বিয়ে করছেন নাবিলা
jugantor
বিয়ে করছেন নাবিলা

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন ‘আয়নাবাজি’খ্যাত অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। বর ব্যাংকার। নাম জোবাইদুল হক। বছরের শেষ দিনের (৩১ ডিসেম্বর) চমক হিসেবে এমনটাই জানালেন তিনি। তবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা আজ-কাল নয়।

তিনি জানান, দুই পরিবারের মধ্যে বিয়ের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২৬ এপ্রিল হবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। আর বিয়ে প্রসঙ্গে নাবিলা বলেন, ‘বিয়ের সবকিছু দুই পরিবারের সিদ্ধান্তে হলেও আমাদের দু’জনার পরিচয় প্রায় ১৮ বছরের। শুধু তাই নয়, আমরা দু’জনেই দু’জনার প্রথম প্রেম। যখন জেদ্দায় থাকতাম, ওদের পরিবারও সেখানে থাকত। দু’জনে একই স্কুলে পড়তাম। তখন থেকে তার প্রতি ভালো লাগা তৈরি হয়। তবে কল্পনাও করিনি, এতদিন পর আমাদের সেই প্রেমের সফল পরিণতি হবে। সবার কাছে দোয়া চাই।’

এদিকে বিয়ের পর হানিমুন প্রসঙ্গে নাবিলা বলেন, ‘আসলে বিয়ের পরপরই আমাদের খুব ইচ্ছা পবিত্র ওমরাহ পালনের। হানিমুন নিয়ে ভাবতে চাই তার পর।

উল্লেখ্য, বাবার চাকরির সুবাদে নাবিলার জন্ম ও বেড়ে ওঠা সৌদি আরবে। তার কৈশোর কেটেছে জেদ্দা শহরে। এসএসসি পাসের পর জেদ্দা থেকে নাবিলা স্থায়ীভাবে ঢাকায় চলে আসেন। অন্যদিকে নাবিলার হবু বর জোবাইদুল হকের কৈশোরও কেটেছে জেদ্দায়।

প্রসঙ্গত, টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা দিয়ে পরিচিতি পেলেও নাবিলা সবাইকে চমকে দেন ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে।

বিয়ে করছেন নাবিলা

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন ‘আয়নাবাজি’খ্যাত অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। বর ব্যাংকার। নাম জোবাইদুল হক। বছরের শেষ দিনের (৩১ ডিসেম্বর) চমক হিসেবে এমনটাই জানালেন তিনি। তবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা আজ-কাল নয়।

তিনি জানান, দুই পরিবারের মধ্যে বিয়ের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২৬ এপ্রিল হবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। আর বিয়ে প্রসঙ্গে নাবিলা বলেন, ‘বিয়ের সবকিছু দুই পরিবারের সিদ্ধান্তে হলেও আমাদের দু’জনার পরিচয় প্রায় ১৮ বছরের। শুধু তাই নয়, আমরা দু’জনেই দু’জনার প্রথম প্রেম। যখন জেদ্দায় থাকতাম, ওদের পরিবারও সেখানে থাকত। দু’জনে একই স্কুলে পড়তাম। তখন থেকে তার প্রতি ভালো লাগা তৈরি হয়। তবে কল্পনাও করিনি, এতদিন পর আমাদের সেই প্রেমের সফল পরিণতি হবে। সবার কাছে দোয়া চাই।’

এদিকে বিয়ের পর হানিমুন প্রসঙ্গে নাবিলা বলেন, ‘আসলে বিয়ের পরপরই আমাদের খুব ইচ্ছা পবিত্র ওমরাহ পালনের। হানিমুন নিয়ে ভাবতে চাই তার পর।

উল্লেখ্য, বাবার চাকরির সুবাদে নাবিলার জন্ম ও বেড়ে ওঠা সৌদি আরবে। তার কৈশোর কেটেছে জেদ্দা শহরে। এসএসসি পাসের পর জেদ্দা থেকে নাবিলা স্থায়ীভাবে ঢাকায় চলে আসেন। অন্যদিকে নাবিলার হবু বর জোবাইদুল হকের কৈশোরও কেটেছে জেদ্দায়।

প্রসঙ্গত, টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা দিয়ে পরিচিতি পেলেও নাবিলা সবাইকে চমকে দেন ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন