কনক সারওয়ার গোল্ডেন মনিরসহ ৩৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব
jugantor
কনক সারওয়ার গোল্ডেন মনিরসহ ৩৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব

  মনির হোসেন  

২৪ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রবাসী সাংবাদিক কনক সারওয়ার, দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার ‘গোল্ডেন’ মনির ও সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর দেলোয়ারসহ ৩৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে। বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্ট ইউনিট (বিএফআইইউ) থেকে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো চিঠিতে রোববার এই হিসাব তলব করা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, আরও যাদের হিসাব তলব করা হয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছে- প্রবাসী সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেন, শেখ মহিউদ্দিন আহমেদ, পিনাকী ভট্টাচার্য, সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান, শিপন কুমার বসু, ড. তুহিন মালিক, মির জাহান, সানিউর রহমান, রবীন্দ্র ঘোষ, গবিন্দ্র চন্দ্র প্রামাণিক, একেএম ওয়াহিদুজ্জামান, আসাদুজ্জামান নূর এবং আসিফ মহিউদ্দিন।

এছাড়াও পৃথক আরও ৪টি চিঠিতে আরও ১৮ ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠানের হিসাব চাওয়া হয়েছে। এরা হলেন- সুস্মিতা সাহানা জামান, মোছা. সেলিনা খাতুন, জিন্নাত রহমান, নাজিয়া রহমান, মো. পারভেজ রানা, মো. সাইদুর রহমান, রবিউল ইসলাম, মীর মো. কাইজার হোসেন, মো. আবদুল বারিক সরকার, বেগম সামছুন্নাহার, বেগম আনার কলি, মো. সোহানুর রহমান, সেতারা পারভীন, রেক্টো লিমিটেড, ফেরদৌসী বেগম, মো. আল আমিন, শারমিন আক্তার, মো. ইসহাক এবং সুরুজ মিয়া।

কনক সারওয়ারবিএফইউর চিঠিতে এসব ব্যক্তি, তাদের নামে প্রতিষ্ঠানসহ সংশ্লিষ্ট সব ধরনের হিসাব তলব করা হয়েছে। এক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে সর্বশেষ লেনদেন, কেওয়াইসি ফরম এবং ট্রান্সজেকশনের প্রোফাইল চাওয়া হয়েছে। সাধারণ মানিলন্ডারিং নিয়ে কাজ করে বিএফআইইউ। তবে কেন তাদের হিসাব তলব করা হয়েছে সে ব্যাপারে মুখ খুলতে রাজি নন সংশ্লিষ্টরা।

কনক সারওয়ার গোল্ডেন মনিরসহ ৩৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব

 মনির হোসেন 
২৪ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রবাসী সাংবাদিক কনক সারওয়ার, দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার ‘গোল্ডেন’ মনির ও সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর দেলোয়ারসহ ৩৫ জনের ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে। বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্ট ইউনিট (বিএফআইইউ) থেকে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো চিঠিতে রোববার এই হিসাব তলব করা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, আরও যাদের হিসাব তলব করা হয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছে- প্রবাসী সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেন, শেখ মহিউদ্দিন আহমেদ, পিনাকী ভট্টাচার্য, সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান, শিপন কুমার বসু, ড. তুহিন মালিক, মির জাহান, সানিউর রহমান, রবীন্দ্র ঘোষ, গবিন্দ্র চন্দ্র প্রামাণিক, একেএম ওয়াহিদুজ্জামান, আসাদুজ্জামান নূর এবং আসিফ মহিউদ্দিন।

এছাড়াও পৃথক আরও ৪টি চিঠিতে আরও ১৮ ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠানের হিসাব চাওয়া হয়েছে। এরা হলেন- সুস্মিতা সাহানা জামান, মোছা. সেলিনা খাতুন, জিন্নাত রহমান, নাজিয়া রহমান, মো. পারভেজ রানা, মো. সাইদুর রহমান, রবিউল ইসলাম, মীর মো. কাইজার হোসেন, মো. আবদুল বারিক সরকার, বেগম সামছুন্নাহার, বেগম আনার কলি, মো. সোহানুর রহমান, সেতারা পারভীন, রেক্টো লিমিটেড, ফেরদৌসী বেগম, মো. আল আমিন, শারমিন আক্তার, মো. ইসহাক এবং সুরুজ মিয়া।

কনক সারওয়ারবিএফইউর চিঠিতে এসব ব্যক্তি, তাদের নামে প্রতিষ্ঠানসহ সংশ্লিষ্ট সব ধরনের হিসাব তলব করা হয়েছে। এক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে সর্বশেষ লেনদেন, কেওয়াইসি ফরম এবং ট্রান্সজেকশনের প্রোফাইল চাওয়া হয়েছে। সাধারণ মানিলন্ডারিং নিয়ে কাজ করে বিএফআইইউ। তবে কেন তাদের হিসাব তলব করা হয়েছে সে ব্যাপারে মুখ খুলতে রাজি নন সংশ্লিষ্টরা।