পুকুরে ভাসছিল অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর লাশ
jugantor
পুকুরে ভাসছিল অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর লাশ

  কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

২৮ জুলাই ২০২০, ১৭:৪৩:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে পুকুর থেকে মোশকিরাত জাহান নিঝুম নামে অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রীর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

মোশকিরাত জাহান নিঝুম নীলফামারী সরকারি মহিলা কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্রী ও সদর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামের মর্তুজার মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে নিঝুমের ছোট বোন ও তার মা নিঝুমকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করেন। পরে বিকালে ওই ছাত্রীর মা বাড়ির পাশের পুকুরের হাঁটু পানিতে তার মেয়ের লাশ দেখতে পান। পানি থেকে লাশ উত্তোলনের পর এটি হত্যা না আত্মহত্যা এ নিয়ে এলাকায় নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়। 

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল দেখে সন্দেহ হওয়ায় সন্ধ্যায় তার বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে মঙ্গলবার মর্গে পাঠায়। পরে নিহত ওই ছাত্রীর বাবা-মা ও এক যুবককে পুলিশ রাতেই থানায় এনে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেন। 

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি এম হারুন অর রশিদ জানান, এ ঘটনায় ইউডি মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত ওই ছাত্রীর মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। রিপোর্ট পেলেই প্রকৃত ঘটনা বোঝা যাবে।
 

পুকুরে ভাসছিল অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর লাশ

 কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
২৮ জুলাই ২০২০, ০৫:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে পুকুর থেকে মোশকিরাত জাহান নিঝুম নামে অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রীর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মোশকিরাত জাহান নিঝুম নীলফামারী সরকারি মহিলা কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্রী ও সদর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামের মর্তুজার মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে নিঝুমের ছোট বোন ও তার মা নিঝুমকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করেন। পরে বিকালে ওই ছাত্রীর মা বাড়ির পাশের পুকুরের হাঁটু পানিতে তার মেয়ের লাশ দেখতে পান। পানি থেকে লাশ উত্তোলনের পর এটি হত্যা না আত্মহত্যা এ নিয়ে এলাকায় নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল দেখে সন্দেহ হওয়ায় সন্ধ্যায় তার বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে মঙ্গলবার মর্গে পাঠায়। পরে নিহত ওই ছাত্রীর বাবা-মা ও এক যুবককে পুলিশ রাতেই থানায় এনে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেন।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি এম হারুন অর রশিদ জানান, এ ঘটনায় ইউডি মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত ওই ছাত্রীর মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। রিপোর্ট পেলেই প্রকৃত ঘটনা বোঝা যাবে।