জিআই সনদ পেল বাগদা চিংড়ি
jugantor
জিআই সনদ পেল বাগদা চিংড়ি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৮ মে ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য হিসাবে এবার জিওগ্রাফিক্যাল ইন্ডিকেশন (জিআই সনদ) পেল বাগদা চিংড়ি। সম্প্র্রতি পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর এ স্বীকৃতি প্রদান করে। অধিদপ্তরের রেজিস্ট্রার জনেন্দ্র নাথ সরকার গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দশম পণ্য হিসাবে ভৌগোলিক নির্দেশক সনদ পেয়েছে বাগদা চিংড়ি। ২৪ এপ্রিল আনুষ্ঠানিকভাবে নিবন্ধন সনদ দেওয়া হয়। এর সঙ্গে ফজলি আমও সনদ পাওয়ার কথা ছিল, সেটি এখনও শুনানি পর্যায়ে রয়েছে।

দেশের সুন্দরবন এলাকায় কালো ডোরাকাটা বাগদা চিংড়ির চাষ শুরু প্রায় শত বছর আগে। গত শতকের সত্তরের দশকের পর বিশ্ববাজারে চাহিদা বাড়তে শুরু করলে বাংলাদেশেও বাগদা চাষের সম্প্র্রসারণ ঘটে। আশির দশকে বাংলাদেশের রপ্তানিপণ্যের তালিকায় যুক্ত হয় এ চিংড়ি। ২০১৯ সালের মে মাসে মৎস্য অধিদপ্তর জিআই স্বীকৃতির জন্য আবেদন করে। গত বছরের ৬ অক্টোবর সরকারের পেটেন্ট ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর গেজেট জারি করে এবং দুটি আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশ করে। নিয়ম অনুযায়ী জার্নালে প্রকাশের দুই মাসের মধ্যে কেউ আপত্তি না করলে সেই পণ্যের জিআই সনদ পেতে বাধা থাকে না।

জিআই সনদ পেল বাগদা চিংড়ি

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৮ মে ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য হিসাবে এবার জিওগ্রাফিক্যাল ইন্ডিকেশন (জিআই সনদ) পেল বাগদা চিংড়ি। সম্প্র্রতি পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর এ স্বীকৃতি প্রদান করে। অধিদপ্তরের রেজিস্ট্রার জনেন্দ্র নাথ সরকার গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দশম পণ্য হিসাবে ভৌগোলিক নির্দেশক সনদ পেয়েছে বাগদা চিংড়ি। ২৪ এপ্রিল আনুষ্ঠানিকভাবে নিবন্ধন সনদ দেওয়া হয়। এর সঙ্গে ফজলি আমও সনদ পাওয়ার কথা ছিল, সেটি এখনও শুনানি পর্যায়ে রয়েছে।

দেশের সুন্দরবন এলাকায় কালো ডোরাকাটা বাগদা চিংড়ির চাষ শুরু প্রায় শত বছর আগে। গত শতকের সত্তরের দশকের পর বিশ্ববাজারে চাহিদা বাড়তে শুরু করলে বাংলাদেশেও বাগদা চাষের সম্প্র্রসারণ ঘটে। আশির দশকে বাংলাদেশের রপ্তানিপণ্যের তালিকায় যুক্ত হয় এ চিংড়ি। ২০১৯ সালের মে মাসে মৎস্য অধিদপ্তর জিআই স্বীকৃতির জন্য আবেদন করে। গত বছরের ৬ অক্টোবর সরকারের পেটেন্ট ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর গেজেট জারি করে এবং দুটি আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশ করে। নিয়ম অনুযায়ী জার্নালে প্রকাশের দুই মাসের মধ্যে কেউ আপত্তি না করলে সেই পণ্যের জিআই সনদ পেতে বাধা থাকে না।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন