ছয় কাজের বিনিময়ে জান্নাতের গ্যারান্টি দিয়েছেন নবীজি
jugantor
ছয় কাজের বিনিময়ে জান্নাতের গ্যারান্টি দিয়েছেন নবীজি

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৩২:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ছয় কাজের বিনিময়ে জান্নাতের গ্যারান্টি দিয়েছেন নবীজি

যে ব্যক্তি সদা সত্য কথা বলে, ওয়াদা পূর্ণ করে, আমানত ঠিকমতো পৌঁছে দেয়, লজ্জাস্থানের হেফাজত করে, দৃষ্টি অবনত রাখে এবং হাতকে অন্যায় থেকে বিরত রাখে তার জন্য রয়েছে জান্নাতের গ্যারান্টি।

হজরত উবাদা বিন সামিত (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমরা আমাকে ছয়টি বিষয়ের জামানত (নিশ্চয়তা) দাও; আমি তোমাদের জন্য জান্নাতের জামিন হচ্ছি (নিশ্চয়তা দিচ্ছি)।

(১) যখন কথা বলবে, সত্য বলবে।
(২) কখনও ওয়াদা করলে তা পূরণ করবে।
(৩) কখনও তোমাদের কাছে আমানত রাখা হলে, তা (প্রাপকের কাছে ঠিকমতো) পৌঁছে দেবে।
(৪) লজ্জাস্থানের হেফাজত করবে।
(৫) দৃষ্টি অবনত রাখবে।
(৬) হাতকে অন্যায় থেকে বিরত রাখবে।

(সূত্র: মুসনাদে আহমদ, হাদিস নং-২২৭৫৭)

ছয় কাজের বিনিময়ে জান্নাতের গ্যারান্টি দিয়েছেন নবীজি

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৩২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ছয় কাজের বিনিময়ে জান্নাতের গ্যারান্টি দিয়েছেন নবীজি
প্রতীকি ছবি

যে ব্যক্তি সদা সত্য কথা বলে, ওয়াদা পূর্ণ করে, আমানত ঠিকমতো পৌঁছে দেয়, লজ্জাস্থানের হেফাজত করে, দৃষ্টি অবনত রাখে এবং হাতকে অন্যায় থেকে বিরত রাখে তার জন্য রয়েছে জান্নাতের গ্যারান্টি।

হজরত উবাদা বিন সামিত (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমরা আমাকে ছয়টি বিষয়ের জামানত  (নিশ্চয়তা) দাও; আমি তোমাদের জন্য জান্নাতের জামিন হচ্ছি (নিশ্চয়তা দিচ্ছি)।

(১) যখন কথা বলবে, সত্য বলবে। 
(২) কখনও ওয়াদা করলে তা পূরণ করবে।
(৩) কখনও তোমাদের কাছে আমানত রাখা হলে, তা (প্রাপকের কাছে ঠিকমতো) পৌঁছে দেবে।
(৪) লজ্জাস্থানের হেফাজত করবে।
(৫) দৃষ্টি অবনত রাখবে। 
(৬) হাতকে অন্যায় থেকে বিরত রাখবে।
     
(সূত্র: মুসনাদে আহমদ, হাদিস নং-২২৭৫৭)
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন