দিক থেকে ওর মতো না। তবে আশরাফুল মেধার ব্যবহার ঠিকমত করতে পারেনি।

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। জাতীয় দলের সাবেক এ তারকা ব্যাটসম্যানকে টার্গেট করেই বিপদে ফেলে দেয় বুকিরা। 

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারির কারণে পাঁচ বছর পেশাদার ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন আশরাফুল। এই নিষেধাজ্ঞাই তার গৌরবময় ক্রিকেট ক্যারিয়ার ধংসের মধ্যে ফেলে দেয়। শাস্তি ভোগ শেষে ক্রিকেটে ফিরলেও জাতীয় দলে আর ফেরা হয়নি তার। 

জাতীয় দলের হয়ে ২০০১ সালের সেপ্টেম্বর থেকে সবশেষ ২০১৩ সালের মে পর্যন্ত ৬১টি টেস্ট,১৭৭টি ওয়ানডে আর ২৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন আশরাফুল। 

দেশের হয়ে ২৬১ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৯টি সেঞ্চুরি আর ৩০টি ফিফটির সাহায্যে সংগ্রহ করেছেন ৬ হাজার ৬৫৫ রান। অধিনায়ক হিসেবে ৩৮টি ওয়ানডে, ১৩টি টেস্ট আর ১১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন আশরাফুল।  

‘আশরাফুলের মতো ক্রিকেট মেধা সাকিব-তামিমেরও নেই’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৫ আগস্ট ২০২০, ০৮:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফীস বলেছেন, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম এদের কেউই ক্রিকেট মেধার দিক থেকে আশরাফুলের মতো নয়।

সম্প্রতি এক লাইভ আড্ডায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে শাহরিয়ার নাফীস বলেছেন, আশরাফুলের ব্যাপারে একটা হতাশা আমার সবসময় কাজ করে। এটা ওকেও বলি, ওর সামনে সবাইকেই বলেছি। ওর যে মেধা, ওর যে সামর্থ্য ও দুর্ভাগ্যবশত তা ব্যবহার করতে পারেনি। আশরাফুল যদি তার মেধা কাজে লাগাতে পারত তাহলে বাংলাদেশের যত রেকর্ড সব ওর হওয়া উচিৎ ছিল।

জাতীয় দলের হয়ে ২৪টি টেস্ট, ৭৫টি ওয়ানডে আর ১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাফীস আরও বলেছেন, আশরাফুলের মতো মেধা নিয়ে দেশের ক্রিকেটে এখনও কেউ আসেনি। সাকিব, তামিম, মুশফিক কেউই মেধার দিক থেকে ওর মতো না। তবে আশরাফুল মেধার ব্যবহার ঠিকমত করতে পারেনি।

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। জাতীয় দলের সাবেক এ তারকা ব্যাটসম্যানকে টার্গেট করেই বিপদে ফেলে দেয় বুকিরা।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারির কারণে পাঁচ বছর পেশাদার ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন আশরাফুল। এই নিষেধাজ্ঞাই তার গৌরবময় ক্রিকেট ক্যারিয়ার ধংসের মধ্যে ফেলে দেয়। শাস্তি ভোগ শেষে ক্রিকেটে ফিরলেও জাতীয় দলে আর ফেরা হয়নি তার।

জাতীয় দলের হয়ে ২০০১ সালের সেপ্টেম্বর থেকে সবশেষ ২০১৩ সালের মে পর্যন্ত ৬১টি টেস্ট,১৭৭টি ওয়ানডে আর ২৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন আশরাফুল।

দেশের হয়ে ২৬১ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৯টি সেঞ্চুরি আর ৩০টি ফিফটির সাহায্যে সংগ্রহ করেছেন ৬ হাজার ৬৫৫ রান। অধিনায়ক হিসেবে ৩৮টি ওয়ানডে, ১৩টি টেস্ট আর ১১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন আশরাফুল।