করোনার ক্ষতি এ বছর পুষিয়ে নেব
jugantor
হ্যালো...
করোনার ক্ষতি এ বছর পুষিয়ে নেব
ক্যারিয়ারে অনেকটা সফল চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। ছবিতেই বেশি কাজ করেন। তবে মাঝে মধ্যে অনলাইন কনটেন্টেও দেখা যায় তাকে। নতুন একটি ছবিতেও সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। অভিনয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

  সোহেল আহসান  

১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত

* করোনাকাল কেমন কাটছে?

** এখনো সুস্থভাবেই দিনযাপন করছি। প্রতিক্ষণ সতর্ক হয়েই চলছি। তবে পরিচিতদের অনেকেই এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং সুস্থও হয়েছেন। এ মহামারিতে যেন নিরাপদে থাকতে পারি, সেই কামনা করি। কারণ সব কাজেই করোনার প্রভাব চলে এসেছে। তাই আল্লাহ যেন সবাইকে সুস্থ রাখেন এটাই আমার প্রার্থনা।

* সম্প্রতি নতুন একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হলেন। কী ধরনের ছবি এটি?

** ছবির নাম ‘যাও পাখি বলো তারে’। পরিচালনা করছেন মোস্তাফিজুর রহমান মানিক ভাইয়া। এর আগে তার সঙ্গে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা আছে। তিনি আমার পছন্দের একজন পরিচালক। এ ছবিতে আমি এক গ্রামের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করব। খুব দ্রুতই এ ছবির শুটিং শুরু হবে। তার আগে মানিক ভাইয়ের পরিচালনায় নির্মাণচলতি ‘আশীর্বাদ’ ছবির অসমাপ্ত অংশের শুটিং করব। তাই সামনের কিছুদিন অভিনয়ে ব্যস্ততা থাকবে আমার।

* আপনার হাতে আরও কিছু ছবির কাজ ছিল। সেগুলোর অগ্রগতি কী?

** ক’টি ছবির কাজ অসমাপ্ত হয়ে আছে। সেগুলোর কাজ শুরু করব কিছু দিনের মধ্যেই। এগুলো হলো- মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের পরিচালনায় ‘আশীর্বাদ’ ও ‘আনন্দ অশ্রু’, ওয়াজেদ আলী সুমনের ‘ব্লাড’ এবং বদিউল আলম খোকনের ‘হারজিৎ’। এ ছবিগুলোতেও আমাকে নতুনভাবে দর্শক দেখবেন। মূলত করোনাভাইরাসের কারণেই ছবিগুলোর কাজ আটকে আছে।

* গত বছরের ডিসেম্বরে দীর্ঘ সময় পর আপনার অভিনীত নতুন ছবি মুক্তি পেয়েছিল। এরপর আবার কবে?

** ছবি মুক্তির বিষয়গুলো পরিচালক-প্রযোজক নির্ধারণ করেন। শিল্পীরা নয়। তাই আমিও জানি না আমার অভিনীত কোন ছবি কখন মুক্তি পাবে। সর্বশেষ ‘নবাব এলএলবি’ নামে আমার অভিনীত একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ইচ্ছা ছিল ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখার। তবে সে সুযোগ হয়নি। কারণ এটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি। ইন্টারনেট অ্যাপসে মুক্তির কারণে গ্রাম-গঞ্জের অনেক দর্শকই ছবিটি দেখার সুযোগ পাননি। তবে করোনার কারণেও হয়তো ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিয়েও কাজ হবে না। অনেকেই করোনাভীতির কারণে প্রেক্ষাগৃহে যাচ্ছেন না। তবে এ ছবির গানের জন্য দর্শকের কাছ থেকে বেশি সাড়া পেয়েছি।

* নতুন বছরে অভিনয় নিয়ে পরিকল্পনা সাজিয়েছেন?

** হ্যাঁ। ভালো গল্পের ছবিতে অভিনয়ের ইচ্ছা আছে। করোনার কারণে গত বছর অভিনয় ক্যারিয়ারের যে ক্ষতি হয়েছে তা পুষিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব। ছবির পাশাপাশি অনলাইনের কাজ বৃদ্ধি করারও ইচ্ছা আছে। তাই মাঝে মধ্যেই ওয়েব সিরিজে অভিনয় করছি। তা ছাড়া কিছু দিন থেকে অনলাইনের প্রচুর কাজের প্রস্তাব পাচ্ছি। সেখান থেকে পছন্দের কিছু কাজ করব। আমি মনে করি ভালো কাজ করলে দর্শকের ভালোবাসা এমনিতেই চলে আসে।

* একটি অনলাইন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন। এটির কার্যক্রম কী গতিশীল আছে?

** ‘জারা’ নামের আমার প্রতিষ্ঠানটি শুরু করার আগে বেশ দুশ্চিন্তায় ছিলাম। কার্যক্রম শুরুর পর ক্রেতাদের কাছ থেকে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি সাড়া পাচ্ছি। আমার কর্মীরা ক্রেতাদের কাছে পণ্য পৌঁছে দিচ্ছেন। এভাবে আর কিছু দিন চলতে থাকলে ব্যবসার পরিধি বিস্তৃত করব।

হ্যালো...

