মেট্রোরেলের স্টেশনের জন্য গাছ কাটায় ক্ষুব্ধ ঢাবি শিক্ষার্থীরা

  ঢাবি প্রতিনিধি ১৮ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

মেট্রোরেলের বিশাল কর্মযজ্ঞের কারণে দফায় দফায় কাটা হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুটপাতের বেশ কিছু গাছ। আর এতে বড় ধরনের পরিবেশ বিপর্যয় ঘটতে পারে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার। ফলে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় কারাস ভবন থেকে শুরু করে পুষ্টি ইন্সটিটিউট পর্যন্ত রাস্তার পাশের অনেকগুলো গাছ কেটে ফেলা হয়েছে।

মূলত ওই স্থানে মেট্রোরেলের স্টেশন তৈরি করার জন্য গাছ কাটা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী। করোনা মহামারীর কারণে বন্ধ রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। এই বন্ধের মধ্যেও গাছ কাটার প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ জানাচ্ছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

পাশাপাশি আজ বেলা ১১টায় ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ কর্মসূচি ডেকেছে বাংলদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টও অনলাইন কর্মসূচি দেয়ার কথা ভাবছে বলে জানা গেছে।

গাছ কাটার প্রতিবাদ জানিয়ে ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সাখাওয়াত ফাহাদ যুগান্তরকে বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রকৃতিকে রক্ষার জন্য নানা ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে। কিন্তু সেখানে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন প্রকৃতিকে ধ্বংস করার খেলায় মেতে উঠেছে। আমরা শুরু থেকে মেট্রোরেলের রুট পরির্তনের দাবি জানিয়েছি।

কিন্তু সরকার বা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের কথা শোনেনি। তারই ফলশ্রুতিতে এখন গাছ কাটা হচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সালমান সিদ্দিকী বলেন, শুরু থেকেই পরিবেশের কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর দিয়ে মেট্রোরেল নির্মাণের বিরোধিতা করেছিল শিক্ষার্থীরা। কেন এর বিরোধিতা করা হয়েছিল, তা এখন গাছ কেটে পরিবেশের ক্ষতি করার মাধ্যমে দৃশ্যমান। আমরা এর প্রতিবাদে অনলাইন কর্মসূচি দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত