গরম তেল ও আগুনে হাত পুড়লে কী করবেন
jugantor
গরম তেল ও আগুনে হাত পুড়লে কী করবেন

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ জুন ২০২০, ১৩:৪০:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত

রান্না করার সময় একটু অসাবধানতার কারণে গরম তেলে বা চুলার আগুনে হাত পুড়ে যেতে পারে। এতে ভয় বা চিন্তার কিছু নেই। এসব পোড়ার চিকিৎসায় ঘরেই করা যায়।

যা করবেন

বেকিং সোডা

ক্ষত স্থানে ব্যবহার করতে পারেন বেকিং সোডা। জীবাণুনাশক বৈশিষ্ট্য থাকায় ক্ষত স্থানকে সংক্রমিত হতে দেয় না এই সোডা। এটি ত্বকের স্বাভাবিক পিএইচ রাখে। তাই পুড়ে যাওয়ার ব্যথা ও যন্ত্রণা দ্রুত কমে যায়।


ব্যবহার

১ টেবিল চামচ বেকিং সোডা ১-২ টেবিল চামচ পানিসহ ব্লেন্ড করে সরাসরি ক্ষত স্থানে লাগাতে হবে। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে অন্তত ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করুন।

ক্ষত সারাবে মধু

মধুতে রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটি, যা পুড়ে যাওয়া ক্ষতকে সংক্রমিত হতে দেয় না। জ্বালাপোড়া কমায় ও এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট দ্রুত ক্ষত সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে।

ব্যবহার

২ চা চামচ মধু নিয়ে আক্রান্ত স্থানে মেখে রাখুন। ফল পেতে দিনে ৩ বার প্রয়োগ করুন।

টুথপেস্ট ব্যবহার

টুথপেস্টে রয়েছে মিন্ট, যা পোড়া অংশের ব্যথা কমায় ও ক্ষত মসৃণ করতে সাহায্য করে।

ব্যবহার

ক্ষত স্থান ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে এর চারপাশে মিন্টযুক্ত সাদা টুথপেস্ট মাখুন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। দিনে তিনবার এটি ব্যবহার করুন।

লবণ

লবণে রয়েছে সোডিয়াম ক্লোরাইড। এর প্রাকৃতিক নিরাময় শক্তি ও অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল ফোস্কা সারাতে ও দ্রুত পুড়ে যাওয়া সারিয়ে তুলতে কাজ করে।

ব্যবহার

কয়েক ফোঁটা পানির সঙ্গে ১ চা চামচ লবণ মিশিয়ে পেস্ট বানান। আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। দিনে কয়েকবার এটি করতে পারেন।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

গরম তেল ও আগুনে হাত পুড়লে কী করবেন

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ জুন ২০২০, ০১:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

রান্না করার সময় একটু অসাবধানতার কারণে গরম তেলে বা চুলার আগুনে হাত পুড়ে যেতে পারে। এতে ভয় বা চিন্তার কিছু নেই। এসব পোড়ার চিকিৎসায় ঘরেই করা যায়। 

যা করবেন

বেকিং সোডা

ক্ষত স্থানে ব্যবহার করতে পারেন বেকিং সোডা। জীবাণুনাশক বৈশিষ্ট্য থাকায় ক্ষত স্থানকে সংক্রমিত হতে দেয় না এই সোডা। এটি ত্বকের স্বাভাবিক পিএইচ রাখে। তাই পুড়ে যাওয়ার ব্যথা ও যন্ত্রণা দ্রুত কমে যায়। 


ব্যবহার
 

১ টেবিল চামচ বেকিং সোডা ১-২ টেবিল চামচ পানিসহ ব্লেন্ড করে সরাসরি ক্ষত স্থানে লাগাতে হবে। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে অন্তত ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করুন। 

ক্ষত সারাবে মধু 

মধুতে রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটি, যা পুড়ে যাওয়া ক্ষতকে সংক্রমিত হতে দেয় না। জ্বালাপোড়া কমায় ও এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট দ্রুত ক্ষত সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে।

ব্যবহার
 
২ চা চামচ মধু নিয়ে আক্রান্ত স্থানে মেখে রাখুন। ফল পেতে দিনে ৩ বার প্রয়োগ করুন।

টুথপেস্ট ব্যবহার

টুথপেস্টে রয়েছে মিন্ট, যা পোড়া অংশের ব্যথা কমায় ও ক্ষত মসৃণ করতে সাহায্য করে। 

ব্যবহার
 

ক্ষত স্থান ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে এর চারপাশে মিন্টযুক্ত সাদা টুথপেস্ট মাখুন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। দিনে তিনবার এটি ব্যবহার করুন। 

লবণ

লবণে রয়েছে সোডিয়াম ক্লোরাইড। এর প্রাকৃতিক নিরাময় শক্তি ও অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল ফোস্কা সারাতে ও দ্রুত পুড়ে যাওয়া সারিয়ে তুলতে কাজ করে।

ব্যবহার

কয়েক ফোঁটা পানির সঙ্গে ১ চা চামচ লবণ মিশিয়ে পেস্ট বানান। আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। দিনে কয়েকবার এটি করতে পারেন।


 

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন