স্টার্টআপদের দক্ষতা বাড়াতে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতা
jugantor
স্টার্টআপদের দক্ষতা বাড়াতে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতা

  সাইফ আহমাদ  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘লেটস স্টার্ট ইউ আপ’- স্লোগান নিয়ে স্টার্টআপদের জ্ঞান ও দক্ষতা বাড়ানোর লক্ষ্যে বাংলাদেশ-দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ উদ্যোগে শুরু হতে যাচ্ছে ‘আইডিয়াথন’ নামের প্রতিযোগিতা।

১৯ সেপ্টেম্বর অনলাইন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে। এর সহ-আয়োজক হিসেবে রয়েছে- কোরিয়া প্রোডাক্টিভিটি সেন্টার (কেপিসি) ও কোরিয়া ইনভেনশন প্রমোশন অ্যাসোসিয়েশন (কাইপা)। এছাড়া বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) ও দক্ষিণ কোরিয়ার মিনিস্ট্রি অব জাস্টিস এবং গ্লোবাল স্টার্টআপ ইমিগ্রেশন সেন্টার এ আয়োজনের সহযোগিতায় থাকছে।

শনিবার থেকে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম করা হয়েছে। দেশের সব বিভাগেই প্রচারণাসহ অনলাইনে ক্যাম্পেইন আয়োজন করা হবে। এ ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে দেশের প্রায় ৩০টির বেশি সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাই এবং বেসিস, বাক্য, বিসিএস, ই-ক্যাব, আইএসপিএবি-সহ বিভিন্ন ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনকে সংযুক্ত করা হচ্ছে।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক আগ্রহী স্টার্টআপদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। কোনো ব্যক্তি এককভাবে এতে অংশ নিতে পারবেন না। একটি দলে দলনেতাসহ সর্বনিম্ন ২ এবং সর্বোচ্চ ৪ জন সদস্য অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে বয়স ২২ থেকে ৩৯ বছরের মধ্যে হতে হবে। আইডিয়াথনে অংশ নেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশনের শেষ তারিখ আগামী ২১ নভেম্বর, ২০২০। রেজিস্ট্রেশনের জন্য ভিজিট করতে হবে: http://ideathon.startupbangladesh.gov.bd।

প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত বাছাই শেষে সেরা ৫ উদ্ভাবনী স্টার্টআপকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হবে। বিজয়ীরা পাবে দক্ষিণ কোরিয়াতে ৬ মাসের বিশেষ প্রশিক্ষণ, ইনকিউবেশন, ফান্ডিং, আন্তর্জাতিক পেটেন্টসহ কপিরাইট ও ট্রেডমার্ক পাওয়ার সহযোগিতা। এছাড়া সেরা ২৫টি টিম পাবে বিশেষ মেন্টরিং ও সম্মাননাপত্র।

স্টার্টআপদের দক্ষতা বাড়াতে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতা

 সাইফ আহমাদ 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘লেটস স্টার্ট ইউ আপ’- স্লোগান নিয়ে স্টার্টআপদের জ্ঞান ও দক্ষতা বাড়ানোর লক্ষ্যে বাংলাদেশ-দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ উদ্যোগে শুরু হতে যাচ্ছে ‘আইডিয়াথন’ নামের প্রতিযোগিতা।

১৯ সেপ্টেম্বর অনলাইন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে। এর সহ-আয়োজক হিসেবে রয়েছে- কোরিয়া প্রোডাক্টিভিটি সেন্টার (কেপিসি) ও কোরিয়া ইনভেনশন প্রমোশন অ্যাসোসিয়েশন (কাইপা)। এছাড়া বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) ও দক্ষিণ কোরিয়ার মিনিস্ট্রি অব জাস্টিস এবং গ্লোবাল স্টার্টআপ ইমিগ্রেশন সেন্টার এ আয়োজনের সহযোগিতায় থাকছে।

শনিবার থেকে আইডিয়াথন প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম করা হয়েছে। দেশের সব বিভাগেই প্রচারণাসহ অনলাইনে ক্যাম্পেইন আয়োজন করা হবে। এ ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে দেশের প্রায় ৩০টির বেশি সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাই এবং বেসিস, বাক্য, বিসিএস, ই-ক্যাব, আইএসপিএবি-সহ বিভিন্ন ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনকে সংযুক্ত করা হচ্ছে।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক আগ্রহী স্টার্টআপদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। কোনো ব্যক্তি এককভাবে এতে অংশ নিতে পারবেন না। একটি দলে দলনেতাসহ সর্বনিম্ন ২ এবং সর্বোচ্চ ৪ জন সদস্য অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে বয়স ২২ থেকে ৩৯ বছরের মধ্যে হতে হবে। আইডিয়াথনে অংশ নেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশনের শেষ তারিখ আগামী ২১ নভেম্বর, ২০২০। রেজিস্ট্রেশনের জন্য ভিজিট করতে হবে: http://ideathon.startupbangladesh.gov.bd।

প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত বাছাই শেষে সেরা ৫ উদ্ভাবনী স্টার্টআপকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হবে। বিজয়ীরা পাবে দক্ষিণ কোরিয়াতে ৬ মাসের বিশেষ প্রশিক্ষণ, ইনকিউবেশন, ফান্ডিং, আন্তর্জাতিক পেটেন্টসহ কপিরাইট ও ট্রেডমার্ক পাওয়ার সহযোগিতা। এছাড়া সেরা ২৫টি টিম পাবে বিশেষ মেন্টরিং ও সম্মাননাপত্র।