সহকর্মীর স্ত্রীকে ‘ধর্মবোন’ ডেকে ধর্ষণ

টাঙ্গাইলে শতবর্ষী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর গ্রেফতার * সাভারে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সহকর্মীর স্ত্রীকে ‘ধর্মবোন’ ডেকে ধর্ষণ

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে সহকর্মীর স্ত্রীকে ‘ধর্মবোন’ ডেকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা গৃহবধূ বাদী হয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা করেছেন।

টাঙ্গাইলে শতবর্ষী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সাভারে বিয়ের প্রলোভনে এক কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়। এতে ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় মামলা হলে পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) : ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ জানান, তার স্বামী দৌলতদিয়ায় একটি হোটেলে কাজ করেন। দৌলতদিয়া ইউনিয়নের আয়নাল মাতুব্বরেরপাড়া গ্রামের ইয়াছিন খার ছেলে অভিযুক্ত রোকন খাও একই হোটেলে কাজ করেন। একসঙ্গে কাজ করায় তার স্বামীর সঙ্গে মাঝে মধ্যে রোকন তাদের বাসায় আসা যাওয়া করতেন। একপর্যায়ে রোকন ওই গৃহবধূকে ‘ধর্মবোন’ ডেকে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ করেন। ১৪ মে রাত সাড়ে ৯টার দিকে রোকন গৃহবধূর ঘরে ঢুকে জানতে পারেন তার স্বামী বাসায় নেই। এই সুযোগে সে ওড়না দিয়ে গৃহবধূর মুখ বেঁধে তাকে ধর্ষণ করেন। পরে তিনি রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন। ৪ দিন হাসপাতালে থাকার পর ১৯ মে ছাড়া পান। এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, অভিযুক্ত রোকনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

টাঙ্গাইল: মধুপুরে শতবর্ষী এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক কিশোরকে (১৫) আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ধর্ষণের শিকার ওই বৃদ্ধা ডাক্তারি পরীক্ষার পর আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। গ্রেফতার হওয়া কিশোরও দিয়েছে জবানবন্দি।

মধুপুর থানার ওসি তারিক কামাল জানান, সোমবার দুপুরে উপজেলার ফুলবাগচালা ইউনিয়নের আঙ্গারিয়া গ্রামের বাড়িতে ওই বৃদ্ধাকে একা পেয়ে ওই কিশোর ধর্ষণ করে।

পরে ওই বৃদ্ধার ছেলে বাড়ি ফিরলে তিনি ছেলের কাছে ঘটনা বলেন। বৃদ্ধার ছেলে জানান, প্রথমে লোকলজ্জার ভয়ে তিনি বিষয়টি নিয়ে মামলা মোকদ্দমা না করে ধর্ষকের বাবা-মায়ের কাছে বিচার দেন। পরে এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হলে মধুপুর থানার পুলিশ খোঁজ নিতে বুধবার বৃদ্ধার বাড়িতে যায়।

পরে বুধবার রাতে বৃদ্ধার ছেলে বাদী হয়ে মধুপুর থানায় মামলা করেন। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সোহেলকে গ্রেফতার করে।

আশুলিয়া (ঢাকা) : বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্ত কাউছার ইসলাম শাহীনকে গ্রেফতার করেছে। বুধবার রাতে মামলার পর মধ্য রাতে হেমায়েতপুরের আর্জেন্টপাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার এজাহারে জানা যায়, আর্জেন্টপাড়া এলাকার ওই কিশোরীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে অভিযুক্ত শাহীন। একপর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ওই কিশোরী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ায় শাহীনকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। এরপর ভুক্তভোগী কিশোরী বুধবার সাভার মডেল থানায় মামলা করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×