বিটিভির নতুন দুই ডিজিটাল স্টুডিওর যাত্রা শুরু
jugantor
বিটিভির নতুন দুই ডিজিটাল স্টুডিওর যাত্রা শুরু

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অনুষ্ঠান সম্প্রচারে আধুনিকায়ন ও মানোন্নয়নের লক্ষে তৈরি দুটি ডিজিটাল স্টুডিও কার্যক্রম শুরু করেছে রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেল বাংলাদেশ টেলিভিশন। গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিটিভির দুটি স্টুডিওর ডিজিটালাইজড করার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ও বিশেষ অতিথি ছিলেন ডা. মুরাদ হাসান। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিটিভির মহাপরিচালক এসএম হারুন অর রশীদ। প্রাথমিকভাবে শহীদ এএফএম সিদ্দিক স্টুডিও ও শহীদ আকমল খান ডিজিটাল স্টুডিও- এ দুটি স্টুডিওকে ডিজিটালাইজড করা হয়েছে। পরবর্তীতে এ কার্যক্রম বৃদ্ধি পাবে। অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিটিভির অনুষ্ঠানমালা নির্মাণের সময় এটা যেন মাথায় থাকে আমার এ অনুষ্ঠান সমাজের জন্য কী বার্তা দিচ্ছে। আমাদের নতুন প্রজন্মের মনন তৈরি করার ক্ষেত্রে এই টিভি এরই মধ্যে বিশেষ অবদান রেখেছে। আগামীতেও যেন আরও জোরালোভাবে অবদান রাখতে পারে সে জন্য প্রযোজক, পরিচালক ও কর্মকর্তা, কলাকুশলীদের কাছে আমার বিশেষ অনুরোধ রইল।’ তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ পালন করব আগামী ১৭ মার্চ। তার আগেই বিটিভিকে ডিজিটাল টিভি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে, এটা আমার বিশেষ অনুরোধ। বিটিভিকে আমরা সেই স্বপ্নের জায়গায় দেখতে চাই। আমরা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিতে চলতে চাই।’ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিটিভির সাবেক মহাপরিচালক ম. হামিদ, সৈয়দ হাসান ইমাম, লায়লা হাসান, আতাউর রহমান, এসএম মোহসীন, আজিজুল হাকিম, শহীদুজ্জামান সেলিম, তানভীন সুইটি, তারিন জাহান, খায়রুল আনাম শাকিল, মাহবুবা ফেরদৌস, মো. মাহফুজার রহমানসহ বিটিভির অন্য কর্মকর্তা ও কলাকুশলীরা।

বিটিভির নতুন দুই ডিজিটাল স্টুডিওর যাত্রা শুরু

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অনুষ্ঠান সম্প্রচারে আধুনিকায়ন ও মানোন্নয়নের লক্ষে তৈরি দুটি ডিজিটাল স্টুডিও কার্যক্রম শুরু করেছে রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেল বাংলাদেশ টেলিভিশন। গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিটিভির দুটি স্টুডিওর ডিজিটালাইজড করার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ও বিশেষ অতিথি ছিলেন ডা. মুরাদ হাসান। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিটিভির মহাপরিচালক এসএম হারুন অর রশীদ। প্রাথমিকভাবে শহীদ এএফএম সিদ্দিক স্টুডিও ও শহীদ আকমল খান ডিজিটাল স্টুডিও- এ দুটি স্টুডিওকে ডিজিটালাইজড করা হয়েছে। পরবর্তীতে এ কার্যক্রম বৃদ্ধি পাবে। অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিটিভির অনুষ্ঠানমালা নির্মাণের সময় এটা যেন মাথায় থাকে আমার এ অনুষ্ঠান সমাজের জন্য কী বার্তা দিচ্ছে। আমাদের নতুন প্রজন্মের মনন তৈরি করার ক্ষেত্রে এই টিভি এরই মধ্যে বিশেষ অবদান রেখেছে। আগামীতেও যেন আরও জোরালোভাবে অবদান রাখতে পারে সে জন্য প্রযোজক, পরিচালক ও কর্মকর্তা, কলাকুশলীদের কাছে আমার বিশেষ অনুরোধ রইল।’ তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ পালন করব আগামী ১৭ মার্চ। তার আগেই বিটিভিকে ডিজিটাল টিভি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে, এটা আমার বিশেষ অনুরোধ। বিটিভিকে আমরা সেই স্বপ্নের জায়গায় দেখতে চাই। আমরা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিতে চলতে চাই।’ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিটিভির সাবেক মহাপরিচালক ম. হামিদ, সৈয়দ হাসান ইমাম, লায়লা হাসান, আতাউর রহমান, এসএম মোহসীন, আজিজুল হাকিম, শহীদুজ্জামান সেলিম, তানভীন সুইটি, তারিন জাহান, খায়রুল আনাম শাকিল, মাহবুবা ফেরদৌস, মো. মাহফুজার রহমানসহ বিটিভির অন্য কর্মকর্তা ও কলাকুশলীরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন