অভিমানে গান ছাড়ছেন সেলেনা গোমেজ
jugantor
অভিমানে গান ছাড়ছেন সেলেনা গোমেজ

  সাইফ ফয়সাল  

১৮ মার্চ ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেত্রী ও সংগীতশিল্পী সেলেনা গোমেজ। ‘বারনি অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’ টিভি সিরিজ দিয়ে শোবিজ দুনিয়ায় আত্মপ্রকাশ করলেও নিজের গান দিয়ে বেশি আলোচিত হয়েছেন এ তারকা। অবশ্য ছবিতেও অভিনয় করেন তিনি। ‘স্পাই কিডস থ্রিডি গেম ওভার’, ‘ওয়াকার টেক্সাস র‌্যাঙ্গার ট্রায়াল বাই ফায়ার’সহ ডিজনির ‘উইজার্ডস অফ ওয়েভার্লি প্লেস’ সিরিজের অন্যতম প্রধান চরিত্রেও তাকে দেখা গেছে। অভিনয়ের জীবনের বেশিরভাগ সময় কেটেছে ডিজনির সঙ্গেই। তবে গানের প্রতি তার আলাদা দুর্বলতা রয়েছে। ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি গানও করে গেছেন নিয়মিত। ‘কিস অ্যান্ড টেল নামে’ প্রকাশিত তার প্রথম অ্যালবাম ছিল সুপারহিট। শুধু তাই নয়, এটি বিলবোর্ডের সেরা ২০০ অ্যালবামের শীর্ষ দশে স্থান লাভ করে। তার দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘এ ইয়ার উইথআউট রেইন’ও বিলবোর্ডের শীর্ষ পাঁচে ছিল।

২০১১ সালে ‘হোয়েন দ্য সান গোজ ডাউন’ নামে একটি অ্যালবাম প্রকাশ করেন সেলেনা। এ অ্যালবামের ‘লাভ ইউ লাইক এ লাভসং’ গানটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে সে বছরই সেলেনার পরিচয় হয় তরুণ গায়ক জাস্টিন বিবারের সঙ্গে। নিজের বয়স থেকে দুই বছরের ছোট কানাডিয়ান এ পপ তারকার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তিনি। তখন অনেকে মনে করেছেন, এ সম্পর্ক গড়ার পেছনে সংসার সাজানোর পাশাপাশি গানও একটি বিশেষ উদ্দেশ্য ছিল হয়তো। তবে সেই আশায় গুড়েবালি। ৭ বছর পর ২০১৮ সালে এ সম্পর্ক ভেঙে যায়। সে সময় এক সাক্ষাৎকারে সেলেনা বলেছিলেন, ‘প্রেমের নামে তাকে আসলে মানসিকভাবে নির্যাতন করেছে বিবার’। সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পরও গান চালিয়ে গেছেন তিনি। সে সময় প্রকাশিত তার নতুন গান ‘লস ইউ টু লাভ মি’ বেশ জনপ্রিয়তাও পায়। শত প্রতিকূলতার মধ্যে গান ছাড়েননি সেলেনা। গানের প্রতি অসম্ভব দুর্বল মেয়েটি কিনা এবার গান ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন! কিন্তু কেন? চলতি বছর ‘ভোগ’ ম্যাগাজিনের এপ্রিল সংখ্যায় কাভার হন এ তারকা শিল্পী। নিজের ক্যারিয়ার ও সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘ আলোচনার ফাঁকে গান থেকেও দূরে সরে যাওয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন তিনি। সংগীত নিয়ে বেশ অভিমানের সুরে সেলেনা বলেন, ‘মানুষ কাজকে গুরুত্বের সঙ্গে না নিলে গান চালিয়ে যাওয়া সত্যিই কঠিন। আমার ক্যারিয়ারে এমন কিছু মুহূর্ত এসেছে যখন আমাকে গান নিয়ে জবাবদিহিও করতে হয়েছে। আমি মনে করি, আমার ক্যারিয়ারের সেরা গানগুলোর অন্যতম হচ্ছে ‘লুস ইউ টু লাভ মি’। কিন্তু দুঃখের বিষয়, কিছু মানুষের জন্য এ গানটিও যথেষ্ট নয়।’

২৮ বছর বয়সি সেলেনা তার ভক্তদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি জানি, আমার গানের অনেক শ্রোতা আছেন। আমার গানকে ভালোবাসেন। আমি সবার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। কিন্তু সত্যিই এবার সংগীত থেকে আমি অবসর নেব।’

অভিমানে গান ছাড়ছেন সেলেনা গোমেজ

 সাইফ ফয়সাল 
১৮ মার্চ ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেত্রী ও সংগীতশিল্পী সেলেনা গোমেজ। ‘বারনি অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’ টিভি সিরিজ দিয়ে শোবিজ দুনিয়ায় আত্মপ্রকাশ করলেও নিজের গান দিয়ে বেশি আলোচিত হয়েছেন এ তারকা। অবশ্য ছবিতেও অভিনয় করেন তিনি। ‘স্পাই কিডস থ্রিডি গেম ওভার’, ‘ওয়াকার টেক্সাস র‌্যাঙ্গার ট্রায়াল বাই ফায়ার’সহ ডিজনির ‘উইজার্ডস অফ ওয়েভার্লি প্লেস’ সিরিজের অন্যতম প্রধান চরিত্রেও তাকে দেখা গেছে। অভিনয়ের জীবনের বেশিরভাগ সময় কেটেছে ডিজনির সঙ্গেই। তবে গানের প্রতি তার আলাদা দুর্বলতা রয়েছে। ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি গানও করে গেছেন নিয়মিত। ‘কিস অ্যান্ড টেল নামে’ প্রকাশিত তার প্রথম অ্যালবাম ছিল সুপারহিট। শুধু তাই নয়, এটি বিলবোর্ডের সেরা ২০০ অ্যালবামের শীর্ষ দশে স্থান লাভ করে। তার দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘এ ইয়ার উইথআউট রেইন’ও বিলবোর্ডের শীর্ষ পাঁচে ছিল।

২০১১ সালে ‘হোয়েন দ্য সান গোজ ডাউন’ নামে একটি অ্যালবাম প্রকাশ করেন সেলেনা। এ অ্যালবামের ‘লাভ ইউ লাইক এ লাভসং’ গানটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে সে বছরই সেলেনার পরিচয় হয় তরুণ গায়ক জাস্টিন বিবারের সঙ্গে। নিজের বয়স থেকে দুই বছরের ছোট কানাডিয়ান এ পপ তারকার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তিনি। তখন অনেকে মনে করেছেন, এ সম্পর্ক গড়ার পেছনে সংসার সাজানোর পাশাপাশি গানও একটি বিশেষ উদ্দেশ্য ছিল হয়তো। তবে সেই আশায় গুড়েবালি। ৭ বছর পর ২০১৮ সালে এ সম্পর্ক ভেঙে যায়। সে সময় এক সাক্ষাৎকারে সেলেনা বলেছিলেন, ‘প্রেমের নামে তাকে আসলে মানসিকভাবে নির্যাতন করেছে বিবার’। সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পরও গান চালিয়ে গেছেন তিনি। সে সময় প্রকাশিত তার নতুন গান ‘লস ইউ টু লাভ মি’ বেশ জনপ্রিয়তাও পায়। শত প্রতিকূলতার মধ্যে গান ছাড়েননি সেলেনা। গানের প্রতি অসম্ভব দুর্বল মেয়েটি কিনা এবার গান ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন! কিন্তু কেন? চলতি বছর ‘ভোগ’ ম্যাগাজিনের এপ্রিল সংখ্যায় কাভার হন এ তারকা শিল্পী। নিজের ক্যারিয়ার ও সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘ আলোচনার ফাঁকে গান থেকেও দূরে সরে যাওয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন তিনি। সংগীত নিয়ে বেশ অভিমানের সুরে সেলেনা বলেন, ‘মানুষ কাজকে গুরুত্বের সঙ্গে না নিলে গান চালিয়ে যাওয়া সত্যিই কঠিন। আমার ক্যারিয়ারে এমন কিছু মুহূর্ত এসেছে যখন আমাকে গান নিয়ে জবাবদিহিও করতে হয়েছে। আমি মনে করি, আমার ক্যারিয়ারের সেরা গানগুলোর অন্যতম হচ্ছে ‘লুস ইউ টু লাভ মি’। কিন্তু দুঃখের বিষয়, কিছু মানুষের জন্য এ গানটিও যথেষ্ট নয়।’

২৮ বছর বয়সি সেলেনা তার ভক্তদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি জানি, আমার গানের অনেক শ্রোতা আছেন। আমার গানকে ভালোবাসেন। আমি সবার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। কিন্তু সত্যিই এবার সংগীত থেকে আমি অবসর নেব।’

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন