ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন দাউদকান্দির ইউএনও
jugantor
ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন দাউদকান্দির ইউএনও

  দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:৫৩:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন দাউদকান্দির ইউএনও

দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা সাফিয়া বেগমের (৭০) দায়িত্ব নিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম খান।

মঙ্গলবার বিকালে বৃদ্ধা সাফিয়াকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়া, এক লাখ টাকা মূল্যের একটি সরকারি বসতঘর, হুইল চেয়ার এবং বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়ার আশ্বাস দেন ইউএনও।

সোমবার চিকিৎসা করার কথা বলে সাফিয়া বেগমের মেয়ে মিনা আক্তার তার মাকে উপজেলার গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডে ফেলে যান। খবর পেয়ে দাউদকান্দির সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সেলিম শেখ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সাফিয়া বেগমকে দাউদকান্দি (গৌরীপুর) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দাউদকান্দির সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সেলিম শেখ, দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. শাহীনুর আলম সুমন এবং আবাসিক মেডিকেল অফিসার মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন।

ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন দাউদকান্দির ইউএনও

 দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন দাউদকান্দির ইউএনও
ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন দাউদকান্দির ইউএনও

দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা সাফিয়া বেগমের (৭০) দায়িত্ব নিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম খান।

মঙ্গলবার বিকালে বৃদ্ধা সাফিয়াকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়া, এক লাখ টাকা মূল্যের একটি সরকারি বসতঘর, হুইল চেয়ার এবং বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়ার আশ্বাস দেন ইউএনও।

সোমবার চিকিৎসা করার কথা বলে সাফিয়া বেগমের মেয়ে মিনা আক্তার তার মাকে উপজেলার গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডে ফেলে যান। খবর পেয়ে দাউদকান্দির সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সেলিম শেখ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সাফিয়া বেগমকে দাউদকান্দি (গৌরীপুর) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দাউদকান্দির সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সেলিম শেখ, দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. শাহীনুর আলম সুমন এবং আবাসিক মেডিকেল অফিসার মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন