বাহারি সব নামে অপরাধ চক্র
jugantor
বাহারি সব নামে অপরাধ চক্র

   

০৩ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীতে নানা ধরনের বাহারি নামে একাধিক অপরাধী চক্র সক্রিয়। বাহারি নামের অপরাধী চক্রের মধ্যে আছে- অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টি, থুথু পার্টি, ধাক্কা পার্টি, সালাম পার্টি, টিপা পার্টি, নাড়া পার্টি, পা পাড়া পার্টি, ল্যাং মারা পার্টি, ঢিল পার্টি, হাফ প্যান্ট পার্টি, টানা পার্টি, ছোঁ মারা পার্টি, ডলার পার্টি ও লাগেজ পার্টি ইত্যাদি।

রাজধানীতে অন্তত এমন বিচিত্র সব নামের ডজনখানেকেরও বেশি অপরাধী চক্র সক্রিয় রয়েছে। রাজধানীতে বিভিন্ন সময়ে গ্রেফতার হওয়া অপরাধীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এমন নামের তালিকা পেয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

ঢাকা মহানগর পুলিশের বিভিন্ন টিম বাহারি নামের অপরাধীদের দমনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। জানা গেছে, অপরাধীদের এসব দলে ৫ থেকে ৭ জন সদস্য থাকে। যারা দলগতভাবে টার্গেট পূরণ করে। রাজধানীতে প্রায়ই পথচারী, রিকশা বা সিএনজি আরোহীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষজন এসব বাহারি নামের অপরাধী চক্রের খপ্পরে পড়ে।

মাদকাসক্ত, ছিঁচকে, টোকাই কিংবা দরিদ্র শ্রেণির অপরাধীরাই সাধারণত বাহারি নামের অপরাধী চক্রের সঙ্গে জড়িত। তবে এসব অপরাধে প্রাণহানি বা বড় ধরনের জখমের ঘটনা না ঘটায় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভুক্তভোগীরা থানা পুলিশের শরণাপন্ন হন না। ফলে পুলিশের কাছে তথ্য থাকে তুলনামূলক কম।

বাহারি সব নামে অপরাধ চক্র

  
০৩ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীতে নানা ধরনের বাহারি নামে একাধিক অপরাধী চক্র সক্রিয়। বাহারি নামের অপরাধী চক্রের মধ্যে আছে- অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টি, থুথু পার্টি, ধাক্কা পার্টি, সালাম পার্টি, টিপা পার্টি, নাড়া পার্টি, পা পাড়া পার্টি, ল্যাং মারা পার্টি, ঢিল পার্টি, হাফ প্যান্ট পার্টি, টানা পার্টি, ছোঁ মারা পার্টি, ডলার পার্টি ও লাগেজ পার্টি ইত্যাদি।

রাজধানীতে অন্তত এমন বিচিত্র সব নামের ডজনখানেকেরও বেশি অপরাধী চক্র সক্রিয় রয়েছে। রাজধানীতে বিভিন্ন সময়ে গ্রেফতার হওয়া অপরাধীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এমন নামের তালিকা পেয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

ঢাকা মহানগর পুলিশের বিভিন্ন টিম বাহারি নামের অপরাধীদের দমনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। জানা গেছে, অপরাধীদের এসব দলে ৫ থেকে ৭ জন সদস্য থাকে। যারা দলগতভাবে টার্গেট পূরণ করে। রাজধানীতে প্রায়ই পথচারী, রিকশা বা সিএনজি আরোহীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষজন এসব বাহারি নামের অপরাধী চক্রের খপ্পরে পড়ে।

মাদকাসক্ত, ছিঁচকে, টোকাই কিংবা দরিদ্র শ্রেণির অপরাধীরাই সাধারণত বাহারি নামের অপরাধী চক্রের সঙ্গে জড়িত। তবে এসব অপরাধে প্রাণহানি বা বড় ধরনের জখমের ঘটনা না ঘটায় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভুক্তভোগীরা থানা পুলিশের শরণাপন্ন হন না। ফলে পুলিশের কাছে তথ্য থাকে তুলনামূলক কম।