পা দিয়ে লিখে জেএসসি দিচ্ছে সঞ্জু দাস

  ইমাম হাসান ইমা, আড়াইহাজার থেকে ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:০২ | অনলাইন সংস্করণ

পা দিয়ে লিখে জেএসসি দিচ্ছে সঞ্জু দাস
সঞ্জু দাস। ছবি: যুগান্তর

জন্ম থেকে দুই হাত না থাকলেও স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন সঞ্জু দাস। শক্তি, মনোবল ও অদম্য সাহসের কাছে হার মেনেছে তার প্রতিবন্ধকতা। দুই হাত নেই। তাই পা দিয়ে লিখে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা দিচ্ছে সে।

নরসিংদী সদর উপজেলার কান্দাইল গ্রামের চিত্ত দাসের ছেলে সঞ্জু দাস। নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার পুরিন্দা কেএম সাদেকুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে সে জেএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে।

মঙ্গলবার পুরিন্দা কেএম সাদেকুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ে তথ্য ও যোগাযোগ বিষয় পরীক্ষা চলাকালীন এ বিষয়টি চোখে পড়ে।

জানা গেছে, জন্ম থেকেই দুই হাত নেই সঞ্জু দাসের। তার বাবা চিত্ত দাস মাছের ব্যবসা করেন। ২ ভাই ১ বোন তার। ছোটবেলা থেকে হাত না থাকলেও সে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে। সে প্রচুর মেধাবী।

তার বাবা চিত্ত দাস জানান, আমার ছেলের হাত না থাকায় প্রথমে লেখাপড়া করাতে চাইনি; কিন্তু তার আগ্রহ দেখে বাধা দেয়নি। এখন আমি তাকে সহযোগিতা করি। আমি মনে করি সে অনেক বড় হবে। কারণ তার লেখাপড়ার প্রতি অনেক আগ্রহ।

পরীক্ষার হলের দায়িত্বরত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলী আকবর সিকদার জানান, পরীক্ষার হলে গিয়ে আমি প্রথমে তাকে দেখে অবাক হই। দেখি হাত না থাকলেও পা দিয়ে পরীক্ষায় লিখছে। আমি তার সঙ্গে কথা বলে দেখলাম সে মেধাবী। তাই প্রতিবন্ধী হিসেবে সকল সুযোগ দেয়ার ব্যবস্থা করে দিই।

সঞ্জু দাস বলে, আমি লেখাপড়া করে সরকারি চাকরি করব। বাবা গরিব মানুষ আমি তাকে সহযোগিতা করব। সে শেষ পর্যন্ত লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়ার জন্য সবার সহযোগিতা ও দোয়া চায়।

আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোহাগ হোসেন জানান, আমরা উপজেলা প্রশাসন থেকে তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করব।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×