অবৈধ মোবাইল ফোন আগুনে পুড়িয়ে দিল বিটিআরসি
jugantor
অবৈধ মোবাইল ফোন আগুনে পুড়িয়ে দিল বিটিআরসি

  আসাদুজ্জামান ফারুক, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি  

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২০:০৫:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

অবৈধ মোবাইল ফোন জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। ছবি: যুগান্তর

ভৈরবে মোবাইল ফোন মার্কেটে বিটিআরসির কর্মকর্তারা এক অভিযান চালিয়ে ৪৭টি অবৈধ মোবাইল জব্দ করেছে। এসময় ৫টি দোকান মালিককে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। জব্দকৃত ৪৭টি অবৈধ মোবাইল ও ট্যাব আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করে দেয়া হয়।

সোমবার বিকেলে ভৈরব শহরের ইয়াকুব সুপার মার্কেটে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)-এর উপ-পরিচালক এস এম গোলাম সারোয়ারের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও ভৈরব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রি খিসা উপস্থিত ছিলেন।

যেসব প্রতিষ্ঠানকে ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানা করেছে তারা হচ্ছে- লিটন মোবাইল স্টোর ২০ হাজার টাকা, নীলা মোবাইল স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, হিমু মোবাইল ঘরকে ৩০ হাজার টাকা, রাইটা মোবাইল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা ও রাসেল মোবাইল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা।

অভিযানের সময় র‍্যাব, পুলিশসহ বিটিআরসির কয়েকজন কর্মকর্তা তাদেরকে সহযোগীতা করে।

বিটিআরসির উপ-পরিচালক এস এম গোলাম মোস্তাফা জানান, দোকানগুলোতে অবৈধ মোবাইল পাওয়া যায়। জব্দকৃত মোবাইলের আইএমই নাম্বার নকল যা সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে অবৈধভাবে সেটগুলো দেশে প্রবেশ করানো হয়।

এ কারণে ৪৭টি মোবাইল ও ট্যাব জব্দ করে আগুন দিয়ে ধ্বংস করা হয়। এ ধরনের অভিযান সারাদেশে নিয়মিত চলবে বলে তিনি জানান।

ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রি খিসা জানান, দোকানগুলোতে অবৈধ মোবাইল রাখার কারণে ৫টি দোকান মালিককে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আজকের অভিযানে বিটিআরসির কর্মকর্তাদেরকে আমি সহযোগীতা করেছি।

অবৈধ মোবাইল ফোন আগুনে পুড়িয়ে দিল বিটিআরসি

 আসাদুজ্জামান ফারুক, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি 
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৮:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অবৈধ মোবাইল ফোন জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। ছবি: যুগান্তর
অবৈধ মোবাইল ফোন জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। ছবি: যুগান্তর

ভৈরবে মোবাইল ফোন মার্কেটে বিটিআরসির কর্মকর্তারা এক অভিযান চালিয়ে ৪৭টি অবৈধ মোবাইল জব্দ করেছে। এসময় ৫টি দোকান মালিককে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। জব্দকৃত ৪৭টি অবৈধ মোবাইল ও ট্যাব আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করে দেয়া হয়।

সোমবার বিকেলে ভৈরব শহরের ইয়াকুব সুপার মার্কেটে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)-এর উপ-পরিচালক এস এম গোলাম সারোয়ারের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়। 

এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও ভৈরব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রি খিসা উপস্থিত ছিলেন। 

যেসব প্রতিষ্ঠানকে ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানা করেছে তারা হচ্ছে- লিটন মোবাইল স্টোর ২০ হাজার টাকা, নীলা মোবাইল স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, হিমু মোবাইল ঘরকে ৩০ হাজার টাকা, রাইটা মোবাইল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা ও রাসেল মোবাইল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা। 

অভিযানের সময় র‍্যাব, পুলিশসহ বিটিআরসির কয়েকজন কর্মকর্তা তাদেরকে সহযোগীতা করে।

বিটিআরসির উপ-পরিচালক এস এম গোলাম মোস্তাফা জানান, দোকানগুলোতে অবৈধ মোবাইল পাওয়া যায়। জব্দকৃত মোবাইলের আইএমই নাম্বার নকল যা সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে অবৈধভাবে সেটগুলো দেশে প্রবেশ করানো হয়।

এ কারণে ৪৭টি মোবাইল ও ট্যাব জব্দ করে আগুন দিয়ে ধ্বংস করা হয়। এ ধরনের অভিযান সারাদেশে নিয়মিত চলবে বলে তিনি জানান। 

ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রি খিসা জানান, দোকানগুলোতে অবৈধ মোবাইল রাখার কারণে ৫টি দোকান মালিককে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আজকের অভিযানে বিটিআরসির কর্মকর্তাদেরকে আমি সহযোগীতা করেছি।