জার্মান দলের হয়ে আর খেলব না: ওজিল
jugantor
জার্মান দলের হয়ে আর খেলব না: ওজিল

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১২:২৪:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

নিজের দেশ জার্মানির হয়ে আর না খেলার ঘোষণা দিয়েছেন আর্সেনাল সুপারস্টার মেসুত ওজিল। সাড়ে তিন বছরের চুক্তিতে তুরস্কর ক্লাব ফেনারবাচে যোগ দিয়েছেন এ অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার।

ইস্তানবুলের একটি জনপ্রিয় গণমাধ্যমে বুধবার ওজিল বলেছেন, ‘আমি জার্মান জাতীয় দলের সফলতায় খুব খুশি হব। কিন্তু সে দেশের হয়ে আর কখনও খেলব না।’

প্রিয় ক্লাব আর্সেনাল ছাড়ার বিষয়ে এক বিবৃতিতে ওজিল বলেন, ‘আর্সেনালের সঙ্গে গত প্রায় সাড়ে সাত বছরে পথচলা আমার জন্য ছিল দারুণ ও উপভোগ্য। আমরা একসঙ্গে শিরোপা জিতেছি ও এমন কিছু দারুণ মুহূর্ত কাটিয়েছি, যা সারাজীবন আমার স্মৃতিতে থাকবে। আমি এ মুহূর্তে আর্সেনাল সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

২০১৩ সালে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে সেই সময়ের ক্লাব রেকর্ড ৪২.৫ মিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফার ফিতে আর্সেনালে যোগ দিয়েছিলেন ওজিল। প্রথম মৌসুমেই আর্সেনালকে এফএ কাপের শিরোপা এনে দেন বিশ্বকাপজয়ী এ মিডফিল্ডার।

আর্সেনালের জার্সিতে প্রায় সাড়ে সাত বছরে তিনটি এফএ কাপের শিরোপা জেতার পাশাপাশি সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৫৪ ম্যাচ খেলেছেন ওজিল। ৪৪ গোল করেছেন। থিয়েরি অঁরি ও কেভিন ডি ব্রুইনার পরই ওজিলের অবস্থান। এর পরও গত বছরের মার্চ থেকে কোচ মিকেল আর্তেতার দলে উপেক্ষিত ছিলেন তিনি।

চলতি মৌসুম পর্যন্ত চুক্তি থাকলেও এবারের প্রিমিয়ার লিগ ও ইউরোপা লিগে তাকে মাঠে নামায়নি আর্সেনাল। এমন পরিস্থিতিতে ১৩ মিলিয়ন ইউরোতে তুরস্কের ফেনারবাচে নাম লেখালেন ওজিল। আর্সেনালে তার বেতন ছিল বার্ষিক ২০ মিলিয়ন ইউরো।

প্রসঙ্গত ওজিলের জন্ম জার্মানিতে হলেও তিনি তুরস্কের বংশোদ্ভূত। তার স্ত্রী একজন তুর্কি নারী। তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে ওজিলের। ওজিলের বিয়েতে সস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন এরদোগান। সেই সময় বিষয়টি ভালোভাবে নেননি জার্মানিরা। গত বিশ্বকাপে ভালো পারফরম করতে পারেননি ওজিল। সেই সময় জার্মানির সাবেক তারকা ফুটবলারসহ অনেকেই ওজিলের সমালোচনা করে বলেছিলেন, ওজিল জার্মানির জন্য মন দিয়ে খেলেন না।

তথ্যসূত্র: আলজাজিরা

জার্মান দলের হয়ে আর খেলব না: ওজিল

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১২:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নিজের দেশ জার্মানির হয়ে আর না খেলার ঘোষণা দিয়েছেন আর্সেনাল সুপারস্টার মেসুত ওজিল।  সাড়ে তিন বছরের চুক্তিতে তুরস্কর ক্লাব ফেনারবাচে যোগ দিয়েছেন এ অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার।

ইস্তানবুলের একটি জনপ্রিয় গণমাধ্যমে বুধবার ওজিল বলেছেন, ‘আমি জার্মান জাতীয় দলের সফলতায় খুব খুশি হব। কিন্তু সে দেশের হয়ে আর কখনও খেলব না।’

প্রিয় ক্লাব আর্সেনাল ছাড়ার বিষয়ে এক বিবৃতিতে ওজিল বলেন, ‘আর্সেনালের সঙ্গে গত প্রায় সাড়ে সাত বছরে পথচলা আমার জন্য ছিল দারুণ ও উপভোগ্য। আমরা একসঙ্গে শিরোপা জিতেছি ও এমন কিছু দারুণ মুহূর্ত কাটিয়েছি, যা সারাজীবন আমার স্মৃতিতে থাকবে। আমি এ মুহূর্তে আর্সেনাল সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

২০১৩ সালে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে সেই সময়ের ক্লাব রেকর্ড ৪২.৫ মিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফার ফিতে আর্সেনালে যোগ দিয়েছিলেন ওজিল। প্রথম মৌসুমেই আর্সেনালকে এফএ কাপের শিরোপা এনে দেন বিশ্বকাপজয়ী এ মিডফিল্ডার।  

আর্সেনালের জার্সিতে প্রায় সাড়ে সাত বছরে তিনটি এফএ কাপের শিরোপা জেতার পাশাপাশি সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৫৪ ম্যাচ খেলেছেন ওজিল। ৪৪ গোল করেছেন। থিয়েরি অঁরি ও কেভিন ডি ব্রুইনার পরই ওজিলের অবস্থান। এর পরও গত বছরের মার্চ থেকে কোচ মিকেল আর্তেতার দলে উপেক্ষিত ছিলেন তিনি।

চলতি মৌসুম পর্যন্ত চুক্তি থাকলেও এবারের প্রিমিয়ার লিগ ও ইউরোপা লিগে তাকে মাঠে নামায়নি আর্সেনাল। এমন পরিস্থিতিতে ১৩ মিলিয়ন ইউরোতে তুরস্কের ফেনারবাচে নাম লেখালেন ওজিল। আর্সেনালে তার বেতন ছিল বার্ষিক ২০ মিলিয়ন ইউরো। 

প্রসঙ্গত ওজিলের জন্ম জার্মানিতে হলেও তিনি তুরস্কের বংশোদ্ভূত। তার স্ত্রী একজন তুর্কি নারী। তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে ওজিলের। ওজিলের বিয়েতে সস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন এরদোগান। সেই সময় বিষয়টি ভালোভাবে নেননি জার্মানিরা। গত বিশ্বকাপে ভালো পারফরম করতে পারেননি ওজিল। সেই সময় জার্মানির সাবেক তারকা ফুটবলারসহ অনেকেই ওজিলের সমালোচনা করে বলেছিলেন, ওজিল জার্মানির জন্য মন দিয়ে খেলেন না। 

তথ্যসূত্র: আলজাজিরা
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন