শেখ জামালের নামে হচ্ছে রমনা টেনিস কমপ্লেক্স
jugantor
শেখ জামালের নামে হচ্ছে রমনা টেনিস কমপ্লেক্স

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৮ জানুয়ারি ২০২১, ২১:১৭:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

রমনা জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সের নাম পরিবর্তন করে রাখা হচ্ছে লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্স। সোমবার যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

এ ব্যাপারে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর পরিবারের প্রতিটি সদস্যই দেশের ক্রীড়াঙ্গনে একেকটি আলোকবর্তিকা। স্বাধীনতার পর দেশের ক্রীড়াঙ্গনকে এগিয়ে নিতে শহীদ শেখ জামালের অবদান সূর্যের আলোর মতো দীপ্তমান। তিনি নিজেও একজন সফল টেনিস খেলোয়াড় ছিলেন।

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ও ক্রীড়াঙ্গনে তার অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সকে লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্স হিসেবে নামকরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, এরই মধ্যে জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সকে আধুনিকায়ন করতে আটটি নতুন টেনিস কোর্ট তৈরি (ফ্লাড লাইটসহ), একটি জিমনেসিয়াম নির্মাণ, প্রধান গেট সংস্কার ও আধুনিকায়ন, আবাসিক সুবিধা, মিডিয়া সেন্টার তৈরিসহ আধুনিকায়নের কাজ শেষ হয়েছে।

শেখ জামালের নামে হচ্ছে রমনা টেনিস কমপ্লেক্স

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রমনা জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সের নাম পরিবর্তন করে রাখা হচ্ছে লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্স। সোমবার যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

এ ব্যাপারে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর পরিবারের প্রতিটি সদস্যই দেশের ক্রীড়াঙ্গনে একেকটি আলোকবর্তিকা। স্বাধীনতার পর দেশের ক্রীড়াঙ্গনকে এগিয়ে নিতে শহীদ শেখ জামালের অবদান সূর্যের আলোর মতো দীপ্তমান। তিনি নিজেও একজন সফল টেনিস খেলোয়াড় ছিলেন।

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ও ক্রীড়াঙ্গনে তার অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সকে লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্স হিসেবে নামকরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, এরই মধ্যে জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সকে আধুনিকায়ন করতে আটটি নতুন টেনিস কোর্ট তৈরি (ফ্লাড লাইটসহ), একটি জিমনেসিয়াম নির্মাণ, প্রধান গেট সংস্কার ও আধুনিকায়ন, আবাসিক সুবিধা, মিডিয়া সেন্টার তৈরিসহ আধুনিকায়নের কাজ শেষ হয়েছে।