শিশুর রাগ নিয়ন্ত্রণে এ কেমন চিকিৎসা!

  যুগান্তর রিপোর্ট ৩০ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:১২ | অনলাইন সংস্করণ

গাঁজার বিস্কুট।
গাঁজার বিস্কুট। ছবি সংগৃহীত

শৈশবে সব শিশু একরকম হয় না। কোনো শিশু বেশি রাগী, কোনো শিশু কম রাগী। তবে অতিরিক্ত রাগী শিশুর রাগ নিয়ন্ত্রণে চিকিৎসায় অল্প মাত্রায় গাঁজার বিস্কুটের কথা বলেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া চার বছরের একটি রাগী শিশুর রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য অল্প মাত্রায় গাঁজা দিয়ে তৈরি বিস্কুট খাওয়ানোর পরামর্শ দেন এক চিকিৎসক।

প্রেসক্রিপশনে এমন কখা লিখে বিতর্কের মুখে পড়েছেন ওই চিকিৎসক। তার লাইসেন্স নিয়ে তাকে এখন যুদ্ধ করতে হচ্ছে।

ওই চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশনে গাঁজার কথা লিখে তোপের মুখে পড়েছেন। এখন কখা হলো আসলেই কি গাঁজা দিয়ে তৈরি বিস্কুট শিশুর রাগ কমাতে পারে। কেন এমন ধরনের প্রেসক্রিপশন লিখেছেন ওই ডাক্তার।

কেন এ ধরনের প্রেসক্রিপশন?

শিশুটি স্কুলে খুব অতিরিক্ত ক্ষিপ্ত হয়ে যেত ও অতিরিক্ত রাগী আচারণ করত। এ নিয়ে স্কুলে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। কোনো উপায় না দেখে ২০১২ সালে শিশুটির বাবা ডা. উইলিয়াম এইডেলম্যানের কাছে নিয়ে যান।

ডা. এইডেলম্যান শিশুটির রোগ নির্ণয় করে। 'বাইপোলার ডিসঅর্ডার' এবং এডিএইচডি নামের রোগগুলো শনাক্ত করা হয়। এই রোগগুলো গুরুতর মানসিক রোগ।

ডা. এইডেলম্যান জানান, অল্প মাত্রায় গাঁজা শিশুটির এই ধরনের মানসিক রোগ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করবে। নার্সকে দুপুরের খাবার সময় শিশুটিকে গাঁজা দিয়ে তৈরি বিস্কুট খেতে দিতে বলা হয়। তখই ঘটে বিপত্তি। শিশুর গাঁজা সেবনের বিষয়টি স্কুলে জানাজানি হয়।

শিশুটির বাবার ভাষ্য, তিনি বাল্যকালে এ ধরনের সমস্যায় ছিলেন। গাঁজা সেবন শুরু করে তিনি সুস্থ হন। তিনি বলেন, দুই সন্তানেরও গাঁজা একই ধরনের ইতিবাচক প্রভাব রেখেছে।

তবে ওই বাবা গাঁজা সেবনের ইতিবাচক প্রভাবের কথা জানালেও ডা. এইডেলম্যানের চিকিৎসা নিয়ে ক্যালিফোর্নিয়াতে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

বোর্ডের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, ওই চিকিৎসক রোগ নির্ণয়ে ভুল করেছেন। পরে তার লাইসেন্স বাতিল করার সুপারিশ করে বোর্ড। তবে ডা. এইডেলম্যান এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×