শুভেচ্ছাবাণী

  সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- কেয়া আমান ও ফারিন সুমাইয়া ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আজহারুল হক আজাদ

ফ্যাশন ডিজাইনার ও কর্ণধার, সাদাকালো

২১ বছর সংবাদপত্রের ইতিহাসে খুব অল্প সময় নয়; অনেক সময়। এ দীর্ঘ সময় পাড়ি দিতে যুগান্তর সবসময় বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সামনে নিয়ে এসেছে। যুগান্তর পত্রিকা গতানুগতিক থেকে বেরিয়ে নিজস্ব আঙ্গিকে পত্রিকার বিভিন্ন সেক্টর বিভিন্ন রকম বিষয় নিয়ে সাজায়। এতে যুগান্তরকে সহজেই আলাদা করা যায়। যুগান্তরের বিভিন্ন পাতার মধ্যে লাইফস্টাইল ঘরে-বাইরের উপস্থাপনা, কাজের ধরন, বিষয়বস্তু চমৎকার। যুগান্তরের জন্য আমার অনেক অনেক শুভকামনা রইল। সেইসঙ্গে এ দীর্ঘপথ ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির পাশে বিশেষ করে, দেশীয় ফ্যাশনের পাশে থাকার জন্য, দেশীয় পোশাক শিল্পের বিকাশে আমাদের সহযোগিতা করার জন্য যুগান্তরকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

বাহার রহমান

ফ্যাশন ডিজাইনার ও কর্ণধার, নিত্য উপহার

যুগান্তর আমার ভালোবাসার পরিবার। পরিবারের সদস্যদের জন্য শুভকামনা একটু বেশিই থাকে। যুগান্তরের জন্যও আমার শুভকামনা একটু বেশিই। যুগান্তর পাঠকদের আস্থা, ভালোবাসায় ২০ বছর পার করে ২১ বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে। এভাবেই আরও শত শত ২১ বছর যুগান্তরের অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকুক।

গুলশান নাসরিন চৌধুরী

ইন্টেরিয়র ডিজাইনার ও চেয়ারপারসন, রেডিয়েন্ট ইন্সটিটিউট অব ডিজাইন

আমি একযুগ ধরে যুগান্তরের ঘরে-বাইরের সঙ্গে জড়িত। ঘরেবাইরের সঙ্গে আমার আত্মার সম্পর্ক। ‘ঘরেবাইরে’ লাইফস্টাইল পাতাটি আমার খুবই প্রিয়। কারণ ঘরে-বাইরে আমাদের লাইফস্টাইলের প্রতিটি বিষয় অত্যন্ত যত্নসহকারে পাঠকদের জন্য তুলে ধরে। যুগান্তরের ২১ বছর পূর্তিতে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা রইল যুগান্তর ও ঘরে-বাইরে পরিবারের জন্য।

শৈবাল সাহা

ফ্যাশন ডিজাইনার, ইন্ডোগো

আমরা ফ্যাশনের সঙ্গে যুক্ত মানুষ সবসময়ই আপনাদের পাশে পেয়েছি। আপনারা আছেন বলেই আমরা এগিয়ে যেতে পারছি। তাই যুগান্তরের সফলতা কামনা করি সবসময়। দোয়া করি যুগান্তর দীর্ঘজীবী হোক।

সাইফুল ইসলাম বিপুল

ফ্যাশন ডিজাইনার ও কর্ণধার, প্লাস পয়েন্ট

ফ্যাশন হাউসের সূত্র ধরে অনেকদিন ধরে যুগান্তরের সঙ্গে আছি। প্লাস পয়েন্টের শুরু থেকেই যুগান্তর আমাদের পাশে আছে। যুগান্তরের ঘরে-বাইরে লাইফস্টাইল ফ্যাশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যবসায়ীদের জন্য অনেক বড় প্লাটফর্ম। আমরা সবসময় যুগান্তরের সঙ্গে আছি থাকব। অনেক অনেক অভিনন্দন ও শুভকামনা যুগান্তরকে।

নাইমুল হক খান

পরিচালক ও প্রধান ফ্যাশন ডিজাইনার, লুবনান

যখন চারদিকে সব ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও প্রিন্ট মিডিয়া বিভিন্নভাবে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছিল, তখন একমাত্র যুগান্তরই অনেকটা বস্তুনিষ্ঠ এবং গঠনমূলক সংবাদ প্রকাশ করেছে। এটি অনেক সাহসিকতা এবং চ্যালেঞ্জিং একটি কাজ। আমরা পাঠক সবসময়ই পত্রিকাগুলোর কাছে প্রত্যাশা করি সমালোচনামূলক, গঠনমূলক এবং বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ। সেদিক দিয়ে যুগান্তর পাঠকদের প্রত্যাশা নিঃসন্দেহে পূরণ করে চলেছে। ব্যবসায়ীদের জন্যও যুগান্তর অনেক বেশি সহযোগিতাপূর্ণ। যুগান্তরের কাছে প্রত্যাশা করব আগামীতেও যেন এভাবে এগিয়ে যায়।

আজমেরী হক বাঁধন

অভিনেত্রী

২১ বছর মানে দীর্ঘ একটি সময়। এত বছর একটি পত্রিকা রান করানো খুব কঠিন। যুগান্তর তা পেরেছে। সেজন্য প্রথমেই আমি যুগান্তরকে অভিনন্দন জানাই। যুগান্তর সবসময় চেষ্টা করে সত্য, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করতে। একজন মিডিয়াকর্মী হিসেবে এর উদাহরণ হিসেবে আমি বলব যুগান্তর মিডিয়াকর্মীদের নিয়ে কখনও অসত্য, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে না। অন্তত আমার ক্ষেত্রে আমি কখনও দেখিনি যুগান্তরে আমার সম্পর্কে অনাকাক্সিক্ষত, মিথ্যা নিউজ পরিবেশন করেছে। আমার সম্পর্কে স্পর্শকাতর যে কোনো নিউজ পরিবেশন করার আগে যুগান্তর সবসময় কথা বলে সত্যটা জেনে নেয়। আমাদের মিডিয়াকর্মীরা সবসময় যুগান্তরকে সাপোর্ট করে। আমাদের সম্পর্কে বস্তুনিষ্ঠ, সত্য সংবাদ প্রচার করে। আমি আশা করব, যুগান্তর সবসময় সহযোগিতা করবে আমাদের।

দিল আফরোজ সাইদা

শেফ ও এসেসর

যুগান্তর পরিবারের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও কলাকুশলী সবাইকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা, শুভকামনা ও অভিনন্দন। ঘরে বাইরে’র মডেল ও রেসিপি রাইটার হিসেবে আমি কাজ করেছি এবং এখনও করে যাচ্ছি নিয়মিত। আমার কাছে এখানে কাজ করার সবচেয়ে ভালো দিক হচ্ছে, স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ ও সবার আন্তরিক সহযোগিতা। যুগান্তরের পথচলা দীর্ঘদিনের। তাই আশা করি, আগামীতেও নতুন নতুন আঙ্গিকে কাজ করে যুগান্তরের অব্যাহত সুনাম ধরে রাখবে।

রিবা

মডেল

যুগান্তরের সঙ্গে আমি দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি। যুগান্তরের সঙ্গে আমার জার্নিটা সবসময়ই ভালো ছিল। যুগান্তর মিডিয়াকর্মীদের সঙ্গে অনেক বেশি কো-অপারেটিভ। আমরা যুগান্তরের কাছ থেকে সবসময়ই সহযোগিতা পেয়েছি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে অনেক অনেক শুভকামনা যুগান্তরের জন্য।

ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর

মডেল ও অভিনেত্রী

যুগান্তর অনেক পুরনো পত্রিকা এবং বাংলাদেশের অন্যতম একটি পত্রিকা। খুব ছোটবেলা থেকেই যুগান্তর পড়ছি। যুগান্তর আমার প্রিয় একটি পত্রিকা। আমি যুগান্তরের ঘরে-বাইরের সঙ্গে অনেক কাজ করেছি। লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের পর আমার প্রথম কাজ ছিল যুগান্তরে। তাই যুগান্তরের প্রতি আমার অন্যরকম টান, ভালোবাসা, ভালোলাগা অনুভব করি। যুগান্তর সবসময়ই ভালো লেখে। নিরপেক্ষ ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে। এভাবেই যুগান্তর আগামীতেও তাদের গুণগত মান ধরে রাখুক এটাই চাই। শুভকামনা যুগান্তরকে।

মুহাম্মদ মামুন চৌধুরী

সিইও আর্ট

ফ্যাশন আউটলেট আর্ট-এর পক্ষ থেকে যুগান্তর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে রইল শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা। যুগান্তরের সামাজিক, দায়িত্বশীল পদক্ষেপগুলো মানুষের উপকার হয়ে ধরা দিক। আমাদের আর্ট পরিবার যুগান্তরের কাছে, বিশেষ করে যুগান্তরের ফ্যাশন সেগমেন্ট ঘরে বাইরে’র কাছে বিশেষভাবে ঋণী। যুগান্তরের আগামীর পথচলা অব্যাহত থাক এবং মসৃণ হোক।

শেহতাজ মুনিরা হাশেম

মডেল ও অভিনেত্রী

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে যুগান্তরকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা জানাই। অতীতের মতো আগামীতেও যেন যুগান্তর ভালো ভালো নিউজ পরিবেশন করে পাঠকদের ভালোবাসা ধরে রাখতে পারে এ দোয়াই করি। জন্মদিনে অনেক অনেক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা যুগান্তর ও যুগান্তর পরিবারকে।

তোরশা

মডেল

১৯৯৯ সাল থেকে সত্য এবং মানুষের জন্য অবিরত কাজ করে যাচ্ছে যুগান্তর। যুগান্তরের ২১ বছরে পদার্পন যুগান্তর পরিবারকে জানাই অনাবিল শুভেচ্ছা ও শুভকামনা এবং পাঠকদের জানাই ভালোবাসা।

পূর্ণিমা বৃষ্টি

মডেল ও অভিনেত্রী

শুভ জন্মদিন যুগান্তর। ছোটবেলা থেকেই যুগান্তর আমার প্রিয় একটি পত্রিকা। ছোট থেকেই আমি যুগান্তরের ঘরে-বাইরে দেখে, তাদের কাজ, মডেলদের দেখে স্বপ্ন দেখতাম যুগান্তরে ফটোশুট করার। খুব করে চাইতাম যেন আমার প্রথম কাজটা যুগান্তরেই হয়। আমার স্বপ্ন সত্য হয়েছিল। আমার প্রথম ফটোশুট যুগান্তরেই হয়েছিল। তাই যুগান্তরের প্রতি আমার ভালোবাসা অন্যরকম। যুগান্তর পরিবারের প্রতিটি সদস্য আমার খুব প্রিয়। জন্মদিনে প্রিয় এ পরিবারকে জানাই অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা।

অহিদুল ইসলাম মিল্টন

প্রধান নির্বাহী, মেঘ

ফ্যাশনসচেতন মানুষ সব সময় নতুন নতুন পোশাকের খোঁজখবর রাখেন। আর ওই খোঁজখবর তাদের কাছে পৌঁছে দেয় যুগান্তর পত্রিকার লাইফস্টাইল সাময়িকী ‘ঘরে বাইরে’। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবসসহ দেশীয় বিভিন্ন উৎসব-পার্বণে তাদের থাকে বিশেষ আয়োজন। এসব আয়োজনের মাধ্যমে ফ্যাশনসচেতন পাঠক জানতে পারেন তার পছন্দের প্রয়োজনীয় পোশাক ও অন্য অনুষঙ্গের খবর। তাই ‘ঘরে বাইরে’ উদ্যোক্তা ও ক্রেতার সঙ্গে সেতু হিসেবে কাজ করছে। আর এর মাধ্যমে আমরা সবাই উপকৃত।

শওকত আরা সাঈদা (লোপা)

ডায়েটিশিয়ান

বস্তুনিষ্ঠ ও সাহসী সংবাদ প্রকাশ করে পাঠকদের মন জয় করা অত্যন্ত কঠিন কাজ। যুগান্তর এ কাজটি খুব দক্ষতার সঙ্গে করে যাচ্ছে। যুগান্তরের প্রতিটি বিভাগ মানসম্মত ও যুগোপযোগীভাবে সাজানো, যা মানুষের সচেতনতা বাড়াতে সাহায্য করছে। যুগান্তর পরিবারের অংশ হিসেবে কাজ করে সবার আন্তরিকতার পরিচয়ও পেয়েছি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে যুগান্তর পরিবারের সবাইকে আমার প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভকামনা।

আইরিন সুলতানা

মডেল ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী

যুগান্তরের সঙ্গে আমার অনেক কাজ করার সুযোগ হয়েছে। যুগান্তরের টিমওয়ার্ক আমার খুব পছন্দ। এভাবেই যুগান্তর আমাদের পাশে থাকুক। আরও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ নিয়ে হাজির হোক এ কামনা করছি।

তানিন তানহা

অভিনেত্রী ও মডেল

যুগান্তর আমার সেকেন্ড হোম। যুগান্তরে আমি ২০১৪ থেকে কাজ করছি। ভবিষ্যৎ যেন আরও বেশি কাজ করতে পারি এটাই চাওয়া। কাজের সময় যুগান্তরের কাছ থেকে অনেক বেশি সহযোগিতা পাই। যেটি খুব কম পত্রিকা থেকে পাই। অনেক অনেক ভালোবাসা ও শুভকামনা যুগান্তরের জন্য।

জিনাত সুলতানা

রন্ধন বিশেষজ্ঞ, শিল্পী, লেখিকা ও আবৃত্তিকার

যুগান্তরের সঙ্গে আমার প্রাণের সম্পর্ক। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে যুগান্তর আমার ও আমার মতো অগণিত পাঠকের মন জয় করেছে। দৈনিক পত্রিকা তো বটেই ফ্যাশন, লাইফস্টাইল, রূপচর্চা, রান্নাবান্না, কার্ভিং, ভ্রমণ, স্বাস্থ্য তথ্য প্রভৃতি দিয়ে সাজান যুগান্তরের সাপ্তাহিক ক্রোড়পত্র ‘ঘরে বাইরে’ আমার বিশেষ প্রিয়। ‘ঘরে বাইরে’-তে প্রকাশিত নারীর শাশ্বত রূপ, চাহিদা, স্বপ্ন, সংগ্রাম এবং সাফল্যগাঁথা আমার মতো স্বপ্নবাজ সব নারীদের জোগায় অনুপ্রেরণা। অনেক অনেক ভালোবাসা আর শুভকামনা যুগান্তরের জন্য।

সায়েম হাসান প্রিন্স

সিইও, ফ্যাশন হাউস ব্যাং

দেশের অন্যতম নান্দনিক দৈনিক যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ফ্যাশন আউটলেট ব্যাং-এর পক্ষ থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও ফুলেল শুভেচ্ছা। যুগান্তরের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনা এবং নাগরিক সুবিধার যুগান্তকারী পদক্ষেপগুলো অব্যাহত থাক। যুগান্তরের নিরন্তর পথচলার শুভকামনায়-

হাজী মুসলিম ডালি

স্বত্বাধিকারী ও ফ্যাশন ডিজাইনার, মুসলিম কালেকশন

নতুন বছরের আগমনে যুগান্তরের জন্য রইল অনেক অনেক শুভকামনা। সামনের দিনগুলোতে বছরের পর বছর যুগান্তরকে এভাবেই সাধারণ মানুষের কথা লিখছে- এমনটিই দেখতে চাই। নতুন বছর আরও অনেক সুন্দর হোক, আরও অনেক নতুন নতুন ফ্যাশনবিষয়ক কথা নিয়ে যুগান্তর আমাদের পাশে থাকুক, পাশে রাখুক- এটাই আশা করি। শুভ জন্মদিন যুগান্তর এবং যুগান্তরের পরিবারের সবাইকে।

বারিশ হক

মডেল

যুগান্তর আমার কাছে সব সময় একটি প্রিয় নাম। যুগান্তর তার নিজস্বতা দিয়ে পাঠকদের মনে জায়গা করে রেখেছে সব সময়। নতুন মুখদের জন্যও যুগান্তর খুব ভালো একটি প্ল্যাটফর্ম। যুগান্তরের পথচলা আরও সুন্দর হোক। আর নতুন আরও একটি বছরের আগমনে যুগান্তর পরিবারের সব সদস্যদের আমার পক্ষ থেকে রইল শুভকামনা। শুভ জন্মদিন যুগান্তর।

অর্ণব

মডেল

যুগান্তরের সঙ্গে পথচলা অনেক দিনের। যুগান্তরের এ পথচলা এভাবেই যেন চলতে থাকে- এমনটিই জন্মদিনে আমার চাওয়া। আর যুগান্তর সবার জন্যই একটি ভালো প্ল্যাটফর্ম। এখানে নতুনদের সুযোগ দেয়ার বিষয়টি আমার ভালো লাগার একটি কারণও। এছাড়া যুগান্তরের বিশেষ করে লাইফস্টাইল পাতা ঘরে বাইরে-এর প্রতিটি পাতা বেশ চমৎকারভাবে সাজান হয়। সামনের দিনগুলোতেও এভাবেই যুগান্তরের পথচলায় থাকতে চাই।

রাকিব হোসাইন

প্রধান নির্বাহী ও ডিজাইনার,

আর্টিজ্যান

পিছিয়ে নেই দেশীয় ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি। এ ইন্ডাস্ট্রির একজন উদ্যোক্তা হিসেবে প্রতিনিয়ত চেষ্টা করি ফ্যাশনপ্রিয় মানুষদের নতুন নতুন ডিজাইনের পোশাক উপহার দিতে। আর আমাদের এ চেষ্টাকে আরও গতিশীল করতে ও ফ্যাশনপ্রিয় মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে যুগান্তরের লাইফস্টাইল সাময়িকী ‘ঘরে বাইরে’। খাবারের রেসিপিসহ জীবনযাপনের নানা অনুষঙ্গ নিয়ে নানা আয়োজন, যা একজন পাঠকের জীবনযাপনকে সহজ ও আধুনিকায়ন করতে খুবই সহায়ক।

ইমরান

মডেল

যুগোপযোগী একটি গণমাধ্যম হচ্ছে যুগান্তর। আর এ পথচলা একুশ বছরে পা দিচ্ছে। নতুন এ বছরে তাই যুগান্তরের জন্য রইল অনেক অনেক শুভকামনা। যুগান্তর তার কাজ দিয়ে পাঠকদের কাছে এভাবেই থাকুক- এটাই চাই। এছাড়া যারা যুগান্তরে সামনে কিংবা পেছন থেকে কাজ করে যাচ্ছেন তাদেরও অনেক ধন্যবাদ। যুগান্তর সব সময় মানুষের হয়ে কথা বলে। পাঠকদের কথা তাদের লেখায় উঠে আসে। এভাবেই সামনের দিনেও খুব ভালো ভালো লেখা উপহার দেবে আমাদের যুগান্তর- এমনটিই আমরা চাই। আর অবশ্যই বলতে

চাই, শুভ জন্মদিন যুগান্তর।

জেসমিন জুঁই

মডেল

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যুগান্তরের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী ও কলা-কুশলীদের জানাই আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। ২১-এর মতোই যুগান্তর নির্ভীক সাহসিকতায় সত্যকে মেলে ধরবে সবার সম্মুখে, বস্তুনিষ্ঠ ও নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করবে এবং বরাবরের মতো আমরা মিডিয়াকর্মীরা যুগান্তরের সহযোগিতা পাব এ প্রত্যাশা করি।

শাহীন আহম্মেদ

যুগান্তরের লাইফস্টাইল ঘরে-বাইরের সঙ্গে আমি দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি। আজ ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির যে অবস্থান তাতে গণমাধ্যমের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। এক্ষেত্রে যুগান্তর পত্রিকার ঘরেবাইরে ব্যাপক ভূমিকা পালন করছে। ফ্যাশন বলতে কী বোঝায়, মানুষ কীভাবে ফ্যাশন সচেতন হবে, আগামীতে ফ্যাশনের ধারা কোন দিকে যাবে, কীভাবে মানুষ ফ্যাশন নিয়ে কাজ করবে- এ রকম অনেক কিছুই আমরা জানতে পারি যুগান্তর থেকে। সেজন্য একজন ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে আমি যুগান্তরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। আমরা চাই, যুগান্তর আরও অনেক বছর টিকে থাকুক। আগামী দিনগুলোতেও ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির পাশে থেকে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিকে বিকশিত করুক।

স্বত্বাধিকারী ও ফ্যাশন ডিজাইনার, অঞ্জন’স

শাহিনা আফরিন মৌসুমি

যুগান্তর সব স্তরের মানুষের কথা বলে। তাই যুগান্তরের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ থেকে শুরু করে যুগোপযোগী মানসম্মত লেখা সব সময়ই আমাকে আকৃষ্ট করে। নতুন বছরের এ পথচলা যাতে যুগ যুগ ধরে এভাবেই চলতে থাকে এটাই আশা করি। এছাড়া যুগান্তরের দেশীয় ফ্যাশন, ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি এবং দেশীয় শিল্প নিয়ে ঘরেবাইরে পাতার আয়োজন ভিন্ন ধর্মী। অন্যান্য গণমাধ্যম থেকে সব সময়ই যুগান্তর নিজেকে আলাদাভাবে উপস্থাপন করতে চায় সব সময়। আশা করি এভাবেই যুগান্তর এগিয়ে যাবে সামনের দিনগুলোতে আর পাঠকদের কাছে যুগান্তর তার স্থান ধরে রাখবে সব সময়।

হার্বস আয়ুর্বেদিক স্কিন কেয়রা অ্যান্ড ক্লিনারের কর্ণধার

আঞ্জুমান্দ জাহিদ সেতু

যুগান্তরের সঙ্গে আমার পথচলা ১১ বছর। যুগান্তরের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনা আমাকে আকৃষ্ট করে। ঘরে-বাইরের মাধ্যমে আমি আমার নিত্যনতুন রেসিপি সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে পেরেছি। ঘরে-বাইরের সুন্দর টিমওয়ার্কের মাধ্যমে পাঠক খুর্ঁজে পায় তার নতুন লাইফস্টাইল।

যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে রইল আমার অনেক শুভকামনা ও শুভেচ্ছা।

রন্ধনশিল্পী

অন্তু করিম

যুগান্তরের এ পথচলায় যুক্ত হল আরও একটি বছর। যুগান্তর এভাবেই সামনের দিকে এগিয়ে যাক এ শুভকামনা। অনেক পথ যুগান্তর পারি দিয়েছে, এভাবেই যাতে আরও যুগ যুগ পথ পারি দিতে পারে এ আশা রাখি। নতুন বছরের সঙ্গে সঙ্গে আরও অনেক নতুন কিছু আশা করি যুগান্তরের পাতায়। জন্মদিনের এক্ষণে তাই যুগান্তরকে জানাই অনেক অনেক শুভকামনা এবং ভালোবাসা। যুগান্তর এভাবেই পাশে থাকুক সব সময় এটাই কামনা।

মডেল

সিন্থিয়া

যুগান্তর আমার কাছে একটি পরিবার। যুগান্তর তার যে কোনো কাজই করে থাকে নান্দনিকতার ছোঁয়ায়। যুগান্তর সব সময় সত্যের সঙ্গে পথ চলে এসেছে। রূপচর্চা থেকে শুরু করে লাইফস্টাইলের সূক্ষ্ম সূক্ষ্ম বিষয় যুগান্তর তার লেখার মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছে চমৎকার ভাবে। তাই পাঠকপ্রিয়তার দিক থেকেও যুগান্তর এগিয়ে। নতুন দিনের পথচলাতে তাই আমার শুভকামনা রইল যুগান্তর পরিবারের জন্য। নতুন বছর হোক মঙ্গলময়, জন্মদিনে এটাই আমার কামনা।

ভ্যালেন্টিনা

বিপ্লব সাহা

যুগান্তরের জন্মলগ্ন থেকেই আমি যুগান্তর পরিবারের সঙ্গে সম্পৃক্ত। সুখে-দুঃখে আমরা একসঙ্গে কাজ করে চলেছি ২০টি বছর ধরে। আজ যুগান্তর ২১তম বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে। ২১তম জন্মদিন মানে যুগান্তর এখন টগবগে তরুণ। যুগান্তর এবং বিশ্বরঙের পরিবারের একসঙ্গে এতগুলো বছর ধরে কাজ করা নিঃসন্দেহে গর্বের, আনন্দের। আশা করি, যুগান্তর এবং বিশ্বরঙ একসঙ্গে আরও বহুযুগ কাজ করবে। আমি বিশ্বাস করি, যুগান্তর বরাবরের মতো মানুষের জ্ঞানের পরিসর, জানার পরিসর, সচেতনতার পরিসর সর্বোপরি সমৃদ্ধির পরিসর বৃদ্ধিতে আগামীতে আরও বেশি কাজ করবে। যুগান্তরের জন্য অনেক অনেক শুভকামনা।

ফ্যাশন ডিজাইনার ও কর্ণধার, বিশ্বরঙ

নুসরাত আক্তার লোপা

২১তম বছর পূর্তি উপলক্ষে যুগান্তরকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা। সত্য সুন্দর আর সঠিকের পথে যুগান্তর সব সময় ছিল। আমরা আশা করব, আগামীতেও থাকবে। সত্যকে আমাদের সামনে তুলে ধরতে যুগান্তরের ২০ বছরের এ প্রয়াস সত্যিই খুব প্রশংসনীয়। আগামীতে যুগান্তর পুরো বাংলাদেশকে আমাদের সামনে স্বচ্ছভাবে তুলে ধরবে- এ প্রত্যাশা করছি।

ফ্যাশন ডিজাইনার ও স্বত্বাধিকারী, হুর নুসরাত

আফরোজা খানম মুক্তা

যুগান্তরের ২১ বছরের পদার্পণ অনেক অনেক শুভ কামনা ও ভালোবাসা, শুভেচ্ছা নিরন্তর। সুন্দর সাফল্য মণ্ডিত ও আনন্দময় হোক আগামীর পথচলা। সুখ সমৃদ্ধিতে ভরে উঠুক যুগান্তর পরিবার। টুকরো ব্যর্থতা। বিলীন হোক বৃহৎ সফলতায়। পাশে আছি থাকবো চিরকাল এই প্রত্যয় ও প্রত্যাশা করি।

রন্ধনশিল্পী

রাহিমা সুলতানা রীতা

জন্মদিনে যুগান্তরকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। যুগান্তরের লাইফস্টাইল পাতায় মানুষের জীবনযাপনসহ, লাইফস্টাইলের অনেক বিষয় নিয়েই নিয়মিত লেখালেখি হয়। এতে আমরা এ বিষয়গুলোর অনেক খুঁটিনাটি দিক সম্পর্কে জানতে পারি, সচেতন হতে পারি। ব্যক্তিগতভাবে আমি চাই, যুগান্তর পত্রিকায় ফ্যাশন, সৌন্দর্য, শারীরিক স্বাস্থ্যের পাশাপাশি মানসিক স্বাস্থ্য নিয়েও নিয়মিত আলোচনা হউক। কারণ দিন দিন সমাজে ধর্ষণ, খুন, হানাহানিসহ নানা ধরনের বিপর্যয় দেখা দিচ্ছে। এতে আমরা সাধারণ মানুষরা প্রতিনিয়ত দুশ্চিন্তা, আতঙ্ক, হতাশায় নিমজ্জিত হচ্ছি। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে, মানসিকভাবে সুস্থ থাকতে শারীরিক স্বাস্থ্যের পাশাপাশি মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টিতেও গুরুত্ব দিতে হবে। এ সম্পর্কে জানতে হবে। যদিও যুগান্তরের মাঝে মাঝেই এ বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়, তবে আরও বড় পরিসরে যুগান্তর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে লেখালেখি করলে সাধারণ জনগণ অনেক বেশি উপকৃত হবে। ভবিষ্যতে যুগান্তর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে ব্যাপকভাবে কাজ করবে বলে প্রত্যাশা করছি।

রূপবিশেষজ্ঞ ও স্বত্বাধিকারী, হারমনি স্পা অ্যান্ড ক্লিওপেট্রা বিউটি স্যালন

নিরব

যুগান্তর অনেক ভালোবাসার একটি জায়গা। আরও নতুন একটি বছর নতুন একটি যাত্রা যুক্ত হচ্ছে যুগান্তরের পাতায়। দীর্ঘ এ পথচলা আর হাজার বিপত্তির মাঝেও যুগান্তর যেমন ছিল পাঠকদের কাছে প্রিয় একটি পত্রিকা তেমনি যাতে আরও যুগ যুগ ধরে থাকে তাই আশা করি। যুগান্তরের এ যাত্রায় সব সময় আমার শুভকামনা আছে এবং থাকবে। জন্মদিনে তাই যুগান্তরকে অনেক অনেক ভালোবাসা আর শুভ কামনা।

মডেল

গীতি বিল্লাহ

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যুগান্তরকে অনেক অনেক ভালোবাসা জানাচ্ছি। সৌন্দর্যবিষয়ক যারা কাজ করছে যুগান্তর তাদের জন্য অনেক বড় একটি প্ল্যাটফর্ম। আমাদের কাজগুলোকে আন্তরিকতার সঙ্গে তুলে ধরছে যুগান্তর। সব সময় আমাদের পাশে রেখেছে যুগান্তর। সেজন্য যুগান্তরকে জানাচ্ছি অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা। সেসঙ্গে যুগান্তরের দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

রূপবিশেষজ্ঞ ও স্বত্বাধিকারী, গীতি’স

কানিজ ফাতেমা রিপা

দৈনিক যুগান্তর, আমাদের দেশের শীর্ষ স্থানীয় জাতীয় দৈনিক পত্রিকাটি ২০ পেরিয়ে ২১ বছরে পর্দাপণ করতে যাচ্ছে। অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। সাফল্যের ধারা অব্যাহত থাকুক সামনের দিনগুলোতে। যুগান্তরের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি।

রন্ধন শিল্পী

আফরোজা পারভীন

আমার কাছে খুবই ভালো লাগছে, যুগান্তর ২১ বছরে পদাপর্ণ করছে। এটা একটি দীর্ঘসময়। কোয়ালিটি না থাকলে আমরা কেউই টিকে থাকতে পারি না। এটা আমরা সবাই জানি। যুগান্তর ২১ বছরে পদাপর্ণ করেছে। এর অর্থ যুগান্তর দীর্ঘসময় নিজেদের প্ল্যাটফর্ম সুন্দরভাবে ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। যুগান্তরের জন্য আমার অনেক অনেক শুভকামনা রইল। দোয়া করি, যুগান্তর তাদের এ অগ্রযাত্রা যুগ যুগ ধরে রাখুক এবং ভবিষ্যতে মানুষের কল্যাণে আরও বেশি বেশি কাজ করুক।

রূপবিশেষজ্ঞ ও সিইও, রেড বিউটি স্যালন

তৌফিক চৌধুরী

দেখতে দেখতে ২১ বছরে পা দিচ্ছে যুগান্তর। প্রথম থেকে খুব জনপ্রিয় ছিল যুগান্তর। আমার প্রিয় পত্রিকা। ইজি ফ্যাশন হাউসকে সব সময় সহযোগিতা করে এসেছে যুগান্তরের লাইফস্টাইল ট্যাবলয়েড ম্যাগাজিন ঘরেবাইরে। শুভ কামনা রইল যুগান্তরের প্রতি।

ফ্যাশন ডিজাইনার, ইজি

ফারহানা রুমি

যুগান্তর আমার পছন্দের অন্যতম পত্রিকা। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদের পাশাপাশি দেশের শিল্প-সংস্কৃতির নানা বিষয়াদি নিয়ে যুগান্তর সাধারণ মানুষের পাশে আছে সব সময়। ভবিষ্যতেও যুগান্তর সুস্থ ধারার বিনোদনধর্মী এবং বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রচারে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে- এটাই প্রত্যাশা করি। যুগান্তর ও যুগান্তর পরিবারের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসা ও শুভকামনা রইল।

বিউটি কন্সালটেন্ট ও স্বত্বাধিকারী, জারা’স বিউটি লাউঞ্জ

সৌমিক দাস

দেশের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির প্রসারে যুগান্তরের বড়োসড়ো ভূমিকা রয়েছে। যুগান্তর আমাদের কাজগুলো তাদের পত্রিকায় নিয়মিত তুলে ধরছে। এতে ক্রেতারা পণ্য সম্পর্কে যেমন জানতে পারছে তেমন অনেক ভুল ধারণা- যেমন দেশীয় পণ্য ফ্যাশন্যাবল নয়, কোয়ালিটি ভালো নয়, একঘেয়েমি রয়েছে- এ ধরণাগুলো যে সঠিক নয়, তাও বুঝতে পারছে। এজন্য আমি যুগান্তরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি এবং শুভকামনা জানাচ্ছি- পত্রিকাটি যেন দীর্ঘদিন ধরে এভাবেই সুনামের সঙ্গে কাজ করে যেতে পারে। যুগান্তর দীর্ঘজীবী হউক।

স্বত্বাধিকারী ও ডিজাইনার, রঙ বাংলাদেশ

খালিদ মাহমুদ খান

নতুন খবরের আকাঙ্ক্ষায় নতুন দিনের শুরুতে দৈনিক যুগান্তরের অপেক্ষায় থাকে লাখো মানুষ। পাঠকের প্রত্যাশা পূরণ করে যুগান্তর এগিয়ে চলুক যুগ থেকে যুগান্তরে। শুভকামনা রইল।

উদ্যোক্তা-কর্ণধার, কে-ক্রাফট

জুলিয়া আজাদ

যুগান্তরের উত্তরোত্তর সাফল্য ও সমৃদ্ধি কামনা করছি। জ্ঞানের পরিধি বৃদ্ধি, জীবনযাপনে স্বাচ্ছন্দ্য ও সমৃদ্ধিতে যুগান্তরের ভূমিকা অনস্বীকার্য। যুগান্তরের এ সফলতা এবং এর অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলে তা সমাজের প্রতিটি স্তরের মানুষের উপকারে আসবে বলে আমি বিশ্বাস করি। ইতিমধ্যে যুগান্তর আমাদের দেশের প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। ভবিষ্যতেও যুগান্তর দেশবাসীর ভালোবাসায় সিক্ত হবে বলে মনে করি। জন্মদিনে যুগান্তরের জন্য অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন রইল।

রূপ বিশেষজ্ঞ ও স্বত্বাধিকারী, আকাঙ্ক্ষা’স গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড

মন্নুজান নার্গিস

একুশ বছর মানে নতুন প্রাণের আলোড়ন। তারুণ্যের প্রবল শক্তিতেই একুশ পার হল দেশের অন্যতম জননন্দিত পত্রিকা যুগান্তর। নির্ভীক শব্দ চয়ন, ভাষার বলিষ্ঠ গাঁথুনি এবং দারুণ লেখনী দিয়ে যুগান্তর বরাবর নিজেকে সেরা হিসেবে প্রমাণ করেছে। শুধু সংবাদ লেখা নয়, ফ্যাশন এবং জীবনযাপনের প্রতিটি অঙ্গনে তরুণদের জয়গান গেয়েছে এই পত্রিকা। দেশের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং দেশের ফ্যাশন হাউসগুলোর প্রতি যুগান্তরের অকুণ্ঠ সমর্থন আমাদের সবসময় নতুন উদ্দীপনা দিয়েছে, নতুন কিছু করার সাহস জুগিয়েছে। তাই প্রিয় পত্রিকার একুশ বছর পূর্তিতে আনন্দিত লা রিভ পরিবারও। যুগান্তর হয়ে উঠুক তরুণের মেধা, মনন এবং স্বপ্ন প্রতিফলনের প্রধান মাধ্যম। এ প্রত্যাশা নিয়েই যুগান্তরের সর্বাঙ্গীণ সাফল্য কামনা করছি। প্রধান নির্বাহী পরিচালক, লা রিভ

আরিফা হোসেন

যুগান্তর ভালোবাসার একটি নাম। আর এ ভালোবাসার জায়গাটি আরও একটি নতুন বছরে পা দিচ্ছে। অনেক অনেক শুভকামনা আর ভালোবাসা রইল যুগান্তরের জন্য। যুগান্তর পরিবারের সবার জন্যও রইল শুভকামনা। যুগান্তর যাতে তার লেখনীর জাদুতে এভাবেই যুগ যুগ ধরে আমাদের মাঝে থাকতে পারে এটাই আশা করি। নতুন বছর অনেক অনেক নতুন চ্যালেঞ্জ আর আমাদের কথা নিয়ে যুগান্তর পরিপূর্ণতা পাক এটাই আমার আশা।

সাজাইয়ের কর্ণধার

আশরাফুর রহমান ফারুক

যুগান্তর আমার অনেক ভালোবাসার একটি পত্রিকা। দেশীয় ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির নানাবিধ সমস্যা এবং সমাধানগুলো তুলে ধরে যুগান্তর ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির প্রসারে অগ্রণী ভূমিকা রাখছে। যুগান্তর আগামীতেও চমৎকারভাবে তার এ ধারাটি অব্যাহত রাখবে বলে আমার বিশ্বাস। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে যুগান্তর এবং ঘরে-বাইরের জন্য রইল অনেক অনেক অভিনন্দন।

ডিজাইনার ও কর্ণধার, নিপুণ

কাজী কামরুল ইসলাম

একুশ বছরে পদার্পণ একটি লম্বা যাত্রার অংশ। এ যাত্রাপথে যুগান্তরের সঙ্গে থাকতে পেরে আমি আনন্দিত। আরও অনেক বছর অনেক যুগ-যুগান্তর এভাবেই আমাদের পাশে থাকুক, আমাদের কথা লেখার মাধ্যমে প্রকাশ করুক- এটাই আমার আশা। আর জন্মদিনে অনেক অনেক শুভকামনা রইল যুগান্তরের জন্য। যুগান্তরের লাইফস্টাইলবিষয়ক লেখাগুলো অনেক মানসম্মত। আশা করি, সামনের দিনে এভাবেই আমাদের পাশে যুগান্তরকে পাব তার লেখার মাঝে।

বানথাইয়ের চুলবিশেষজ্ঞ

অবাক

যুগান্তরের একুশ বছরে পদার্পণে অনেক অনেক শুভেচ্ছা এবং শুভকামনা। যুগান্তর যেমন করে পাশে আছে এমন করেই আরও যুগ যুগ ধরে সঙ্গে থাকবে এটাই আশা করি। এছাড়া যুগান্তর আমার পছন্দের একটি পত্রিকা। তাই সামনের দিনে যাতে যুগান্তর সব বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে সত্য এবং সঠিক সংবাদ নিয়ে সবার পাশে থাকতে পারে এ আশা রাখি।

মডেল

মনিরা মোস্তফা মিতা

সময়ের পরিক্রমায় ২০ বছর পূর্ণ করে ২১-এ পা দিল বাংলাদেশের জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা যুগান্তর। বহু ঘটনার, বহু দুর্ঘটনার, আনন্দপূর্ণ মুহূর্তের সবকিছুর সবিস্তার প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে পাঠকের মন জয় করে দীর্ঘ এ পথচলা আরও দীর্ঘতম হোক, আরও বেশি সাফল্য আসুক- এ প্রত্যাশা ও শুভেচ্ছা রইল।

রন্ধনশিল্পী

আফরোজা নাজনীন

যুগান্তর-এর বর্ষপূর্তিতে জানাই অফুরান শুভেচ্ছা। যুগান্তর এভাবেই সব সময় মানুষের মনের কথা বলুক, সাধারণ মানুষের পাশে থাকুক- সে কামনাই করছি। আগামী দিনের জন্য থাকল শুভকামনা।

রন্ধনশিল্পী

তানজিমা শারমিন মিউনী

মেকআপ, গেটআপ ও লেখনী যুগান্তরের ঘরে-বাইরে লাইফস্টাইল আকর্ষণীয় করে তুলেছে সবসময়। নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে কাজ করতে তাদের বিকল্প নেই। ২১তম বছরে প্রত্যাশা করি যুগান্তরের লাইফস্টাইল থাকুক চিরসজীব। নিত্যনতুন তথ্যসমৃদ্ধ হয়ে যুগান্তরের পথ চলা হোক মসৃণ। জয় করুক লাখো পাঠকের মন। যুগান্তরের সব কর্মীর প্রতি রইল শুভেচ্ছা।

স্বত্বাধিকারী ও বিউটি এক্সপার্ট, হেয়ারোবিক্স ব্রাইডাল

শারমিন লাকী

উপস্থাপক ও মডেল

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে যুগান্তরের সর্বাঙ্গীন শুভকামনা ও সফলতা কামনা করছি। যুগান্তর আরও যুগ-যুগান্তর টিকে থাকুক, নামের সার্থকতা ধরে রাখুক আর নিরপেক্ষ, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুক- এটাই চাই। আমার ভালোবাসা এবং আন্তরিক অভিনন্দন রইল যুগান্তর পরিবারের প্রতিটি সদস্যের জন্য।

এসএম খালেদ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক, স্নোটেক্স গ্রুপ

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ আর নির্ভীকতায় যুগান্তর বরাবরই এগিয়ে। সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে ঔজ্জ্বল্য ছড়ানোর যে কয়টি সংবাদপত্র রয়েছে, তার মধ্যে যুগান্তর একটি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যুগান্তরকে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা। সততা, স্বচ্ছতা এবং দেশীয় সংস্কৃতি বুকে ধারণ করে আপন সংস্কৃতির ধারায় পাঠকদের মন জয় করে যুগান্তর আরও এগিয়ে যাবে বলে আশা রাখছি।

শাহনাজ খান

সিইও ও ফ্যাশন ডিজাইনার, কে-ক্র্যাফট

যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কে-ক্র্যাফটের পক্ষ থেকে যুগান্তরকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন। দেশীয় পোশাকশিল্পকে জনপ্রিয় করে তুলতে যুগান্তর সবসময় যে ভূমিকা রাখছে তা প্রশংসনীয়। দেশীয় শিল্পকে বিকশিত করে তোলার প্রচেষ্টা আমাদের একটি আন্দোলন। এটি সফল করে তুলতে যুগান্তরের ঘরে বাইরে অগ্রণী ভূমিকা রাখছে। আমাদের বিভিন্ন কাজ ক্রেতাদের সামনে ইতিবাচকভাবে তুলে ধরছে। এটি ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির জন্য অনেক বড় একটি ব্যাপার। আগামীতেও যেন এ ধারা অব্যাহত থাকে যুগান্তরের কাছে এটাই আমাদের চাওয়া।

ইসরাত জাহান

উদ্যোক্তা ও প্রধান ডিজাইনার, দেশাল

যুগান্তরকে আমরা সব সময়ই ভিন্ন আঙ্গিকে পেয়েছি। যুগান্তরের সাহিত্য পাতা, ফিচার বিভাগ, লাইফস্টাইল আমার অনেক বছর ধরেই পছন্দের তালিকায় রয়েছে। আমি চাই, যুগান্তর এভাবেই নতুন নতুন উপস্থাপনা নিয়ে আমাদের সামনে হাজির হোক। যুগান্তরের অগ্রগতি অব্যাহত থাকুক আগামীতেও। যুগান্তর টিকে থাকুক যুগ-যুগান্তর ধরে।

শান্তনা রহমান

গ্লোরিয়াসের স্বত্বাধিকার এবং স্কিন অ্যান্ড হেয়ার এক্সপার্ট

যুগান্তরের জন্মদিনে একটাই প্রত্যাশা, যুগান্তর যাতে যুগ যুগ ধরে এভাবেই তার জায়গায় থেকে এগিয়ে যেতে পারে। নতুন বছরে পদার্পণের তাই যুগান্তরকে অনেক অনেক শুভকামনা। সামনের দিনগুলোতেও এভাবেই যুগান্তরের এগিয়ে চলা দেখতে চাই। এছাড়া যুগান্তরের একটি ভালো দিক হচ্ছে নতুন মুখদের জন্য জায়গা তৈরি করে দেয়া। যুগান্তরের লাইফস্টাইল পাতা ‘ঘরেবাইরেও’ বেশ নান্দনিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। সামনের দিনগুলোতে তাই যুগান্তরের পথচলা এভাবেই যাতে চলতে থাকে এটাই আশা করি।

আরও পড়ুন

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১২৩ ৩৩ ১২
বিশ্ব ১৩,১০,১০২২,৭৫,০৪০৭২,৫৫৭
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×