সৃজিত-মিথিলার বিয়ে নিয়ে যা বললেন তসলিমা

  যুগান্তর ডেস্ক ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

সৃজিত-মিথিলার বিয়ে নিয়ে যা বললেন তসলিমা

সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় বিয়ে করেছেন কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি ও বাংলাদেশের অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। এই বিয়ে তাদের দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে।

তাদের বিয়ে বেশ কয়েকটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। নবদম্পতির প্রশংসা করে ছবিগুলোর কমেন্ট বক্স ভাসিয়েছেন নেটিজেনরা।

তবে বিরূপ, তীব্র কটাক্ষ ও আপত্তিকর মন্তব্যও কম জমা পড়েনি। অনেকেই এ নিয়ে নানা ধরনের নেতিবাচক মন্তব্য ও স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

আর এসব দেখে সৃজিত-মিথিলার বিয়ে নিয়ে বিস্ফোরণ মন্তব্য করেছেন আলোচিত-সমালোচিত ও নির্বাসিত লেখক তসলিমা নাসরিন।

শনিবার দুপুরের পর নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। ওই স্ট্যাটাসে সৃজিত-মিথিলার বিয়েকে দুই বাংলার মিলন হিসেবে অভিহিত করেছেন।

তসলিমা নাসরিনের সেই স্ট্যাটাসটি দেয়া হলো, ‘সৃজিতকে জানি তার ছবি দেখে। মিথিলা সম্পর্কে কিছুই জানতাম না। কাল ফেসবুকে দুজনের বিয়ের খবর পড়ার পর মিথিলা কে সে তথ্য গুগল করে পেয়েছি। ব্যাপারটা চমৎকার। এই প্রেমটা। সৃজিত মিথিলার প্রেম। হিন্দু মুসলমানের প্রেম। শুধু প্রেমই নয়, বিয়েও। পুব আর পশ্চিমের মিলন। এসব যত বেশি ঘটবে, তত উড়বে ধর্ম, ঘুচবে সংস্কার, ছিঁড়বে কাঁটাতার, মরবে বিদ্বেষ।’

প্রসঙ্গত দক্ষিণ কলকাতায় সৃজিত মুখার্জির বাসায় স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টায় বিয়ের রেজিস্ট্রি করা হয় মিথিলা-সৃজিতের।

ঘরোয়াভাবে আয়োজিত বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সৃজিতের মা ও দিদি, সৃজিতের টলিউডের পরিবার রুদ্রনীল, শ্রীজাত, ইন্দ্রদীপ, যিশু, নীলাঞ্জনা, অনুপম ও পিয়া। এছাড়া মিথিলার পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন। মায়ের বিয়েতে অতিথি হয়ে কলকাতায় গিয়েছিল তাহসান-মিথিলা কন্যা আইরাও। নিজেকে মেহেদীর রঙে রাঙিয়েছে সে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

 
×