করোনার ক্ষতি এ বছর পুষিয়ে নেব

ক্যারিয়ারে অনেকটা সফল চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। ছবিতেই বেশি কাজ করেন। তবে মাঝে মধ্যে অনলাইন কনটেন্টেও দেখা যায় তাকে। নতুন একটি ছবিতেও সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। অভিনয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।
 সোহেল আহসান 
১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

* করোনাকাল কেমন কাটছে?

** এখনো সুস্থভাবেই দিনযাপন করছি। প্রতিক্ষণ সতর্ক হয়েই চলছি। তবে পরিচিতদের অনেকেই এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং সুস্থও হয়েছেন। এ মহামারিতে যেন নিরাপদে থাকতে পারি, সেই কামনা করি। কারণ সব কাজেই করোনার প্রভাব চলে এসেছে। তাই আল্লাহ যেন সবাইকে সুস্থ রাখেন এটাই আমার প্রার্থনা।

* সম্প্রতি নতুন একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হলেন। কী ধরনের ছবি এটি?

** ছবির নাম ‘যাও পাখি বলো তারে’। পরিচালনা করছেন মোস্তাফিজুর রহমান মানিক ভাইয়া। এর আগে তার সঙ্গে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা আছে। তিনি আমার পছন্দের একজন পরিচালক। এ ছবিতে আমি এক গ্রামের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করব। খুব দ্রুতই এ ছবির শুটিং শুরু হবে। তার আগে মানিক ভাইয়ের পরিচালনায় নির্মাণচলতি ‘আশীর্বাদ’ ছবির অসমাপ্ত অংশের শুটিং করব। তাই সামনের কিছুদিন অভিনয়ে ব্যস্ততা থাকবে আমার।

* আপনার হাতে আরও কিছু ছবির কাজ ছিল। সেগুলোর অগ্রগতি কী?

** ক’টি ছবির কাজ অসমাপ্ত হয়ে আছে। সেগুলোর কাজ শুরু করব কিছু দিনের মধ্যেই। এগুলো হলো- মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের পরিচালনায় ‘আশীর্বাদ’ ও ‘আনন্দ অশ্রু’, ওয়াজেদ আলী সুমনের ‘ব্লাড’ এবং বদিউল আলম খোকনের ‘হারজিৎ’। এ ছবিগুলোতেও আমাকে নতুনভাবে দর্শক দেখবেন। মূলত করোনাভাইরাসের কারণেই ছবিগুলোর কাজ আটকে আছে।

* গত বছরের ডিসেম্বরে দীর্ঘ সময় পর আপনার অভিনীত নতুন ছবি মুক্তি পেয়েছিল। এরপর আবার কবে?

** ছবি মুক্তির বিষয়গুলো পরিচালক-প্রযোজক নির্ধারণ করেন। শিল্পীরা নয়। তাই আমিও জানি না আমার অভিনীত কোন ছবি কখন মুক্তি পাবে। সর্বশেষ ‘নবাব এলএলবি’ নামে আমার অভিনীত একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ইচ্ছা ছিল ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখার। তবে সে সুযোগ হয়নি। কারণ এটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি। ইন্টারনেট অ্যাপসে মুক্তির কারণে গ্রাম-গঞ্জের অনেক দর্শকই ছবিটি দেখার সুযোগ পাননি। তবে করোনার কারণেও হয়তো ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিয়েও কাজ হবে না। অনেকেই করোনাভীতির কারণে প্রেক্ষাগৃহে যাচ্ছেন না। তবে এ ছবির গানের জন্য দর্শকের কাছ থেকে বেশি সাড়া পেয়েছি।

* নতুন বছরে অভিনয় নিয়ে পরিকল্পনা সাজিয়েছেন?

** হ্যাঁ। ভালো গল্পের ছবিতে অভিনয়ের ইচ্ছা আছে। করোনার কারণে গত বছর অভিনয় ক্যারিয়ারের যে ক্ষতি হয়েছে তা পুষিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব। ছবির পাশাপাশি অনলাইনের কাজ বৃদ্ধি করারও ইচ্ছা আছে। তাই মাঝে মধ্যেই ওয়েব সিরিজে অভিনয় করছি। তা ছাড়া কিছু দিন থেকে অনলাইনের প্রচুর কাজের প্রস্তাব পাচ্ছি। সেখান থেকে পছন্দের কিছু কাজ করব। আমি মনে করি ভালো কাজ করলে দর্শকের ভালোবাসা এমনিতেই চলে আসে।

* একটি অনলাইন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন। এটির কার্যক্রম কী গতিশীল আছে?

** ‘জারা’ নামের আমার প্রতিষ্ঠানটি শুরু করার আগে বেশ দুশ্চিন্তায় ছিলাম। কার্যক্রম শুরুর পর ক্রেতাদের কাছ থেকে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি সাড়া পাচ্ছি। আমার কর্মীরা ক্রেতাদের কাছে পণ্য পৌঁছে দিচ্ছেন। এভাবে আর কিছু দিন চলতে থাকলে ব্যবসার পরিধি বিস্তৃত করব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন