মোবাইল ফোনে কথাবার্তা
jugantor
মোবাইল ফোনে কথাবার্তা

  আশরাফুল আলম পিনটু  

২২ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একটা গলফ ক্লাবের লকার রুম। সেখানে কয়েকজন লোক। বেঞ্চের ওপর রাখা একটা মোবাইল ফোন বেজে উঠল। দাঁড়িয়ে থাকা এক লোক ফোনটা তুলে নিলেন হাতে। ফোনের স্পিকার চালু করে দিলেন। তারপর বেঞ্চে বসে তার গলফ জুতো খুলতে লাগলেন। তার কথা শোনার জন্য উৎসুক হলেন সবাই।

লোকটি : হ্যালো!

মহিলা : প্রিয়তম, আমি বলছি। তুমি কি ক্লাবে?

লোকটি : হ্যাঁ। তুমি কোথায়?

মহিলা : আমি এখন শপিং মলে। চামড়ার সুন্দর একটা কোট পেয়েছি। এখন এটার দাম ১২০০ ডলার। আগের দাম ছিল ১৯০০ ডলার। আমি এটা কিনব, কি বল?

লোকটি : ঠিক আছে। তোমার পছন্দ হয়ে থাকলে কিনে ফেল।

মহিলা : ওহ! অনেক ধন্যবাদ তোমাকে। শোনো, সকালে শোরুমে একটা নতুন মডেলের মার্সিডিজ গাড়ি দেখেছি। আমি ওটা কিনতে চাই। আমার খুবই পছন্দ হয়েছে।

লোকটি : দাম কত?

মহিলা : ৮০ হাজার ডলার।

লোকটি : কোনো সমস্যা নেই। ওই দামে পেলে কিনে ফেল।

মহিলা : ধন্যবাদ, হানি। ওহ, আরও একটা কথা- গত বছর আমরা যে বাড়িটা দেখেছিলাম, সেটা আবার বিক্রি হচ্ছে। ওরা দাম চাইছে ১৫ লাখ ডলার।

লোকটি : তাই নাকি! ঠিক আছে। ওদের সাড়ে ১২ লাখ ডলারের কথা বলে দেখ। কিছু কমাতে পার কিনা!

মহিলা : ওহ, দারুণ! সত্যিই, তুমি খুব ভালো! এজন্যই আমি তোমাকে এত ভালোবাসি।

লোকটি : আমিও তোমাকে খুব ভালোবাসি। এখন তাহলে রাখি।

লোকটি ফোন কেটে দিলেন। লকার রুমের অন্য একটি লোক অবাক চোখে তার দিকে তাকিয়ে ছিলেন। কথা শুনছিলেন আরও বেশি অবাক হয়ে।

জুতো খুলে লোকটা উঠে দাঁড়ালেন। উঁচিয়ে ধরলেন মোবাইল ফোনটা। তারপর জানতে চাইলেন, ‘কেউ কি জানেন, এ ফোন সেটটা কার?’

মোবাইল ফোনে কথাবার্তা

 আশরাফুল আলম পিনটু 
২২ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একটা গলফ ক্লাবের লকার রুম। সেখানে কয়েকজন লোক। বেঞ্চের ওপর রাখা একটা মোবাইল ফোন বেজে উঠল। দাঁড়িয়ে থাকা এক লোক ফোনটা তুলে নিলেন হাতে। ফোনের স্পিকার চালু করে দিলেন। তারপর বেঞ্চে বসে তার গলফ জুতো খুলতে লাগলেন। তার কথা শোনার জন্য উৎসুক হলেন সবাই।

লোকটি : হ্যালো!

মহিলা : প্রিয়তম, আমি বলছি। তুমি কি ক্লাবে?

লোকটি : হ্যাঁ। তুমি কোথায়?

মহিলা : আমি এখন শপিং মলে। চামড়ার সুন্দর একটা কোট পেয়েছি। এখন এটার দাম ১২০০ ডলার। আগের দাম ছিল ১৯০০ ডলার। আমি এটা কিনব, কি বল?

লোকটি : ঠিক আছে। তোমার পছন্দ হয়ে থাকলে কিনে ফেল।

মহিলা : ওহ! অনেক ধন্যবাদ তোমাকে। শোনো, সকালে শোরুমে একটা নতুন মডেলের মার্সিডিজ গাড়ি দেখেছি। আমি ওটা কিনতে চাই। আমার খুবই পছন্দ হয়েছে।

লোকটি : দাম কত?

মহিলা : ৮০ হাজার ডলার।

লোকটি : কোনো সমস্যা নেই। ওই দামে পেলে কিনে ফেল।

মহিলা : ধন্যবাদ, হানি। ওহ, আরও একটা কথা- গত বছর আমরা যে বাড়িটা দেখেছিলাম, সেটা আবার বিক্রি হচ্ছে। ওরা দাম চাইছে ১৫ লাখ ডলার।

লোকটি : তাই নাকি! ঠিক আছে। ওদের সাড়ে ১২ লাখ ডলারের কথা বলে দেখ। কিছু কমাতে পার কিনা!

মহিলা : ওহ, দারুণ! সত্যিই, তুমি খুব ভালো! এজন্যই আমি তোমাকে এত ভালোবাসি।

লোকটি : আমিও তোমাকে খুব ভালোবাসি। এখন তাহলে রাখি।

লোকটি ফোন কেটে দিলেন। লকার রুমের অন্য একটি লোক অবাক চোখে তার দিকে তাকিয়ে ছিলেন। কথা শুনছিলেন আরও বেশি অবাক হয়ে।

জুতো খুলে লোকটা উঠে দাঁড়ালেন। উঁচিয়ে ধরলেন মোবাইল ফোনটা। তারপর জানতে চাইলেন, ‘কেউ কি জানেন, এ ফোন সেটটা কার?’