জাবি শিক্ষার্থীকে মারধর, ৩৫ বাস আটক
jugantor
জাবি শিক্ষার্থীকে মারধর, ৩৫ বাস আটক

  জাবি প্রতিনিধি  

১৮ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকসংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ইতিহাস পরিবহণের ৩৫টি বাস আটক করে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এর পরিপ্রেক্ষিতে রাত ১১টায় ইতিহাস পরিবহণের ব্যবস্থাপক জুয়েল শেখ, উপ-ব্যবস্থাপক মো. নাজমুল ইসলাম, বাস মালিক আতাউর রহমান বাবলু ও মারধরে অভিযুক্ত কামরুল ইসলাম রাব্বী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে ক্ষমা চাইলে শিক্ষার্থীরা ৩৫টি বাসের চাবি মালিক পক্ষকে বুঝিয়ে দেন। এ সময় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ ও রনি হোসাইন উপস্থিত ছিলেন। পরে শিক্ষার্থীরা পাঁচ দফা দাবি জানালে বাস মালিক পক্ষ সেগুলো মেনে নেন।
এর আগে বুধবার রাজধানীর মিরপুরে হাফ ভাড়া নিয়ে ইতিহাস পরিবহণের মিরপুর রুটের রোড-ইনচার্জ কামরুল ইসলাম রাব্বীর সঙ্গে জাবি শিক্ষার্থী মামুনুর রেজার বাগি¦তণ্ডা হয়। এ সময় মামুনুরকে মারধর করা হয়। ভুক্তভোগী মামুনুর রেজা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিচারের দাবিতে ক্ষুব্ধ হয়ে ইতিহাস পরিবহণের ৩৫টি বাস আটকে রাখে।
মামুনুর রেজা বলেন, বুধবার সকাল ৮টায় ক্যাম্পাসে আসার জন্য মিরপুর-১০ থেকে ইতিহাস বাসে উঠি। এ সময় বাসের কর্মচারী নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি দাবি করলে জাহাঙ্গীরনগরের ছাত্র পরিচয় দেই। শোনা মাত্র আমাকে কলার ধরে বাস থেকে নিচে নামিয়ে ধাক্কা দিয়ে মারতে শুরু করে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ শৈবাল বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীকে মারধর করে সে জঘন্য অপরাধ করেছে। বিষয়টি আমরা বাস মালিক পক্ষকে জানালে তারা এসে ক্ষমা চেয়েছেন এবং ভবিষ্যতে হাফ ভাড়া নিয়ে আর কোনো শিক্ষার্থীকে হয়রানি করবেন না বলে মুচলেকা দিয়েছেন। এ ছাড়াও অভিযুক্তের বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে বাস মালিক পক্ষ আমাদের আশ্বস্ত করেছে।

জাবি শিক্ষার্থীকে মারধর, ৩৫ বাস আটক

 জাবি প্রতিনিধি 
১৮ নভেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকসংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ইতিহাস পরিবহণের ৩৫টি বাস আটক করে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এর পরিপ্রেক্ষিতে রাত ১১টায় ইতিহাস পরিবহণের ব্যবস্থাপক জুয়েল শেখ, উপ-ব্যবস্থাপক মো. নাজমুল ইসলাম, বাস মালিক আতাউর রহমান বাবলু ও মারধরে অভিযুক্ত কামরুল ইসলাম রাব্বী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে ক্ষমা চাইলে শিক্ষার্থীরা ৩৫টি বাসের চাবি মালিক পক্ষকে বুঝিয়ে দেন। এ সময় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ ও রনি হোসাইন উপস্থিত ছিলেন। পরে শিক্ষার্থীরা পাঁচ দফা দাবি জানালে বাস মালিক পক্ষ সেগুলো মেনে নেন।
এর আগে বুধবার রাজধানীর মিরপুরে হাফ ভাড়া নিয়ে ইতিহাস পরিবহণের মিরপুর রুটের রোড-ইনচার্জ কামরুল ইসলাম রাব্বীর সঙ্গে জাবি শিক্ষার্থী মামুনুর রেজার বাগি¦তণ্ডা হয়। এ সময় মামুনুরকে মারধর করা হয়। ভুক্তভোগী মামুনুর রেজা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিচারের দাবিতে ক্ষুব্ধ হয়ে ইতিহাস পরিবহণের ৩৫টি বাস আটকে রাখে।
মামুনুর রেজা বলেন, বুধবার সকাল ৮টায় ক্যাম্পাসে আসার জন্য মিরপুর-১০ থেকে ইতিহাস বাসে উঠি। এ সময় বাসের কর্মচারী নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি দাবি করলে জাহাঙ্গীরনগরের ছাত্র পরিচয় দেই। শোনা মাত্র আমাকে কলার ধরে বাস থেকে নিচে নামিয়ে ধাক্কা দিয়ে মারতে শুরু করে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ শৈবাল বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীকে মারধর করে সে জঘন্য অপরাধ করেছে। বিষয়টি আমরা বাস মালিক পক্ষকে জানালে তারা এসে ক্ষমা চেয়েছেন এবং ভবিষ্যতে হাফ ভাড়া নিয়ে আর কোনো শিক্ষার্থীকে হয়রানি করবেন না বলে মুচলেকা দিয়েছেন। এ ছাড়াও অভিযুক্তের বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে বাস মালিক পক্ষ আমাদের আশ্বস্ত করেছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন