ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী খুন
jugantor
ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী খুন

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন ইরানের ঊর্ধ্বতন পরমাণু বিজ্ঞানী মহসেন ফাখরিজাদেহ। ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ খবর নিশ্চিত করেছে। ইরানের গণমাধ্যম বলছে, সশস্ত্র ঘাতকরা মহসেনের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আহতাবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেয়ার পর তিনি মারা যান।

মহসেন ইরানে গোপন পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচির হোতা বলে পশ্চিমা গোয়েন্দা সংস্থাগুলো দীর্ঘদিন থেকেই সন্দেহ করে এসেছে। কূটনৈতিকরা তাকে ‘ইরানের বোমার জনক’ আখ্যা দিয়েছিলেন। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভাদ জারিফ মহসেন হত্যার ঘটনাকে ‘রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস’ বলে নিন্দা করেছেন।

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গণযোগাযোগ বিভাগ জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় তেহরানের অদূরে দামাভান্দ কাউন্টির আবসার্দ শহরের একটি সড়কে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ফাখরিজাদেকে বহনকারী গাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় ইরানের এই পদার্থবিজ্ঞানীর দেহরক্ষীদের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষ হয় এবং মোহসেন ফাখরিজাদে গুরুতর আহত হন। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ইরানের আধা সরকারি বার্তা সংস্থা ফার্স নিউজ জানিয়েছে, সন্ত্রাসীরা প্রথমে একটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় এবং এরপর ঘটনাস্থল থেকে ব্রাশফায়ারের শব্দ শোনা যায়।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ এ বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি ফাখরিজাদের পরিবার, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনি এবং ইরানি জনগণকে শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।

ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির প্রধান কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি তার দেশের এ বিশিষ্ট পদার্থবিজ্ঞানীর হত্যাকাণ্ডের খবর নিশ্চিত করে প্রতিশোধ গ্রহণের হুমকি দিয়েছেন। তিনি এ হত্যাকাণ্ডের জন্য ইহুদিবাদীদের দায়ী করে এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, ‘ইহুদিবাদীরা আমাদের পরমাণু বিজ্ঞানীদের হত্যা করছে। তবে শুধু তাদেরই জানা আছে আমরা এ ধরনের হত্যাকাণ্ডের প্রতিশোধ কোথায় নিয়েছি। আমরা এসব কথা ঘোষণা করি না কিন্তু ইহুদিবাদীরা তা ভালো করেই জানে। আমরা সাম্প্রতিক অতীতে দেখিয়ে দিয়েছি শত্রুর কোনো বিদ্বেষী পদক্ষেপেরই জবাব দিতে আমরা ছাড়ি না।’

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী খুন

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন ইরানের ঊর্ধ্বতন পরমাণু বিজ্ঞানী মহসেন ফাখরিজাদেহ। ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ খবর নিশ্চিত করেছে। ইরানের গণমাধ্যম বলছে, সশস্ত্র ঘাতকরা মহসেনের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আহতাবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেয়ার পর তিনি মারা যান।

মহসেন ইরানে গোপন পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচির হোতা বলে পশ্চিমা গোয়েন্দা সংস্থাগুলো দীর্ঘদিন থেকেই সন্দেহ করে এসেছে। কূটনৈতিকরা তাকে ‘ইরানের বোমার জনক’ আখ্যা দিয়েছিলেন। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভাদ জারিফ মহসেন হত্যার ঘটনাকে ‘রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস’ বলে নিন্দা করেছেন।

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গণযোগাযোগ বিভাগ জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় তেহরানের অদূরে দামাভান্দ কাউন্টির আবসার্দ শহরের একটি সড়কে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ফাখরিজাদেকে বহনকারী গাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় ইরানের এই পদার্থবিজ্ঞানীর দেহরক্ষীদের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষ হয় এবং মোহসেন ফাখরিজাদে গুরুতর আহত হন। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ইরানের আধা সরকারি বার্তা সংস্থা ফার্স নিউজ জানিয়েছে, সন্ত্রাসীরা প্রথমে একটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় এবং এরপর ঘটনাস্থল থেকে ব্রাশফায়ারের শব্দ শোনা যায়।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ এ বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি ফাখরিজাদের পরিবার, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনি এবং ইরানি জনগণকে শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।

ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির প্রধান কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি তার দেশের এ বিশিষ্ট পদার্থবিজ্ঞানীর হত্যাকাণ্ডের খবর নিশ্চিত করে প্রতিশোধ গ্রহণের হুমকি দিয়েছেন। তিনি এ হত্যাকাণ্ডের জন্য ইহুদিবাদীদের দায়ী করে এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, ‘ইহুদিবাদীরা আমাদের পরমাণু বিজ্ঞানীদের হত্যা করছে। তবে শুধু তাদেরই জানা আছে আমরা এ ধরনের হত্যাকাণ্ডের প্রতিশোধ কোথায় নিয়েছি। আমরা এসব কথা ঘোষণা করি না কিন্তু ইহুদিবাদীরা তা ভালো করেই জানে। আমরা সাম্প্রতিক অতীতে দেখিয়ে দিয়েছি শত্রুর কোনো বিদ্বেষী পদক্ষেপেরই জবাব দিতে আমরা ছাড়ি না।’