শিক্ষার্থীদের বিকশিত করার মহাসুযোগ বই পড়া কার্যক্রম

  রাজশাহী ব্যুরো ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

বইপড়া প্রতিযোগিতা

প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক বলেছেন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বই পড়া কার্যক্রম প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার বাইরে শিক্ষার্থীদের বিকশিত করার মহাসুযোগ। আমাদের সংস্কৃতিকে উন্নত করতে হলে অবশ্যই পাঠ্যবইয়ের বাইরে প্রচুর বই পড়তে হবে। যে যত বেশি বই পড়বে, সে তত বেশি জানবে।

শুক্রবার সকালে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সেখানেই আমন্ত্রিত অতিথিরা শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেন পুরস্কারের বই। আর বই পড়ে পুরস্কার পেল রাজশাহীর এক হাজার ৪৪৬ জন শিক্ষার্থী। বই পড়া শেষে পরীক্ষা দিয়ে ফলাফলের ভিত্তিতে তারা পুরস্কার হিসেবে এসব বই গ্রহণ করে। গত বছরের বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের স্কুলপর্যায়ে বইপড়া কার্যক্রমে অংশ নিয়েছিল রাজশাহী মহানগরীর ৩৫টি স্কুলের এসব শিক্ষার্থী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দুবার এভারেস্ট বিজয়ী একমাত্র বাংলাদেশি এমএ মুহিত। তিনি বলেন, প্রত্যেক মানুষের ভেতরেই একটা এভারেস্ট রয়েছে। এই এভারেস্ট হলো তার স্বপ্ন। তোমরা স্বপ্ন দেখ এবং নিজের স্বপ্নের প্রতি অবিচল থাকো। দেখবে, প্রত্যেকেই যার যার এভারেস্টে উঠতে পেরেছ।

উপস্থিত ছিলেন দেশের প্রথম নারী এভারেস্ট বিজয়ী নিশাত মজুমদারও। তিনি বলেন, তিনি পাহাড়ে ওঠার স্বপ্ন দেখেছিলেন বই পড়ার মাধ্যমে। জীবনে বড় কিছু হতে হলে অবশ্যই বই পড়তে হবে। বই আমাদের স্বপ্ন দেখা শেখায় এবং আমাদের কল্পনাশক্তি বাড়ায়। শিক্ষার্থীরা বই পড়লে পাহাড়ের সমান উঁচু এবং আকাশের মতো উদার হতে পারবে।

এর আগে স্বাগত বক্তব্য দেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের উপদেষ্টা অঞ্জন কুমার দে। তিনি পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান। পরামর্শ দেন আরও বেশি বেশি বই পড়ার। পাশাপাশি এই বই পড়া কর্মসূচিকে সফলভাবে পরিচালনায় সহায়তা করার জন্য তিনি শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষক, সংগঠক ও পৃষ্ঠপোষকদের ধন্যবাদ জানান। আগামী বছর এই কর্মসূচিতে আরও বেশি শিক্ষার্থীকে অংশগ্রহণেরও আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে রাজশাহীর জেলা প্রশাসক হেলাল মাহমুদ শরীফ, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর ড. রীনা রানী দাস, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের নাটোর শাখার সংগঠক অধ্যাপক অলক মৈত্র, শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ তাইফুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের যুগ্ম পরিচালক (প্রোগ্রাম) মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ সুমন।

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের যুগ্ম পরিচালক মনির হোসেন জানান, তাদের বই পড়া কর্মসূচিতে বছরের প্রথমেই রাজশাহী নগরীর ৩৫টি স্কুলের শিক্ষার্থীদের সদস্য করা হয়েছিল। জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত তাদের মোট ১৬টি বই পড়তে দেয়া হয়। পড়া শেষে নেয়া হয় একটি পরীক্ষা। ওই পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতেই এক হাজার ৪৪৬ শিক্ষার্থীকে দেয়া হলো পুরস্কার।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter