নির্বাচন অফিসের সামনে দুই মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ২৫
jugantor
নির্বাচন অফিসের সামনে দুই মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ২৫

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:২৫:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলা নির্বাচন অফিসের সামনে ২ মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের প্রায় ২৫ নেতাকর্মী আহত হয়।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে জেলা নির্বাচনে অফিসে রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে মেয়র ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন সংক্রান্ত সভা চলছিল। এ সময় নির্বাচন অফিসের বাইরে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝির সমর্থনে ছাত্রদলের একটি মিছিল নির্বাচন অফিসে আসে। এদিকে আগে থেকে নির্বাচন অফিসের সামনে অবস্থান নিয়ে থাকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলের সমর্থকরা।

দুই গ্রুপ যখন মুখোমুখি অবস্থানে ঠিক তখন নির্বাচন অফিসের সামনে দাঁড়ানো ও শ্লোগান দেয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের দুই কর্মীর মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। মুহূর্তের মধ্যে উভয়পক্ষের কর্মী সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়।উভয়পক্ষের মধ্যে ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও হাতাহাতি চলতে থাকে। প্রায় ১০ মিনিটব্যাপী এ ঘটনায় উভয় পক্ষের প্রায় ২৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। তাদের চাঁদপুর সদর হাসপাতাল ও বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। উভয়পক্ষকে ধাওয়া দিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান বিষয়টিকে বিএনপির নিজেদের মধ্যে কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে হাতাহাতির ঘটনা হয়েছে বলে শুনেছেন।

জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাড সলিমউল্যা সেলিম বলেন, আমরা নির্বাচন অফিসের দোতলায় ছিলাম শুনেছি দুই দলের সমর্থকরা হাতাহাতি করেছে। তবে এটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি মো. নাসিম উদ্দিন বলেন, নির্বাচন অফিসে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। বঙ্গবন্ধু সড়কে মারামারির খবর শুনে পুলিশ গিয়ে কাউকে ঘটনাস্থলে গিয়ে পায়নি।

নির্বাচন অফিসের সামনে দুই মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ২৫

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলা নির্বাচন অফিসের সামনে ২ মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের প্রায় ২৫ নেতাকর্মী আহত হয়।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে জেলা নির্বাচনে অফিসে রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে মেয়র ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন সংক্রান্ত সভা চলছিল। এ সময় নির্বাচন অফিসের বাইরে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝির সমর্থনে ছাত্রদলের একটি মিছিল নির্বাচন অফিসে আসে। এদিকে আগে থেকে নির্বাচন অফিসের সামনে অবস্থান নিয়ে থাকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলের সমর্থকরা।

দুই গ্রুপ যখন মুখোমুখি অবস্থানে ঠিক তখন নির্বাচন অফিসের সামনে দাঁড়ানো ও শ্লোগান দেয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের দুই কর্মীর মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। মুহূর্তের মধ্যে উভয়পক্ষের কর্মী সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়।উভয়পক্ষের মধ্যে ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও হাতাহাতি চলতে থাকে। প্রায় ১০ মিনিটব্যাপী এ ঘটনায় উভয় পক্ষের প্রায় ২৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। তাদের চাঁদপুর সদর হাসপাতাল ও বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। উভয়পক্ষকে ধাওয়া দিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান বিষয়টিকে বিএনপির নিজেদের মধ্যে কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে হাতাহাতির ঘটনা হয়েছে বলে শুনেছেন।

জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাড সলিমউল্যা সেলিম বলেন, আমরা নির্বাচন অফিসের দোতলায় ছিলাম শুনেছি দুই দলের সমর্থকরা হাতাহাতি করেছে। তবে এটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি মো. নাসিম উদ্দিন বলেন, নির্বাচন অফিসে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। বঙ্গবন্ধু সড়কে মারামারির খবর শুনে পুলিশ গিয়ে কাউকে ঘটনাস্থলে গিয়ে পায়নি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন