অভিনেতা থেকে প্রযোজক কাজী রিটন

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
০৪ মার্চ ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অভিনয় দিয়ে মিডিয়ায় ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন কাজী রিটন। ২০০০ সাল থেকে নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করেন। ২০০৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘চন্দ্রগ্রহণ’ সিনেমার মাধ্যমে প্রথম বড় পর্দায় অভিনয় করেন। এরপর অভিনয়ের পাশাপাশি সহকারী পরিচালক হিসাবেও কাজ করেন। বর্তমানে তিনি একজন সফল প্রযোজক। নিয়মিত নাটক ও সিনেমা প্রযোজনা করেন। তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নাম ‘ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট।

তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রোডিউসারস অ্যাসোসিয়েশনের ‘আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক’ হিসাবেও দায়িত্ব পালন করছেন। তার প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে ধারাবাহিক নাটক ‘দ্বিতীয় জীবন, ‘বিবর্ণ ভালোবাসা’, ‘কাছ দূরে’, ‘নীড়ে নির্বাসন’, ‘অত্রি’, ‘প্রত্যাগত’, ‘শুভ’, ‘নায়িকার নামে নাম’, ‘এবং বিয়ে’, ‘ময়ূর বাহন’, ‘খোয়াব’, ‘সোসাইটি’, ‘ভালোবাসা মন্দবাসা’সহ আরও অনেক নাটক। ‘হৃদয়ের কথা’ নামে একটি সিনেমাও তিনি যৌথভাবে প্রযোজনা করেন। এ মুহূর্তে তার প্রতিষ্ঠান থেকে একাধিক নাটক নির্মিত হচ্ছে এবং কিছু নাটক প্রচার হচ্ছে টেলিভিশনে। পরিচালক হিসাবে তিনি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘দ্বিধা’ এবং ‘অন্তরীক্ষ’ নির্মাণ করেন ২০০৯ সালে।

প্রযোজনা প্রসঙ্গে কাজী রিটন বলেন, ‘মিডিয়ায় দীর্ঘদিন কাজ করছি। অভিনয়ের প্রতিই ইচ্ছা ছিল বেশি। এক সময় দেখলাম, এ মাধ্যমে ইনভেস্ট করলে ফলাফল ভালোই আসতে পারে। সেই চিন্তা থেকেই প্রযোজনায় আসা। আগে অভিনয় করলেও এখন প্রযোজনায় নিয়মিত। ভালোবাসা থেকে এ মাধ্যমে এসে এখন পেশাদার হয়ে গেছি। চেষ্টা থাকবে বাকি সময়ও শিল্পচর্চার সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে মানুষের সেবা করে যাওয়ার।’ উল্লেখ্য, ‘কাজী ফাউন্ডেশন’ নামে একটি দাতব্য সংস্থার মাধ্যমে তিনি শিশু অধিকার ও শিক্ষার মান উন্নয়নেও কাজ করে যাচ্ছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন